আ’লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

ব্যতিক্রমী আয়োজনে স্মরণীয় করে রাখার প্রস্তুতি

রাজধানীসহ সারা দেশে আলোকসজ্জা * ত্যাগী নেতাদের সংবর্ধনা * আয়োজন থাকছে রোজ গার্ডেনেও

  হাসিবুল হাসান ১৮ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জমকালো আয়োজনে ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী স্মরণীয় করে রাখতে চায় ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ। ২৩ জুন একাত্তর বছরে পা রাখছে দলটি। এ উপলক্ষে ঘোষণা করা হয়েছে মাসব্যাপী কর্মসূচি। পরিকল্পনা রয়েছে রাজধানী ঢাকাসহ জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে আলোকসজ্জার। সভা-সমাবেশ, সেমিনার ও র‌্যালি, প্রচার ও পুস্তিকা প্রকাশ, রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতাসহ থাকছে ব্যতিক্রমী আরও কিছু আয়োজন। এবারই প্রথম প্রতি জেলা থেকে দু’জন করে প্রবীণ ও ত্যাগী নেতাকে সংবর্ধনা দেবে আওয়ামী লীগ। এছাড়া আওয়ামী লীগ যে বাড়িতে প্রতিষ্ঠিত পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী সেই রোজ গার্ডেনেও থাকছে আয়োজন।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ২৩ জুন আমাদের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। এ উপলক্ষে আমরা ব্যাপক কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি কালারফুল করতে চাই। মাসব্যাপী এ কর্মসূচি চলবে ২৩ জুলাই পর্যন্ত।

এ উপলক্ষে সোমবার বর্ধিত সভা করেছে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। বর্ধিত সভায় উপস্থিত ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণের নেতারা যুগান্তরকে বলেছেন, ঢাকার প্রত্যেক ওয়ার্ডে আলোকসজ্জার নির্দেশ দিয়েছেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এছাড়া গুরুত্বপূর্ণ সড়ক, পাবলিক প্লেস, রাস্তার মোড়, বাস স্ট্যান্ড, রেলওয়ে স্টেশনগুলোতে ব্যানার ও ফেস্টুন লাগাতে বলা হয়েছে। পুরান ঢাকার রোজ গার্ডেনকে সাজাতে বলা হয়েছে আকর্ষণীয় করে। ব্যানার, ফেস্টুনে বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি ছাড়া নেতাকর্মীদের ছবি ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন তিনি।

২৩ জুন সকাল ৭টায় বঙ্গবন্ধু ভবনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করবেন শেখ হাসিনা। ইতিমধ্যেই তূণমূলে পাঠানো নির্দেশনায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচির সঙ্গে সমন্বয় করে কর্মসূচি পালনের পাশাপাশি জেলা-উপজেলা এবং ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন পর্যায়ে আলাদা কর্মসূচি পালন করতে বলা হয়েছে। এছাড়া এবারের সব কর্মসূচিতে গুরুত্ব দেয়া হবে তৃণমূল এবং ত্যাগী নেতাদের।

এদিকে শনিবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ঢাকা বিভাগের জেলা ও মহানগীরর সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদের নিয়ে বিশেষ সাংগঠনিক সভা করে দল। সভায় অন্য বিষয়ের সঙ্গে দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী নিয়েও আলোচনা হয়েছে। সভায় ওবায়দুল কাদের জেলা নেতাদের আলোকসজ্জার ব্যবস্থা করাসহ নানা নির্দেশনা দেন। তিনি বলেন, রাজধানীতে প্রতি বছর আলোকসজ্জা করি। আমরা চাই এবার জেলা-উপজেলায়ও আপনারা করুন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হাসানাত যুগান্তরকে বলেন, আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীতে আলোকসজ্জার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সিটি কর্পোরেশন ও গণপূর্তকে। তারাই মহানগরের রাস্তাঘাটসহ অন্যান্য স্থানে আলোকসজ্জার ব্যবস্থা করবে। এছাড়া রোজ গার্ডেন এবং নবাবপুরে আওয়ামী লীগের একটা অফিস আছে সেখানেও আলোকসজ্জার ব্যবস্থা করা হবে।

এ উপলক্ষে ২৪ জুন রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আলোচনা সভা হবে। সেই আয়োজনে এবার থাকছে ব্যতিক্রমী সংযুক্তি। প্রতি জেলা থেকে দু’জন করে প্রবীণ ও ত্যাগী নেতাকে দেয়া হবে সংবর্ধনা। আওয়ামী লীগের দফতর সূত্রে জানা গেছে, সারা দেশের বেশিরভাগ জেলা থেকে ইতিমধ্যেই দু’জন করে নেতার নাম জমা দেয়া হয়েছে। যেসব জেলা থেকে এখনও নাম পাঠানো হয়নি। তাদের সঙ্গে দফতর থেকেই যোগাযোগ করা হচ্ছে বলে ওই সূত্র জানায়।

এছাড়া ২৫ জুন বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে। দলের সাংস্কৃতিক উপকমিটির তত্ত্বাবধানে মমতাজ, রফিকুল ইসলামসহ দেশের বরেণ্য ও জনপ্রিয় শিল্পীরা সঙ্গীত পরিবেশন করবেন। জাতীয় সঙ্গীত ও দলীয় সঙ্গীতের পাশাপাশি স্বাধীনতা ও দেশের গান পরিবেশন করা হবে এ আয়োজনে।

পুরান ঢাকার হৃষিকেশ দাস লেনের রোজ গার্ডেনে ১৯৪৯ সালে গঠিত হয় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। রোজ গার্ডেন থেকে কয়েকটি জায়গা বদল হয়ে ১৯৮১ সালে শেখ হাসিনা দলের সভাপতি হয়ে দেশে ফেরার পর দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় হয় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে। গত ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দলের ১০ তলা অফিসের উদ্বোধন করেন দলের প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাজধানীর ওয়ারী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি চৌধুরী আশিকুর রহমান লাভলু যুগান্তরকে বলেন, রোজ গার্ডেন আমার থানার মধ্যে পড়েছে। এবারের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে এখানে বড় অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা নেয়া হচ্ছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×