তামাকে কর বাড়াতে অর্থমন্ত্রীকে আট এমপির চিঠি

  রাজশাহী ব্যুরো ০২ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আসন্ন জাতীয় বাজেটে কার্যকরভাবে করারোপের মাধ্যমে সব তামাকজাত পণ্যের প্রকৃত মূল্য বৃদ্ধি ও শক্তিশালী তামাক শুল্ক-নীতি গ্রহণে অর্থমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন উত্তরাঞ্চলের আটজন এমপি। এই আটজনের মধ্যে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম ও রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশাও আছেন। অন্য ছয় সংসদ সদস্য হলেন সিরাজগঞ্জ-২ আসনের অধ্যাপক ডা. মো. হাবিবে মিল্লাত, নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম) আসনের অধ্যাপক মো. আব্দুল কুদ্দুস, লালমনিরহাট-১ (হাতিবান্ধা-পাটগ্রাম) আসনের মো. মোতাহার হোসেন, রংপুর-২ আসনের আবুল কালাম মো. আহসানুল হক চৌধুরী, কুড়িগ্রাম-১ আসনের মো. আছলাম হোসেন সওদাগর এবং সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য রাবেয়া আলীম।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের শরিক দল ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, চিঠিতে তারা আসন্ন বাজেটে উচ্চ হারে তামাকের কর কেন বাড়ানো প্রয়োজন তার যুক্তি তুলে ধরে প্রতিবছর মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি ও মূল্যস্ফীতির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে শুল্কারোপের প্রস্তাব করেন। যাতে তামাকপণ্য ক্রমশ জনগণের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে চলে যায়। এছাড়া তারা অবিলম্বে একটি কার্যকর শুল্কনীতি প্রণয়নেরও প্রস্তাব চিঠিতে উল্লেখ করেন।

অর্থমন্ত্রীকে দেয়া ওই চিঠিতে তামাক ব্যবহারজনিত রোগে দেশে প্রায় ১ লাখ ২৬ হাজার লোকের অকাল মৃত্যু হয় বলেও জানানো হয়। বর্তমানে ৩ কোটি ৭৮ লাখ প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষ তামাক সেবন করেন। যার মধ্যে ১৮ শতাংশ (১ কোটি ৯২ লাখ) ধূমপানের মাধ্যমে তামাক ব্যবহার করেন এবং ২০ দশমিক ৬ শতাংশ (২ কোটি ২০ লাখ) ধোঁয়াবিহীন তামাক (জর্দা, গুল, খৈনি, সাদাপাতা) ব্যবহার করেন। এই ধোঁয়াবিহীন তামাক ব্যবহারের হার নারীদের মধ্যে অনেক বেশি। বাংলাদেশে ১৩ থেকে ১৫ বছর বয়সের প্রায় ৭ শতাংশ কিশোর-কিশোরী তামাকপণ্য ব্যবহার করে- যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক।

সংসদ সদস্যরা চিঠিতে লেখেন, বাংলাদেশে তামাকপণ্য খুবই সহজলভ্য। তারা জনস্বাস্থ্য, পরিবেশ ও অর্থনীতির ওপর তামাকের নেতিবাচক প্রভাবের কথা বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা ‘২০৪০ সাল নাগাদ তামাকমুক্ত বাংলাদেশ’ বাস্তবায়নে আসন্ন ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটের জন্য সুনির্দিষ্ট কিছু সুপারিশ তুলে ধরেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×