করোনা উপসর্গ নিয়ে পাঁচজনের মৃত্যু

হাসপাতাল থেকে পালানোর পথে মারা গেলেন এক নারী

  যুগান্তর ডেস্ক ১৫ মে ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে দেশের চার জেলায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ঝিনাইদহে দু’জন এবং ফরিদপুরের বোয়ালমারী, বাগেরহাটের কচুয়া ও চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে একজন করে মারা যান। যুগান্তর প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

ঝিনাইদহ ও কালীগঞ্জ : ঝিনাইদহে করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে একজন কালীগঞ্জ উপজেলার ঘোপপাড়ার এক ব্যক্তি ঢাকায় সিকউরিটি গার্ড হিসেবে কাজ করতেন। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ঢাকাতে থাকা অবস্থায় প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট ও জ্বরে ভুগছিলেন। বুধবার রাত ৩টায় ঢাকা থেকে এসে কালীগঞ্জ উপজেলার কাশিপুর গ্রামে শ্বশুরবাড়িতে ওঠেন তিনি। বৃহস্পতিবার ভোরে মারা যান তিনি। মারা যাওয়া অপরজন শৈলকুপা উপজেলার কেষ্টপুরের এক গৃহবধূ। শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. রাশেদ আল মামুন এ খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বুধবার রাত ৯টার দিকে ওই নারী করোনা উপসর্গ নিয়ে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। বৃহস্পতিবার সকালের দিকে তার নমুনা নেয়ার কথা ছিল। তার আগেই সকাল সাড়ে ৯টার দিকে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে আমতলা এলাকায় মারা যান তিনি।

বোয়ালমারী (ফরিদপুর) : উপজেলার শেখর ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের এক ব্যক্তির লাশ করোনা সন্দেহে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় ও স্থানীয় পুলিশ এবং উপজেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে পারিবারিক কবরস্থানে বৃহস্পতিবার দাফন করা হয়। ওই ব্যক্তি ঢাকার মহাখালীতে নিরাপত্তাকর্মী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বুধবার রাত সাড়ে ৩টায় সোহরাওয়ার্দী হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. খালিদুর রহমান জানান, ওই ব্যক্তির পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হবে।

বাগেরহাট : ঢাকায় গৃহপরিচালিকা হিসেবে কাজ করা এক নারী করোনার উপসর্গ নিয়ে বৃহস্পতিবার ভোরে বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার উত্তর মাধপকাঠি গ্রামে মারা গেছেন। করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে লাশ দাফন করে বাড়িটি লকডাউন করেছে প্রশাসন। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) : ফরিদগঞ্জে করোনা উপসর্গ নিয়ে ষাটোর্ধ্ব এক ব্যক্তি মারা গেছেন। উপজেলা সদরের কাছিয়াড়া গ্রামের এই ব্যক্তি সপরিবারে ঢাকা থাকেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি অসুস্থ ছিলেন। সম্প্রতি তার অসুস্থতার পরিমাণ বেড়ে যাওয়ায় বুধবার রাতে তার পরিবারের লোকজন তার গ্রামের বাড়ি ফরিদগঞ্জে চলে আসে। পরে বৃহস্পতিবার ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত