ন্যাশনাল ব্যাংকের টাকা চুরি

গ্রেফতার চারজনের কাছ থেকে ৬০ লাখ টাকা উদ্ধার

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৩ জুন ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রাজধানীর কোতোয়ালি থানার ইসলামপুর ন্যাশনাল ব্যাংকের শাখার সামনে থেকে ৮০ লাখ টাকা চুরির ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। গ্রেফতার চারজন হল হান্নান ওরফে ব্রিফকেস হান্নান ওরফে রবিন ওরফে রফিকুল ইসলাম, মোস্তফা, বাবুল মিয়া ও মোছা. পারভীন। তাদের কাছ থেকে চুরির ৬০ লাখ টাকা এবং দু’টি বিদেশি পিস্তল উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। চক্রের মূল হোতা হান্নানের বিরুদ্ধে ৩০টির বেশি মামলা রয়েছে। মঙ্গলবার ডিবি কার্যালয়ে গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।

গোয়েন্দা কর্মকর্তা মাহবুব আলম জানান, ১০ মে রাজধানীর পুরান ঢাকায় বিভিন্ন শাখা থেকে তোলা ন্যাশনাল ব্যাংকের ৮০ লাখ টাকার একটি বস্তা গাড়ি থেকে খোয়া যায়। দিনেদুপুরে ঘটে যাওয়া ওই চাঞ্চল্যকর ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা করে ন্যাশনাল ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। মামলাটি কোতোয়ালি থানা পুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দা পুলিশের কয়েকটি টিম ছায়া তদন্ত শুরু করে। তদন্তের এক পর্যায়ে বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে সোমবার দিবাগত রাতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে চারজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে ৬০ লাখ টাকা উদ্ধার করা হলেও ২০ লাখ টাকা তারা এরইমধ্যে খরচ করে ফেলেছে বলে ডিবিকে জানিয়েছে। মাহবুব আল জানান, তাদের মঙ্গলবার আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন জানানো হয়। রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে আদালত তাদের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ডে বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদ করলে তাদের কাছ থেকে আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যেতে পারে। গোয়েন্দা দক্ষিণ বিভাগের কোতোয়ালি জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার সাইফুর রহমান আজাদ বলেন, গ্রেফতার হান্নান ও তার সহযোগীরা মূলত টানা দলের সদস্য।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত