যুব মহিলা লীগ নেত্রী পলাতক

টঙ্গীতে মুক্তিপণের দাবিতে অপহৃতদের বৈদ্যুতিক শক

উদ্ধার ৩, গ্রেফতার ১

  যুগান্তর রিপোর্ট, টঙ্গী ১১ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

টঙ্গীর দত্তপাড়া লেদু মোল্লা রোড এলাকায় ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণের দাবিতে ৩ যুবককে ৮ দিন আটক রেখে অমানুষিক নির্যাতন করা হয়েছে। তাদেরকে অপহরণকারীরা

বৈদ্যুতিক শক দেয়। বৃহস্পতিবার রাতে অপহৃত ৩ যুবককে উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত মুন্নাকে (৩২) গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার মূল হোতা টঙ্গীর ‘পাপিয়া’খ্যাত যুব মহিলা লীগের নেত্রী শিল্পী আক্তার (৩৫) ও কথিত সাংবাদিক শাওন সরকার পলাতক রয়েছে। এ ঘটনায় টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি মামলা হয়েছে।

জানা যায়, ৩-৪ মাস আগে ঘটনার মূল আসামি শিল্পী আক্তারের বাসায় স্বর্ণ চুরির মিথ্যে অভিযোগে ২ জুলাই জালাল (৩৫), খোকন (৩৫) ও রনি (২৬) নামে ৩ যুবককে তাদের বাসা থেকে তুলে নিয়ে শাওন সরকারের বউবাজারের গোপন আস্তানায় নেয়া হয়। সেখানে একদিন আটকে রেখে বেধড়ক পিটিয়ে তাদের সঙ্গে থাকা নগদ টাকা ও মুঠোফোন নেয় অপহরণকারীরা। হুমকি দিয়ে জালালের বাবার কাছ থেকে নগদ ১০ হাজার টাকা আদায় করে এ চক্রের সদস্যরা। এ সময় তারা অপহৃতদের অমানুষিক নির্যাতনের পাশাপাশি বৈদ্যুতিক শকও দেয়। অপহৃতদের ওই স্থান থেকে সরিয়ে শিল্পী আক্তারের নিজ বাড়ি দত্তপাড়ায় নেয়া হয়। পরে তাদের স্বজনদের কাছে আরও ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা।

ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি পুলিশকে জানায়। পরে টঙ্গী পূর্ব থানার এসআই শাহিন মোল্লার নেতৃত্বে একদল পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে ওই তিনজনকে উদ্ধার করে। এ সময় অপহরণকারী মুন্নাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘটনার মূল হোতা শিল্পী আক্তার ও শাওন সরকার পালিয়ে যায়। অপহৃত খোকনের স্ত্রী নিলুফা বেগম বাদী হয়ে শুক্রবার টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি অপহরণ মামলা করেন। গ্রেফতার ব্যক্তিকে আদালতের মাধ্যমে গাজীপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

টঙ্গী পূর্ব থানার (ওসি) মুহাম্মদ আমিনুল বলেন, জড়িত অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। শিগগির তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত