র‌্যাংকিংয়ে সেরা নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি

দিনভর নানা আয়োজনে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন উদযাপন

  যুগান্তর রিপোর্ট ২০ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

দিনব্যাপী নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বেসরকারি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় বুধবার র‌্যাংকিংয়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন উদযাপন করেছে। এ উপলক্ষে আয়োজন করা হয় বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার। হ্যাশট্যাগ নম্বর লেখা মানবপতাকা রচনা করেন ছাত্রছাত্রীরা। বিশিষ্ট নাগরিকদের অংশগ্রহণে আলোচনা সভা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সাফল্য উদযাপন অনুষ্ঠানে বর্তমান শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি সাবেকরাও যোগ দেন।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সকালে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালা উদ্বোধন করেন। ওই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য ও পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান এবং এনএসইউ’র ট্রাস্টি বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান এমএ হাসেম।

বিকালে দেশের দু’জন প্রথিতযশা সাংবাদিক-সাহিত্যিককে মধ্যমণি করে আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তারা হলেন যুগান্তর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলম এবং কথাসাহিত্যিক ও কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন। এই পর্বে বক্তৃতা করেন এনএসইউ’র ট্রাস্টি বোর্ডের নতুন চেয়ারম্যান ড. বেনজীর আহমেদ, বিদায়ী চেয়ারম্যান আজিমউদ্দিন আহমেদ, সাবেক চেয়ারম্যান এমএ কাশেম, প্রোভিসি অধ্যাপক জিইউ আহসান, কথাসাহিত্যিক ও অনুবাদক অধ্যাপক খালিকুজ্জামান ইলিয়াস, বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্বাহী পরিচালক (প্রশাসন) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. সাবের এবং শিক্ষার্থীদের পক্ষে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের বখতিয়ার হাবীব। উভয় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. আতিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠান দুটিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও ছাত্রছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রথম পর্বের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বত্তৃদ্ধতায় তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমি এই ইউনিভার্সিটির একজন প্রাক্তন শিক্ষক। দেশের সব প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিকে শীর্ষস্থানে দেখে সাবেক শিক্ষক হিসেবে আমি আনন্দিত। সেই সঙ্গে আজকের এ সাফল্যের জন্য আমি নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি কর্তৃপক্ষকে অভিনন্দন জানাই। তিনি বলেন, ‘পৃথিবীর সব মানুষই স্বপ্ন দেখে। কিন্তু সবার স্বপ্ন পূরণ হয় না। যারা স্বপ্নের সঙ্গে প্রচেষ্টা যুক্ত করে কেবল তাদের স্বপ্নই বাস্তবায়িত হয়। আমাদের এমন একটি প্রজন্ম দরকার যারা শুধু নিজেদের জন্য নয়, দেশের জন্যও স্বপ্ন দেখবে।’

যুগান্তর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম বলেন, ‘এক সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দেশের সব ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিয়েছে। আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য গৌরববোধ করি। তবে এই নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্যও আমার গৌরব আছে। কারণ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাজুয়েট আমার ছোট কন্যা। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রি নেয়ার দেড় মাসের মধ্যে সে একটি চাকরিতে যোগ দিয়েছে। এতেই প্রমাণিত হয়, চাকরির বাজারে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাপারে আস্থা কতটা গভীর। আমি আশা করছি, আগামী দিনে বাংলাদেশের সব ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দেবে এই বিশ্ববিদ্যালয়। সেদিন বেশি দূরে নয়, যেদিন শুধু বাংলাদেশ বা এশিয়ায় নয়, সারাবিশ্বের শ্রেষ্ঠ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর তালিকায়ও ঠাঁই করে নেবে এই বিশ্ববিদ্যালয়।’

কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন বলেন, ‘নর্থ সাউথ সেই বিশ্ববিদ্যালয় যেটি নিয়ে আমি গৌরববোধ করি। কেননা বাংলাদেশের সেরা শিক্ষার্থীদের অনেকেরই এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার টার্গেট থাকে। আমার দুই কন্যা এই বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাজুয়েট। তাই আমি এই বিশ্ববিদ্যালয়কে নিজের প্রতিষ্ঠান মনে করি। তিনি বলেন, ‘আমি স্বপ্ন দেখছি, এই বিশ্ববিদ্যালয় এক সময় কেবল এশিয়ার সেরা নয়, বিশ্বসেরাদের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়ে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল ও গৌরবান্বিত করবে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের বিওটির সাবেক চেয়ারম্যান এমএ হাসেম বলেন, ‘নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি আজ র‌্যাংকিংয়ে প্রথম স্থান অধিকার করায় আমি অত্যন্ত আনন্দিত। ইউনিভার্সিটির শতভাগ শিক্ষার্থী দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানে কাজের মাধ্যমে তাদের যোগ্যতার প্রমাণ করে দেশের উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখছে। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম নিরন্তর ছড়িয়ে দিচ্ছে।’

বিওটির নতুন চেয়ারম্যান ড. বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘২৮ বছর আগে একটি সেরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন নিয়ে আমরা যাত্রা শুরু করি। লক্ষ্য অর্জনে আমরা ছিলাম দৃঢ় ও পরিশ্রমী। ওই বছরগুলোতে আমরা ঘুমাতে যাইনি।’ সেরা হওয়ার রহস্য প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য ছিল তিনটা। ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে সেরা ছাত্রছাত্রীদের ভর্তি করব। শিক্ষক হতে হবে অবশ্যই বিশ্বসেরা। ক্যাম্পাসটি হতে হবে নান্দনিক ও সুরম্য। আমরা সব দিকই নিশ্চিতের চেষ্টা করেছি।’

বিওটির সাবেক চেয়ারম্যান এমএ কাশেম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ইতিহাস এবং চ্যালেঞ্জ ও সংগ্রামের কথা উল্লেখ করে বলেন, আমি আজকে একজন খুবই সুখী মানুষ যে, বিশ্ববিদ্যালয়টি শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছে। ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘সততা ও পরিশ্রম দিয়ে তোমাদের এগিয়ে যেতে হবে। লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য থাকলে তোমরা সফল হবেই।’

বিওটির বিদায়ী চেয়ারম্যান আজিমউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘এই বিশ্ববিদ্যালয়ের যাত্রার সময়টা খুব সুখকর ছিল না। হাঁটি হাঁটি পা পা করে আজকের পর্যায়ে আসতে হয়েছে। তখন স্বপ্ন ছিল, বিশ্ববিদ্যালয় যখন করবই, তখন এক নম্বর এবং বিশ্বসেরাদের একটি হবে। বাংলাদেশে এখন এটি সেরা বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্বসেরার লক্ষ্য অর্জনের পথে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি।’

সমাপনী বক্তব্যে ভিসি অধ্যাপক ড. আতিকুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে শীর্ষস্থান অর্জন করা একটি অত্যন্ত মর্যাদার বিষয়। নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের প্রাইভেট সেক্টরের শিক্ষাক্ষেত্রে অগ্রগামী ভূমিকা পালন করছে। শিক্ষার্থীদের বিশ্বমানের গবেষণামূলক শিক্ষা প্রদান করে আসছে। আমাদের দেশের তরুণ শিক্ষার্থীদের বিশ্বমানের শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে তাদের দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তর করতে চাই, যারা এগিয়ে থাকবে বুদ্ধিবৃত্তিক দিক থেকে। বিশ্বাসী হবে সমতায় এবং দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে ছিল মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এই পর্বের শুরুতেই স্থানীয় ক্লাসিক্যাল ও আধুনিক এবং বিদেশি মিশ্র কম্পোজে নৃত্য পরিবেশন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা। এছাড়া তারা একটি ব্যান্ডসঙ্গীত পরিবেশন করেন। সবশেষে ছিল নগরবাউল ও জেমস ওপেন এয়ার কনসার্ট।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ঢাকা ট্রিবিউন ও বাংলা ট্রিবিউন একটি সমন্বিত জরিপের মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর একটি র‌্যাংকিং তালিকা প্রকাশ করে। ওই তালিকার শীর্ষস্থান দখল করেছে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×