গণমাধ্যমকর্মীদের পর্যাপ্ত স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রী দিন

- প্রতিষ্ঠান মালিকদের তথ্যমন্ত্রী

  সাংস্কৃতিক রিপোর্টার ১৩ মে ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

করোনার সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে গণমাধ্যম কর্মীদের কাজে পাঠানোর আগ পর্যাপ্ত স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রী দেয়ার জন্য প্রতিষ্ঠান মালিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন-ডিইউজে সদস্যদের মাঝে স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রী বিতরণের উদ্বোধনী সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ আহবান জানান। ডিইউজে সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপুর সঞ্চালনায় সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রেস ক্লাব সভাপতি সাইফুল আলম, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন-বিএফইউজে সভাপতি মোল্লা জালাল, মহাসচিব শাবান মাহমুদ, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি ওমর ফারুক, বিএফইউজের সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, সাংবাদিক নেতা জাকারিয়া কাজল, আবদুল মজিদ, খায়রুল আলম প্রমুখ। এ সময় কয়েকজন ডিইউজে সদস্যের হাতে স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রী হস্তান্তর করেন তথ্যমন্ত্রী।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সাংবাদিকরা করোনা মোকাবেলায় সম্মুখযোদ্ধা। প্রতিটি গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান প্রধানদের প্রতি আমার বিনীত অনুরোধ, গণমাধ্যমকর্মীদের পর্যাপ্ত সুরক্ষাসামগ্রী দিয়ে তারপর কাজে পাঠান। তা না হলে করোনায় আক্রান্তের সুযোগ থাকে। মন্ত্রী এ সময় করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে চিকিৎসক-নার্স, পুলিশ, সেনাবাহিনী, গণমাধ্যমকর্মী ও দায়িত্ব পালনরত সবাইকে অভিনন্দন জানান ও সম্প্রতি প্রয়াত তিন সাংবাদিকের রুহের মাগফিরাত কামনা ও করোনায় আক্রান্ত প্রায় ১০০ সাংবাদিকের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন। তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, গণমাধ্যমকর্মীদের জন্য বিএসএমএমইউতে করোনা টেস্টে ‘ফাস্ট ট্র্যাক’ বা অগ্রাধিকার সুবিধার জন্য তিনি যে অনুরোধ করেছিলেন, বিএসএমএমইউ তা কার্যকর করেছে। গণমাধ্যমকর্মীদের করোনা চিকিৎসায় শয্যা সংরক্ষণে সাংবাদিকদের অনুরোধে অন্য একটি হাসপাতালের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানান মন্ত্রী ড. হাছান। জাতীয় প্রেস ক্লাব সভাপতি সাইফুল আলম বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে সংবাদকর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পেশাগত দায়িত্ব পালন করছেন। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রায় শতাধিক কর্মী ইতোমধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

অনেকে করোনা ঝুঁকির মধ্যেও মাঠে কাজ করছেন। তাদের পর্যাপ্ত স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রী দিতে হবে। এই পরিস্থিতিতে বেকার ও চাকরিচ্যুত সাংবাদিকদের জন্য প্রণোদনার ব্যবস্থা করতে হবে সরকারকে। সাংবাদিকদের বেতন-ভাতা নিয়মিতভাবে পরিশোধ করতে সংবাদ মাধ্যমের মালিকদের প্রতি আহ্বান জানান এই সাংবাদিক নেতা।

এই আপৎকালীন সময়ে সরকার ও সংবাদমাধ্যমের মালিকদের কাছে সাংবাদিকদের জীবন ও জীবিকার নিশ্চিয়তা চেয়ে সাংবাদিক নেতা মোল্লা জালাল বলেন, আমরা আশা করি ঈদের আগেই সংবাদকর্মীদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর যে আর্থিক সহায়তা দেয়ার কথা রয়েছে সে বিষয়ে তথ্য মন্ত্রণালয় একটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে।

শাবান মাহমুদ বলেন, ঈদের আগেই সরকারের দেয়া অনুদান সাংবাদিক ইউনিয়নের মাধ্যমে বিতরণ করতে হবে।

সভাপতির বক্তৃতায় কুদ্দুস আফ্রাদ বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে কিছু সংবাদমাধ্যমে ২-৩ মাসের বেতন বকেয়া পড়েছে। কোনো কোনো প্রতিষ্ঠানে পুরো বেতনের নামে অর্ধেক বেতন দিচ্ছে। এ ব্যাপারে তথ্য মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপ চান এই নেতা।

করোনাভাইরাসের জন্যও সরকার দায়ী, বলতে পারে বিএনপি-তথ্যমন্ত্রী : ডিইউজে সভার পর সাংবাদিকরা ‘করোনায় প্রত্যেক মৃত্যুর জন্য সরকার দায়ী’, বিএনপির এই মন্তব্যের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি অপেক্ষায় আছি, বিএনপি নেতারা কখন বলবেন যে, করোনাভাইরাসের জন্যও সরকার দায়ী!’

আরও খবর
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত