গোপালপুরে জামায়াত শিবিরের ৩৬ নেতাকর্মী গ্রেফতার
jugantor
বঙ্গবন্ধু সেতুতে নাশকতার পরিকল্পনা
গোপালপুরে জামায়াত শিবিরের ৩৬ নেতাকর্মী গ্রেফতার

  গোপালপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি  

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

গোপালপুরে জামায়াত-শিবিরের ৩৬ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে যৌথ অভিযান পরিচালনা করে নলিনবাজার এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের জিহাদি বই ও সরকারবিরোধী লিফলেট পাওয়া যায়। বনভোজনের আড়ালে এরা বঙ্গবন্ধু সেতুতে নাশকতা চালানোর পরিকল্পনা করে বলে পুলিশ জানিয়েছে। একই দিন শেরপুরে পুলিশের হাতে আটক ১৭ শিবির নেতাকর্মীকে বুধবার কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

গ্রেফতার ৩৬ জনের বাড়ি গোপালপুরসহ দেশের বিভিন্ন জেলায়। প্রাথমিকভাবে পুলিশের কাছে নাশকতার পরিকল্পনার কথা স্বীকার করেছেন তারা। তাদের মধ্যে কয়েকজনের নামে গোপালপুরসহ দেশের বিভিন্ন থানায় নাশকতার মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। গোপালপুর থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, গ্রেফতার ব্যক্তিরা জামায়াত-শিবিরের সক্রিয় সদস্য। দেশের বৃহৎ স্থাপনা বঙ্গবন্ধু সেতুতে অন্তর্ঘাতমূলক নাশকতার পরিকল্পনায় একত্র হয়েছিল তারা।

শেরপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মঙ্গলবার শেরপুরে নাশকতার উদ্দেশ্যে গোপন বৈঠককালে ছাত্রশিবিরের ১৭ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ভোরে শেরপুর টাউনের দিঘারপাড় এলাকার বলবল বাজারের একটি পরিত্যক্ত গোডাউন থেকে তাদের আটক করা হয়। বুধবার আটক ব্যক্তিদের ফৌজদারি কার্যবিধির ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হলে তাদেরকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। আটক ব্যক্তিরা হচ্ছেন- আশিক বিল্লাহ, জাহিদ হাসান, মোজাহিদুল ইসলাম, আবু সামা কবির, আলমগীর, ওসেক বিল্লাহ, ওবায়দুল ইসলাম, কামাল মিয়া, রুহুল আমিন, বেলায়েত হোসেন ও বায়জিদ হোসেন, মো. নুরনবী, মোজাহিদুল ইসলাম জাহিদ, মামুন মিয়া, আরাফাত, মাহাদি হাসান ও সুন্দর আলী। এরা সবাই বিভিন্ন মাদ্রাসা ও কলেজের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে।

শেরপুর সদর থানার ওসি মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, স্থানীয় ইসমাইল হোসেন ওরফে হরফ আলীর পরিত্যক্ত গোডাউনে বৈঠক থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে প্রচুর পরিমাণ জিহাদি বই, লিফলেট, দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র ও লাঠিসোটা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে আদালতের অনুমতি নিয়ে সদর থানায় সন্ত্রাস দমন আইনে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

বঙ্গবন্ধু সেতুতে নাশকতার পরিকল্পনা

গোপালপুরে জামায়াত শিবিরের ৩৬ নেতাকর্মী গ্রেফতার

 গোপালপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি 
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

গোপালপুরে জামায়াত-শিবিরের ৩৬ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে যৌথ অভিযান পরিচালনা করে নলিনবাজার এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের জিহাদি বই ও সরকারবিরোধী লিফলেট পাওয়া যায়। বনভোজনের আড়ালে এরা বঙ্গবন্ধু সেতুতে নাশকতা চালানোর পরিকল্পনা করে বলে পুলিশ জানিয়েছে। একই দিন শেরপুরে পুলিশের হাতে আটক ১৭ শিবির নেতাকর্মীকে বুধবার কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

গ্রেফতার ৩৬ জনের বাড়ি গোপালপুরসহ দেশের বিভিন্ন জেলায়। প্রাথমিকভাবে পুলিশের কাছে নাশকতার পরিকল্পনার কথা স্বীকার করেছেন তারা। তাদের মধ্যে কয়েকজনের নামে গোপালপুরসহ দেশের বিভিন্ন থানায় নাশকতার মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। গোপালপুর থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, গ্রেফতার ব্যক্তিরা জামায়াত-শিবিরের সক্রিয় সদস্য। দেশের বৃহৎ স্থাপনা বঙ্গবন্ধু সেতুতে অন্তর্ঘাতমূলক নাশকতার পরিকল্পনায় একত্র হয়েছিল তারা।

শেরপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মঙ্গলবার শেরপুরে নাশকতার উদ্দেশ্যে গোপন বৈঠককালে ছাত্রশিবিরের ১৭ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ভোরে শেরপুর টাউনের দিঘারপাড় এলাকার বলবল বাজারের একটি পরিত্যক্ত গোডাউন থেকে তাদের আটক করা হয়। বুধবার আটক ব্যক্তিদের ফৌজদারি কার্যবিধির ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হলে তাদেরকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। আটক ব্যক্তিরা হচ্ছেন- আশিক বিল্লাহ, জাহিদ হাসান, মোজাহিদুল ইসলাম, আবু সামা কবির, আলমগীর, ওসেক বিল্লাহ, ওবায়দুল ইসলাম, কামাল মিয়া, রুহুল আমিন, বেলায়েত হোসেন ও বায়জিদ হোসেন, মো. নুরনবী, মোজাহিদুল ইসলাম জাহিদ, মামুন মিয়া, আরাফাত, মাহাদি হাসান ও সুন্দর আলী। এরা সবাই বিভিন্ন মাদ্রাসা ও কলেজের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে।

শেরপুর সদর থানার ওসি মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, স্থানীয় ইসমাইল হোসেন ওরফে হরফ আলীর পরিত্যক্ত গোডাউনে বৈঠক থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে প্রচুর পরিমাণ জিহাদি বই, লিফলেট, দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র ও লাঠিসোটা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে আদালতের অনুমতি নিয়ে সদর থানায় সন্ত্রাস দমন আইনে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।