তিস্তায় পানি বৃদ্ধি লালমনিরহাটে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

সিকিম ও পশ্চিমবঙ্গে বন্যা সতর্কতা

  লালমনিরহাট প্রতিনিধি ১৯ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তিস্তায় পানি বৃদ্ধি লালমনিরহাটে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

উজান থেকে নেমে আসা ঢলে তিস্তা নদীতে পানি বেড়ে যাওয়ায় লালমনিরহাটে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকালে হাতীবান্ধার দোয়ানিতে অবস্থিত ‘তিস্তা ব্যারাজ’ এলাকায় বিপদসীমার ৮ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়। পানি নিয়ন্ত্রণে তিস্তা ব্যারাজের ৪৪টি জলকপাট খুলে দেয়া হয়েছে।

এদিকে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, তিস্তায় হঠাৎ পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ভারতের সিকিমসহ পশ্চিমবঙ্গের কিছু অঞ্চলে বন্যার সতর্কতা জারি করেছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগ। পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় খুলে দেয়া হয়েছে বাঁধের বেশ কয়েকটি গেট।

তিস্তায় হঠাৎ করে পানি বেড়ে যাওয়ায় পাটগ্রাম উপজেলার দহগ্রাম, হাতীবান্ধা উপজেলার সানিয়াজান, গড্ডিমারী ও সিন্দুর্ণা ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল ইতোমধ্যে প্লাবিত হয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে, ব্যারাজ এলাকায় পানির বিপদসীমা মাত্রা ধরা হয়েছে ৫২ দশমিক ৬০ সেন্টিমিটার। সেখানে গত সোমবার তিস্তায় ৫২ দশমিক ৩৫ সেন্টিমিটার উচ্চতায় পানি প্রবাহিত হতে থাকে। মঙ্গলবার বিকালে তা আরও বেড়ে ৫২ দশমিক ৫২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। এ বিষয়ে পাটগ্রাম উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা (পিআইও) উত্তম কুমার নন্দি যুগান্তরকে বলেন, আমি খবর পেয়ে দহগ্রামে গিয়েছিলাম। সেখানে কিছু লোকের উঠানে বৃষ্টির পানি উঠেছিল। তবে মঙ্গলবার দুপুরের পরেই তা নেমে গেছে। পাটগ্রামের ইউএনও আবদুল করিম বলেন, নদীর পানি একটু বেড়েছিল। তবে তা লোকজনের বাড়ি পর্যন্ত আসেনি। ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, উজানের ঢলে তিস্তার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×