জীবদ্দশায় খোকাকে দেশে ঢুকতে দেয়নি সরকার : ফখরুল
jugantor
জীবদ্দশায় খোকাকে দেশে ঢুকতে দেয়নি সরকার : ফখরুল

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০৮ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ৭ নভেম্বর স্মরণে ‘বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ পালন করেছে বিএনপি। দিবসটি উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকালে দলটির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন নেতারা।

তারা সেখানে মোনাজাতেও অংশ নেন। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের বলেন, সরকার সকাল-বিকাল মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বললেও সাদেক হোসেন খোকার মতো একজন মুক্তিযোদ্ধাকে জীবিত অবস্থায় দেশে ঢুকতে দেয়নি?। এ রকম ঘটনার যেন আর পুনরাবৃত্তি না ঘটে।

৭ নভেম্বরের বিপ্লবের চেতনায় জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা আজকে শপথ নিয়েছি তাকে মুক্ত করার। শপথ নিয়েছি দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বকে সমুন্নত করে গণতন্ত্রকে মুক্ত করব। আমরা বিশ্বাস করি, জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে সত্যিকার অর্থে জনগণের পক্ষের সরকার গঠন করতে সক্ষম হব। জোর করে আওয়ামী লীগ ক্ষমতা দখল করে রেখেছে দাবি করে তিনি বলেন, এ নতজানু সরকার বাংলাদেশকে একটি অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

শ্রদ্ধা নিবেদনকালে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড. আবদুল মঈন খান, সেলিমা রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, শামসুজ্জামান দুদু, মোহাম্মদ শাহজাহান, ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, আহমেদ আযম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, কেন্দ্রীয় নেতা আমিনুল হক, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, মহিলা দলের হেলেন জেরিন খান, ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আসফাক, ছাত্রদল সভাপতি ফজলুর রহমান খোকনসহ বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

দিবসটি উপলক্ষে ভোরে কেন্দ্রীয়সহ দেশের সব কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের পক্ষ থেকে প্রকাশ করা হয়েছে বিশেষ পোস্টার। সারা দেশেও যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালন করেন নেতাকর্মীরা। দিবসটি উপলক্ষে কেন্দ্রীয়ভাবে আজ সমাবেশ করবে বিএনপি। বেলা ৩টায় মহানগর নাট্যমঞ্চে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

জীবদ্দশায় খোকাকে দেশে ঢুকতে দেয়নি সরকার : ফখরুল

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০৮ নভেম্বর ২০১৯, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ৭ নভেম্বর স্মরণে ‘বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ পালন করেছে বিএনপি। দিবসটি উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকালে দলটির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন নেতারা।

তারা সেখানে মোনাজাতেও অংশ নেন। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের বলেন, সরকার সকাল-বিকাল মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বললেও সাদেক হোসেন খোকার মতো একজন মুক্তিযোদ্ধাকে জীবিত অবস্থায় দেশে ঢুকতে দেয়নি?। এ রকম ঘটনার যেন আর পুনরাবৃত্তি না ঘটে।

৭ নভেম্বরের বিপ্লবের চেতনায় জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা আজকে শপথ নিয়েছি তাকে মুক্ত করার। শপথ নিয়েছি দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বকে সমুন্নত করে গণতন্ত্রকে মুক্ত করব। আমরা বিশ্বাস করি, জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে সত্যিকার অর্থে জনগণের পক্ষের সরকার গঠন করতে সক্ষম হব। জোর করে আওয়ামী লীগ ক্ষমতা দখল করে রেখেছে দাবি করে তিনি বলেন, এ নতজানু সরকার বাংলাদেশকে একটি অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

শ্রদ্ধা নিবেদনকালে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড. আবদুল মঈন খান, সেলিমা রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, শামসুজ্জামান দুদু, মোহাম্মদ শাহজাহান, ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, আহমেদ আযম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, কেন্দ্রীয় নেতা আমিনুল হক, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, মহিলা দলের হেলেন জেরিন খান, ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আসফাক, ছাত্রদল সভাপতি ফজলুর রহমান খোকনসহ বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

দিবসটি উপলক্ষে ভোরে কেন্দ্রীয়সহ দেশের সব কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের পক্ষ থেকে প্রকাশ করা হয়েছে বিশেষ পোস্টার। সারা দেশেও যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালন করেন নেতাকর্মীরা। দিবসটি উপলক্ষে কেন্দ্রীয়ভাবে আজ সমাবেশ করবে বিএনপি। বেলা ৩টায় মহানগর নাট্যমঞ্চে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।