বিভাগীয় সভায় জিএম কাদের

উড়ে এসে জুড়ে বসার সুযোগ জাতীয় পার্টিতে থাকবে না

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৫ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, জাতীয় পার্টিতে তৃণমূলকে মূল্যায়ন করে নেতৃত্ব নির্ধারণ করা হবে। মনোনয়ন ও পার্টির বিভিন্ন নেতৃত্ব তার অতীত ত্যাগ ও শ্রমের ওপর বিবেচনা করে মূল্যায়ন করা হবে। উড়ে এসে জুড়ে বসার সুযোগ জাতীয় পার্টিতে থাকবে না।

রাজধানীর এজিবি কলোনি কমিউনিটি সেন্টারে সোমবার জাতীয় পার্টি আয়োজিত ৪ দিনব্যাপী বিভাগীয় সাংগঠনিক সভার প্রথম দিনে ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগীয় সাংগঠনিক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, বিগত ২৯টি বছর অনেক ঘাত-প্রতিঘাতের মধ্যদিয়ে জাতীয় পার্টি টিকে রয়েছে। যার সম্পূর্ণ কৃতিত্ব হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের। আমি তার মতো বড় মাপের নেতা নই। আমি জাতীয় পার্টির খাদেম হিসেবে থাকতে চাই। তিনি বলেন, তৃণমূল পর্যায়ে নির্বাচনের মাধ্যমে কমিটি করতে হবে। ভাড়া করা লোক দিয়ে সংগঠন হবে না। সংগঠনে কোন্দল সৃষ্টিকারীকে জাতীয় পার্টিতে রাখা হবে না।

ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, জাতীয় পার্টি এখন একটি সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে আছে। সম্ভাবনাময় একটি রাজনৈতিক দল হিসেবে জাতীয় পার্টিকে প্রতিষ্ঠিত করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, নেতাকর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে আগামী দিনে জাতীয় পার্টি চলবে। আর এ জন্যই জাতীয় পার্টির আটটি বিভাগের নেতাকর্মীদের মতামত ও পরামর্শ শুনতে বিভাগীয় সাংগঠনিক সভার আয়োজন করা হয়েছে। নেতাকর্মীরা যেন মনে করে জাতীয় পার্টিতে তাদের মালিকানা আছে। শুধু কর্মসূচি বাস্তবায়ন করলেই হবে না। নেতৃত্ব নির্বাচন ও কর্মসূচি প্রণয়নে তৃণমূল নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা হবে। একটি সফল রাজনৈতিক দলের দৃষ্টান্ত হিসেবে জাতীয় পার্টিকে তৈরি করা হবে।

পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি বলেন, আমরা জোটবদ্ধভাবে নির্বাচন করেছি। নির্বাচন শেষ, নির্বাচনী জোটও শেষ। তিনি বলেন, আজ (সোমবার) বগুড়ায় নির্বাচন হচ্ছে, জাতীয় পার্টি লাঙ্গল নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। এখন আর কোনো জোট নেই। আগামীতে আমরা এককভাবে নির্বাচন করব। আর সে জন্যই দলকে আরও শক্তিশালী করতে আট বিভাগের নেতাদের মতামত গ্রহণ করতে এ আয়োজন।

রাঙ্গা বলেন, এখনই মূল্যায়ন করতে হবে, কেন আমরা একাদশ জাতীয় নির্বাচনে মাত্র ২২টি আসনে জয়ী হলাম। কোথায় আমাদের ভুল ও ব্যর্থতা, তা চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। তিনি বলেন, ১৯৯৬ সালে জাতীয় পার্টির সহায়তায় আওয়ামী লীগ ২১ বছর পর ক্ষমতার স্বাদ পেয়েছে। আগামীতে জাতীয় পার্টি যাতে এককভাবে সরকার গঠন করতে পারে সে জন্য জাতীয় পার্টিকে আরও শক্তিশালী করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের জেলা, মহানগর, উপজেলা ও পৌর কমিটির নেতারা বক্তৃতা করেন। উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আবুল কাশেম, সৈয়দ আবু হোসন বাবলা, অ্যাডভোকেট শেখ সিরাজুল ইসলাম, মুজিবুল হক চুন্নু, সৈয়দ আবদুল মান্নান, মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা, আজম খান প্রমুখ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×