অতিথি পাখিরা দলের জন্য অশনি সংকেত : তথ্যমন্ত্রী

চট্টগ্রামে গণতন্ত্র বন্দি দিবস পালন

  চট্টগ্রাম ব্যুরো ১৮ জুলাই ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, পর পর তৃতীয়বার দল ক্ষমতায় আসায় দলে অনেক অতিথি পাখি ঢুকেছে। তারা দলের জন্য অশনি সংকেত। এ সুযোগ সন্ধানীদের চিহ্নিত করতে হবে। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জীবন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা, গণতন্ত্র ও সার্বভৌমত্ব নিরাপদ রাখতে প্রত্যেক দলীয়-নেতাকর্মীকে সদা সতর্ক থাকতে হবে।

নগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে বুধবার দুপুরে অনুষ্ঠিত ‘গণতন্ত্র বন্দি’ দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. হাছান মাহমুদ এসব কথা বলেন। ‘স্বৈর শৃঙ্খল ভেঙে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠাই হোক দৃঢ় প্রত্যয়’- শিরোনামে গণতন্ত্র বন্দি দিবসের এ আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। তিনি বলেন, যে কোনো দুঃসময় মোকাবেলা করার জন্য দলের নেতা-কর্মীদের প্রস্তুত থাকতে হবে।

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত এ আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী। নগর আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নঈম উদ্দিন চৌধুরী, অ্যাডভোকেট সুনীল কুমার সরকার, অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, সিডিএ চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষ, শফিকুল ইসলাম ফারুক, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু প্রমুখ।

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপির সঙ্গে আওয়ামী লীগের রাজনীতির আদর্শগত পার্থক্য রয়েছে। আওয়ামী লীগ জনগণের উন্নয়নের জন্য ও দেশের জন্য ব্রত নিয়ে রাজনীতি করে। বিএনপি মনে করে রাজনীতি হচ্ছে হালুয়া-রুটির জন্য। জিয়াউর রহমান যখন ক্ষমতায় এসেছিলেন তখন ক্ষমতার হালুয়া-রুটি বিলিয়ে দল গঠন করেছিলেন। হালুয়া-রুটি খেয়ে তখন যারা বিএনপিতে যোগদান করেছিলেন তারা এখন বিএনপির বড় বড় নেতা। বিএনপির সঙ্গে আওয়ামী লীগের পার্থক্য সেখানেই।

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ আরও বলেন, ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে বন্দি করে মূলত দেশের গণতন্ত্রকে বন্দি করা হয়েছিল। দেশে যখন ন্যায়ের নামে অন্যায় করা হচ্ছিল তখন মানুষের অধিকার আদায়ে এসবের প্রতিবাদ করেছিলেন শেখ হাসিনা। তাই ১৬ জুলাই শেখ হাসিনার বন্দি দিবস নয়; গণতন্ত্রের বন্দি দিবস পালন করা হচ্ছে। সে সময়ের সেনাসমর্থিত সরকার ক্ষমতায় আসার পর তারা যদি সত্যিকারের ন্যায় প্রতিষ্ঠার জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করত তাহলে প্রথমে খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করার কথা। কিন্তু সেটি তারা করেনি। চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, দলীয় নেতাকর্মীদের দুঃসময়ের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর যারা দলে সম্পৃক্ত হয়েছেন আপনারা দলের দুঃসময়ে ছিলেন না। আজকে দলের সুদিন রয়েছে, এই সুদিন নাও থাকতে পারে। দলের দুঃসময়ের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। নেতাকর্মীদেরকে ত্যাগী মনোভাব রাখতে হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×