নাশতার নতুন মেন্যুর উদ্বোধনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

কারাগারকে সংশোধনাগার হিসেবে দেখছি

  কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি ১৭ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, কারাগারকে আমরা বন্দিশালা হিসেবে নয়, সংশোধনাগার হিসেবে দেখছি। তাদের জন্য বাস্তবসম্মত বেশকিছু পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে নাশতার মেন্যুতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। কারাবন্দিদের চাহিদা অনুযায়ী ৩৮টি ইভেন্টে তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। যাতে বন্দিরা মুক্তির পর পুনরায় অপরাধে না জড়িয়ে সংশোধনের সুযোগ পাবে।

রোববার সকালে কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নাশতার নতুন এই মেন্যুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করছিলেন মন্ত্রী। নতুন মেন্যু কার্যকরের প্রথমদিন রোববার বন্দিদের ভুনা খিচুড়ি দেয়া হয়। সপ্তাহে দু’দিন ভুনা খিচুড়ি, ৪ দিন সবজি-রুটি ও বাকি ১ দিন হালুয়া-রুটি দেয়া হবে। কারাগার প্রতিষ্ঠার পর থেকে বাংলাদেশের কারাবন্দিরা একই মেন্যুতে সকালের নাশতা করত। সাজাপ্রাপ্ত বন্দির জন্য বরাদ্দ ছিল ১১৬.৬৪ গ্রাম আটা (সমপরিমাণ রুটি) ও ১৪.৫৮ গ্রাম গুড় এবং বিচারাধীন বন্দিদের জন্য ৮৭.৪৮ গ্রাম আটা (সমপরিমাণ রুটি) ও ১৪.৫৮ গ্রাম গুড়। বন্দিদের স্বাস্থ্য ও পুষ্টির কথা বিবেচনা করে সরকার বন্দিদের সকালের নাশতার মেন্যুতে বদল আনল। নতুন মেন্যুতে একই খাবার পাবেন সব বন্দি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কারাবন্দিদের জন্য পরীক্ষামূলকভাবে চালু হয়েছে প্রিজন লিংক ‘স্বজন’ সার্ভিস। ফলে কারাবন্দিরা মোবাইল ফোনে তাদের স্বজন ও বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবে। বন্দিরা কারাগারে মানসিক প্রশান্তি পেলে তাদের অপরাধপ্রবণতা কমবে। প্রাথমিকভাবে পাইলট প্রকল্প হিসেবে টাঙ্গাইল কারাগারে এ সার্ভিস চালু করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সারা দেশে চালু করা হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আইজি (প্রিজন) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম মোস্তফা কামাল পাশা, ডিআইজি (প্রিজন) টিপু সুলতান, ঢাকা জেলা প্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান, কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহে এলিদ মাইনুল আমিন, ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার ইকবাল কবির চৌধুরী, জেলার মাহবুবুল ইসলাম, কেরানীগঞ্জ সার্কেল অতিরিক্ত এসপি রামানন্দ সরকার প্রমুখ।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×