সাগর-রুনী হত্যার ৬ বছর

এবার ‘অজ্ঞাত’ দুই পুরুষকে খোঁজা হচ্ছে

সরকারের সদিচ্ছাই যথেষ্ট -সাগরের মা * তদন্ত প্রতিবেদনের জন্য ৫৪ বার সময় নেয়া হয়েছে

  যুগান্তর রিপোর্ট ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনী হত্যা মামলার তদন্ত কাজ শেষ হয়নি ৬ বছরেও। পুলিশ, ডিবির পর র‌্যাবের তদন্তেও

নেমে এসেছে স্থবিরতা। তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আদালতের কাছ থেকে এ পর্যন্ত ৫৪ বার সময় নেয়া হয়েছে।

সর্বশেষ পহেলা ফেব্রুয়ারি প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য থাকলেও তা করা হয়নি। আগামী ১৩ মার্চ প্রতিবেদন দাখিলের পরবর্তী দিন ধার্য করা হয়েছে। তদন্ত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ডিএনএ পরীক্ষায় ঘটনাস্থলে ‘অজ্ঞাত’ দুই পুরুষের তথ্য পাওয়া গেছে। তবে তাদের নাম-ঠিকানা পাওয়া না যাওয়ায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা যাচ্ছে না। সাগর-রুনী দম্পতির স্বজনসহ সন্দেহভাজনের ডিএনএন নমুনা র‌্যাবের হাতে এলেও ঘাতকদের শনাক্ত করা যায়নি। নিহতদের বাসা থেকে খোয়া যাওয়া মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ চালু হলে খুনিদের গ্রেফতার করা সম্ভব হবে।

সাংবাদিক সাগরের মা সালেহা মনির যুগান্তরকে বলেছেন, ‘সরকারের সদিচ্ছা থাকলে হত্যার রহস্য বের হয়ে যেত। সদিচ্ছা আছে বলেই খালেদা জিয়ার এত পুরনো দুর্নীতি বের হয়ে গেল, নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের রহস্য বের হয়ে গেল, পুরান ঢাকার দর্জি বিশ্বজিৎ হত্যার রহস্য বের হয়ে গেল-আর আমার দুই সন্তান হত্যার রহস্য বের করা যাবে না!’ তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছিলেন, বিচার হবে। কই কী হল? কিছুই তো হল না। দীর্ঘদিন পার হয়ে গেল। তারা কোনো রাষ্ট্রবিরোধী কাজও করেনি। তাহলে হত্যার রহস্য কেন বের হল না। সন্দেহভাজনদের ডিএনএ বিদেশে পরীক্ষা করা হয়েছে। সেখানে দুই অজ্ঞাত ব্যক্তির কথা বলা হলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের বের করতে পারল না! সেই ‘৪৮ ঘণ্টা’ ৬ বছরে পরিণত হতে চলেছে। প্রধানমন্ত্রীর কাছে একটাই অনুরোধ, তিনি যেন বিষয়টি মানবিক দৃষ্টিতে দেখেন। জানতে চাইলে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান যুগান্তরকে বলেন, তদন্ত এখনও শেষ হয়নি। আদালতের নির্দেশে তদন্ত কাজ চলছে।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.