জঙ্গিবাদের নামে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  যুগান্তর রিপোর্ট, নবাবগঞ্জ ২৬ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি জঙ্গিবাদের নামে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চেয়েছিল। কিন্তু বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূল হয়েছে। তাই বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে একটি সম্ভাবনাময় দেশ হিসেবে গড়ে উঠছে। রোববার বিকালে ঢাকার নবাবগঞ্জ থানার নতুন ভবনের শুভ উদ্বোধন শেষে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সন্ত্রাস, জঙ্গি ও মাদকবিরোধী সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি এ কথা বলেন। এ সময় দোহার সার্কেল এএসপির কার্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনও করা হয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, পুলিশ যাতে অহেতুক কাউকে হয়রানি না করে সে বিষয়ে কঠোর নির্দেশনা আছে। সন্ত্রাসে মদদ ও মাদকের সঙ্গে কোনো পুলিশ জড়িত থাকলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিশেষ অতিথি প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেন, সরকার শিল্প খাতে বিনিয়োগের নিরাপদ ব্যবস্থা করেছে। দেশের মানুষ এখন নির্বিঘ্নে ব্যবসাবাণিজ্য করতে পারবে। এ ছাড়া প্রশাসনের সঙ্গে সহযোগিতা করলে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের অবসান হলে দেশ আরও এগিয়ে যাবে। দোহার নবাবগঞ্জের উন্নয়নের বিষয়েও তিনি জোর দেন।

পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, বঙ্গবন্ধুর সময় দেশে কোনো জঙ্গি ছিল না। পরে যারা দেশ শাসন করেছে তারাই সন্ত্রাস ও জঙ্গি সৃষ্টি করেছেন। জঙ্গি নির্মূলে পুলিশ সদস্যরা প্রাণ দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পুলিশ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সন্ত্রাস জঙ্গি দমনে কাজ করছে। এজন্য প্রয়োজন সবার সহযোগিতা।

এ সময় নবাবগঞ্জ উপজেলার শতাধিক মাদক ব্যবসায়ী স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে অঙ্গীকার করেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান ও প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের পক্ষে তাদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করে পুলিশ। তাদের পুনর্বাসনের জন্য নারী-পুরুষ মিলে ১৫ জনকে সেলাই মেশিন ও ভ্যানগাড়ি দেয়া হয়। ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার শাহ মিজান শাফিউর রহমানের সভাপতিত্বে আরও অতিথি ছিলেন ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান, ঢাকা জেলা প্রশাসক আবু সালেহ মো. ফেরদৌস খান, সাবেক এমপি খন্দকার হারুনুর রশিদ, ঢাকা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান, কমউিনিটি পুলিশের সভাপতি আক্কাস আলী মোল্লা। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দোহার উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, নবাবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু, আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল বাতেন মিয়া, নির্মল রঞ্জন গুহ, পনিরুজ্জামান তরুণ, আবুল হোসেন, মোয়াজ্জেম হোসেন, মিজানুর রহমান কিসমত, মো. জামাল উদ্দিন, আবদুল জব্বার, আলী আহসান খোকন শিকদার, মো. জালাল উদ্দিন, আনার কলি পুতুল, নবাবগঞ্জ থানার ওসি মোস্তফা কামাল, দোহার থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেনসহ আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×