ডেঙ্গু প্রতিরোধে সরকারের কার্যকর উদ্যোগ নেই-বিএনপি

  যুগান্তর রিপোর্ট ২২ জুলাই ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

উদ্যোগ

ডেঙ্গু প্রতিরোধে সরকারের কাযর্কর কোনো উদ্যোগ নেই বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, এডিস মশা ছড়িয়ে পড়েছে ব্যাপকভাবে। এটা প্রতিরোধে ব্যাপক ‘ড্রাইভ’ প্রয়োজন। অথচ স্বাস্থ্য দফতর, জনস্বাস্থ্য অধিদফতরের কোনো কর্মকাণ্ড নেই।

মহানগরগুলোতে ডেঙ্গু পরিস্থিতির প্রসঙ্গ টেনে রিজভী বলেন, সিটি কর্পোরেশনগুলো কী করছে। ওদের শুধু ঠোঁটের মধ্যে, কথার মধ্যে উদ্যোগের কথা দেখবেন। কোথাও কোনো কিছু বাস্তবায়ন হচ্ছে না। এটার জন্য পর্যাপ্ত প্রতিরোধ ব্যবস্থা, এন্টি ড্রাগ কোনো কিছুই নেই। ডেঙ্গুতে মানুষ মারা যাচ্ছে, এটা মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র।

তিনি বলেন, এজন্য এ গণবিরোধী সরকারই দায়ী। কারণ গণবিরোধী সরকারের জনগণের প্রতি কোনো দায়িত্ব থাকে না। তাদের একমাত্র দায়িত্ব হচ্ছে কিভাবে জনগণের টাকা নিজেদের পকেটে ভরা যায়, সেটা তারা সুচারুভাবে পালন করছে। জনগণের স্বাস্থ্য, জনগণের অসুস্থতা, জনগণের সার্বিকভাবে কল্যাণ সেটা তো তারা চায় না। দেশকে বিরাণভূমিতে পরিণত করে তার ওপর রাজত্ব করাই এ সরকারের স্বপ্ন, সেটা বাস্তবায়ন করছেন তারা।

বিএনপির এ নেতা বলেন, আপনারা সব সময় দেখবেন উন্নয়ন কিংবা পদক্ষেপ এসব ক্ষমতাসীনদের ঠোঁটের মধ্যে আটকে থাকে, বাস্তবে এর কোনো পদক্ষেপ কেউ কখনও দেখিনি। আজকে যানজটে, রাস্তা-ঘাটের বেহাল অবস্থায় আপনি বলুন কোন দিক দিয়ে মানুষের স্বস্তি আছে? কোথাও স্বস্তি নেই।

দুদক চেয়ারম্যানের বক্তব্য অপশাসনেরই বিপজ্জনক বার্তা এমন মন্তব্য করে রুহুল কবির রিজভী বলেন, দেশে যখন দুর্নীতির মহামারী চলছে, তখন সরকারের রাঘববোয়ালদের দুর্নীতির ইনডেমনিটি প্রতিষ্ঠান দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দুর্নীতি করতে উৎসাহ দিয়ে বলেছেন, সরল বিশ্বাসে দুর্নীতি করলে অপরাধ হবে না।

আমরা মনে করি, দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স দেখানোর দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি নিজেই যদি ‘সরল দুর্নীতি’র অভিনব বাণী জনগণকে শোনান, তাহলে দুর্নীতির জোয়ারে দেশ তো ভেসে যাবেই। এখন থেকে ‘সরল বিশ্বাসে দুর্নীতি’র সাফল্যের মৌতাতে বুঁদ হয়ে থাকবে সরকারি কর্মকর্তারা।

রিজভী বলেন, বন্যায় ভাসছে দেশ। মানুষ ত্রাণের জন্য হাহাকার করছে। সর্বস্ব হারিয়ে পথে নেমেছে হাজার হাজার পরিবার। দেশে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। নতুন করে আরও পাঁচটি জেলায় পানি প্রবেশ করেছে। নিরাপদ আশ্রয় ও শুকনো খাবারের সন্ধানে ছুটছে বানভাসি মানুষ। কোথাও ত্রাণের গাড়ি কিংবা নৌকার সংবাদ শুনলেই ছুটছে বন্যার্তরা। কিন্তু সরকারের মন্ত্রী-এমপিরা দুর্গত মানুষের কোনো খোঁজখবর না নিয়ে ঢাকায় বসে শুধু গলাবাজি করে যাচ্ছেন।

বিএনপির পক্ষ থেকে যতটা সম্ভব বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়ানো হচ্ছে দাবি করে তিনি বলেন, এ লক্ষ্যে দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুকে আহ্বায়ক করে ২১ সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। তারা বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×