মনপুরায় পূর্ণিমার জোয়ারে প্লাবিত নিম্নাঞ্চল

মেঘনায় পানি বিপদসীমার ৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত * হাজারও মানুষ পানিবন্দি

  মনপুরা (ভোলা) প্রতিনিধি ০৫ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ভোলার বিচ্ছিন্ন উপকূল মনপুরার নিম্নাঞ্চল পূর্ণিমার প্রভাবে মেঘনার পানি বৃদ্ধি পেয়ে নিম্নাঞ্চল ৩-৪ ফুট জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হয়েছে। এদিকে মেঘনার পানি বিপদসীমার ৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানিয়েছে পাউবো।

ফলে উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের দাসেরহাট গ্রাম ও সোনারচর গ্রাম এবং মনপুরা ইউনিয়নের বেড়ির বাইরে পূর্ব আন্দিরপাড় গ্রাম জোয়ারে প্লাবিত হয়। এছাড়াও মনপুরা উপকূল থেকে বিচ্ছিন্ন বেড়িবাঁধহীন চরনিজাম ও কলাতলীর চরে ৩-৪ ফুট পানিতে প্লাবিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। রাতে ও দিনে দু’বেলা জোয়ারে প্লাবিত হওয়ায় ওই সব এলাকায় ৩ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, শনিবার সকাল ১০টায় উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের দাসেরহাট ও সোনারচর এলাকার নিম্নাঞ্চল ৩-৪ ফুট এলাকা প্লাবিত হয়েছে। দাসেরহাট জামে মসজিদ ৪ ফুট পানিতে ডুবে রয়েছে। এখানকার গৃহিণীদের ঘরের সামনে প্রবাহিত জোয়ারের পানিতে থালা-বাসন ধুতে দেখা গেছে। এছাড়া উপজেলার শহর রক্ষা প্রকল্পের ওপর দিয়ে জোয়ারের পানি প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়াও মনপুরা ইউনিয়নের বেড়ির বাইরে থাকা পূর্ব আন্দিরপাড় গ্রাম ৪ ফুট পানিতে প্লাবিত হয়েছে। হাজিরহাট ইউনিয়নের দাসেরহাট এলাকার ফাতেমা, রহিম, বাচ্চু ও মনপুরা ইউনিয়নের পূর্ব আন্দিরপাড় এলাকার কামাল, নাহিদ, শাহজাহানসহ অনেকে জানান, শুক্রবারের চেয়ে শনিবার পানি বেশি প্রবাহিত হয়েছে। দিনের চেয়ে রাতে জোয়ার বেশি হয়। তখন ঘরের মধ্যে পানি চলে আসে।

এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ড পাউবো ডিভিশন ২-এর উপসহকারী প্রকৌশলী আবদুর রহমান যুগান্তরকে জানান, মনপুরায় মেঘনার পানি বিপদসীমার ৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বেড়ির বাইরে ও বিচ্ছিন্ন কলাতলীর চর ও চরনিজাম ৩-৪ ফুট জোয়ারে প্লাবিত হয়েছে।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত