ক্ষমা চাওয়ায় এ কে খন্দকারকে তথ্যমন্ত্রীর ধন্যবাদ

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৩ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বইয়ে ভুল তথ্যের কারণে ক্ষমা চাওয়ায় এ কে খন্দকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, লেখক তার বক্তব্য যে কোনো সময় প্রত্যাহার করতে পারেন, ভুল স্বীকারও করতে পারেন। সেটার জন্য লেখকের স্বাধীনতা আছে। তাকে ধন্যবাদ জানাই যে, তার উপলদ্ধি হয়েছে যে, তিনি ভুল বলেছেন।

আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে রোববার দুপুরে দলের প্রচার উপ-কমিটির সভার শুরুতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, তবে এ ক্ষেত্রে একটু দুর্বলতা থেকেই যায়। একজন লেখক কেন অন্যের প্রভাবে প্রভাবিত হয়েছেন, একটি ঐতিহাসিক সত্যকে তিনি কেন অন্যভাবে উপস্থাপন করেছিলেন, সে প্রশ্নটি থেকেই যায়।

ঈদের পর বিএনপির আন্দোলন ও খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি গত ১০ বছর ঈদের আগে-পরে, গরমের পরে, শীতের আগে- এমন বিভিন্ন সময়ে আন্দোলনের কথা বলে আসছে। আসলে কখন তাদের আন্দোলন হবে, তা কেউ বলতে পারেন না। এসব বলে নিজেদের আর হাসির পাত্র না করাই ভালো। আর এটা স্পষ্ট যে, শাস্তিপ্রাপ্ত কোনো অপরাধীকে মুক্তি দেয়ার বিষয়ে সরকারের কিছুই করার নেই। আদালতই সিদ্ধান্ত দেবেন। তাই খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনের মাধ্যমে সম্ভব না।

রমজানে পণ্যমূল্য বৃদ্ধি না পাওয়া, খাদ্যে ভেজালরোধ এবং ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে সরকারের সক্ষমতা প্রশংসাযোগ্য বলে উল্লেখ করেন ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, গত ১০ বছরে যোগাযোগ ক্ষেত্রে বিপুল উন্নয়ন করেছে সরকার। ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক চার লেনে উন্নীত করায় এবার ঈদে মানুষ স্বস্তিতে বাড়িতে যাওয়া আসা করতে পারছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদেশ সফরে থাকলেও নিয়মিত দেশের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় সফরে জাপান ও ওআইসি সম্মেলনে যোগ দিতে দেশের বাইরে থাকলেও নিয়মিত মন্ত্রিসভার সদস্য ও সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে দেশের সব খবরাদি রাখছেন এবং প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিচ্ছেন। এ সময় পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে গণমাধ্যমকর্মীসহ দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানান তথ্যমন্ত্রী।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×