প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বাবার কবরের পাশে চিরনিদ্রায় ঝন্টু

  রংপুর ব্যুরো ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় রংপুর সিটি কর্পোরেশনের (রসিক) সাবেক মেয়র মুক্তিযোদ্ধা সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টুকে রংপুরের নূরপুর কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। তাকে একনজর দেখার জন্য পুলিশ লাইন্স মাঠে সোমবার সকাল থেকে মানুষের ঢল নামে। একই মাঠে বিকাল সাড়ে ৫টায় দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় তাকে নূরপুর কবরস্থানে তার বাবার কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়। তার আগে রংপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে জেলা পুলিশের একটি চৌকস দল এই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সম্মাননা ‘গার্ড অব অনার’ প্রদান করে।

মরদেহ রংপুরে নিয়ে আসার আগে সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মরহুমের কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে বেলা ১২টায় ঝন্টুর মরদেহ রংপুর নগরীর সেনানিবাস মাঠে নামানো হয়। নেয়া হয় গুপ্তপাড়ার বাসায়। বাদ আসর রংপুর পুলিশ লাইন্স মাঠে আরেক দফা জানাজা শেষে নূরপুর কবরস্থানে বাবার কবরের পাশে দাফন করা হয় ঝন্টুকে।

শোকার্ত হাজারও মানুষের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রথম মেয়র, সাবেক সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ ঝন্টুর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় রংপুর মহানগরী, রংপুর বিভাগসহ সারা দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ শরিক হন। জানাজা শুরুর আগে পুলিশ লাইন্স মাঠ যেন জনসমুদ্রে পরিণত হয়। জানাজায় ইমামতি করেন গুপ্তপাড়া বাইতুল শাহজাদা জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মাহমুদ উল্লাহ। জানাজার আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন মরহুমের একমাত্র ছেলে রিয়াজ আহমেদ হিমন। তিনি উপস্থিত জনতার উদ্দেশে তার পরিবারের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি বলেন, রংপুরের গণমানুষের নেতা সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু অসুস্থ হওয়ার পর থেকে রংপুরবাসীসহ সারা দেশের মানুষ তার প্রতি যে অকৃত্রিম ভালোবাসা দেখিয়েছেন, তাতে তার পরিবার দেশবাসীর কাছে কৃতজ্ঞ। ঝন্টু একাধারে উপজেলা চেয়ারম্যান, পৌরসভা চেয়ারম্যান, সংসদ সদস্য ও রংপুর সিটি মেয়র ছিলেন। জীবদ্দশায় কোনো ভুল করে থাকলে হিমন তার বাবার পক্ষ থেকে সবার কাছে ক্ষমা চান। জানাজায় তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তব্য দেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ওয়াহেদুজ্জমান, পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান পিপিএম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মোসাদ্দেক হোসেন বাবলু, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম রাজু, মহানগর সভাপতি সফিয়ার রহমান সফি, মহানগর বিএনপির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেন ও ছোটভাই আবু আজগার পিন্টু। বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াসির, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র ও কাউন্সিলর আবুল কাশেম প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রংপুর সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টুর মৃত্যুতে গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। তিনি সোমবার সকালে জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় মরহুমের কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। ঝন্টু একজন সাবেক সংসদ সদস্যও ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী ঝন্টুর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধার নিদর্শন হিসেবে পুষ্পস্তবক অর্পণের পর সেখানে কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। এরপর তিনি দলের সভাপতি হিসেবে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে দলের পক্ষ থেকে আরেকবার মরহুমের কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ এএসএম ফিরোজ, পাট ও বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, দলের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ এবং দলের হুইপ ও সংসদ সদস্যরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.