গাজীপুরে ব্যক্তিগত আক্রোশে অসংখ্য বন মামলা

আসামি নানা পেশার মানুষ

  গাজীপুর প্রতিনিধি ১১ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ব্যক্তিগত আক্রোশ মেটাতে এবং নিজ এলাকার জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে গাজীপুরে বিভিন্ন লোকের বিরুদ্ধে একাধিক বন মামলা দায়ের করা হয়েছে। এসব মামলার বাদী ফরেস্টার মো. হারুন-অর-রশিদ খান। বর্তমানে তিনি ঢাকা বন বিভাগের অধীন গাজীপুরের রাজেন্দ্রপুর রেঞ্জ কর্মকর্তার দায়িত্বে আছেন। ফরেস্টার হারুনের বন মামলার শিকার হয়েছেন আইনজীবী, স্কুল শিক্ষক, গার্মেন্ট কর্মকর্তা, হতদরিদ্র ভূমিহীনসহ নানা পেশার নিরীহ মানুষ।

টাঙ্গাইল জেলার ধনবাড়ী থানার পটল গ্রামের প্রয়াত জয়েন উদ্দিন সরকারের ছেলে আবদুল মান্নান কায়সার। পেশায় তিনি ঢাকা জজ কোর্টের আইনজীবী। কায়সার অভিযোগ করেন, গত এক বছর আগে তিনি তার ছোট ভাই আবদুুল মালেক ও লেবু মিয়াসহ নিজ গ্রামে ৩০ শতাংশ জমি ক্রয় করেন। ওই জমির লাগোয়া ফরেস্টার হারুন খানের জমি। জমি ক্রয় করার পর থেকে হারুন খানের সঙ্গে ওই জমির সীমানা নিয়ে বিরোধ শুরু হয়। এরপর তিনি টাঙ্গাইল ধনবাড়ী থানায় বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার প্রধান আসামি ফরেস্টার হারুন খান। আবদুল মান্নান কায়সার বলেন, থানায় মামলা দায়েরের কিছুদিন পর ফরেস্টার হারুন খান তাদের তিন ভাইয়ের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে গাজীপুর বন আদালতে একই দিনে দুটি বন মামলা দায়ের করেন (পিওআর মামলা নম্বর-৮৪/১৯ ও ৮৫/১৯)। আবদুল মান্নান কায়সারের অভিযোগ ফরেস্টার হারুন-অর-রশিদ খান বন আইনের অপপ্রয়োগ করেছেন।

এছাড়া জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ী থানার নলদাইর এলাকার মৃত হোসেন আলী শেখের পুত্র জামাল উদ্দিন শেখ। তিনি অভিযোগ করে বলেন, ওই এলাকার স্থানীয় অধিবাসী ফরেস্টার হারুনের সঙ্গে তার জমি সংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে। ওই বিরোধের জের ধরে ফরেস্টার হারুন তার বিরুদ্ধে গাজীপুর বন আদালতে গত বছর একটি বন মামলা (পিওআর মামলা নং-৮৫/২০১৯) দায়ের করেন। ওই মামলায় তাকে এক মাস কারাভোগ করতে হয়। অথচ তার বিরুদ্ধে বন মামলা দায়েরের পূর্বে তিনি কখনও গাজীপুরে যাননি।

গাজীপুর রাজেন্দ্রপুর রেঞ্জের আউলিয়াটেক এলাকার স্থানীয় অধিবাসী আলী আকবর শেখের পুত্র আলী হায়দার। রেঞ্জটির রাজেন্দ্রপুর পূর্ব বিটে বাঁশ বাগানের প্লট নিয়ে রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. হারুন-অর-রশিদ খানের সঙ্গে আলী হায়দারের বিরোধ।

আলী হায়দার যুগান্তরকে জানান, রেঞ্জ কর্মকর্তা হারুন খান দীর্ঘদিন তার বাঁশ বাগানের প্লটটি বাতিলের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। কিন্তু ব্যর্থ হলেও থেমে নেই। ওই রেঞ্জের পূর্ব বিট কর্মকর্তা মো. আইয়ুব আলী শেখকে বাদী করে তার বিরুদ্ধে গাজীপুর বন আদালতে দুটি বন মামলা দায়ের করিয়েছেন হারুন খান।

রাজেন্দ্রপুর রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. হারুন-অর-রশিদ খান যুগান্তরকে বলেন, আমার সঙ্গে মান্নান কায়সার, লেবু মিয়াদের ব্যক্তিগত কোনো আক্রোশ নেই। তবে আমার চাচাতো ভাইদের জমি তারা জোর করে দখল করে খায়। এসব বিষয় নিয়ে তারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। তিনি কারও বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত আক্রোশে মামলা দেননি। তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সত্য নয়।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত