করোনায় জাতীয় পার্টি নেতা খালেদ আখতারের মৃত্যু
jugantor
করোনায় জাতীয় পার্টি নেতা খালেদ আখতারের মৃত্যু
জিএম কাদেরের শোক

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১২ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জাতীয় পার্টির সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ট্রাস্টের সাবেক চেয়ারম্যান মেজর (অব.) খালেদ আখতার মারা গেছেন। শনিবার দুপুরে দলের চেয়ারম্যানের ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি খন্দকার দেলোয়ার জালালী গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

খন্দকার জালালী বলেন, শনিবার সকালে ঢাকায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। গত কয়েক দিন তাকে লাইফ সাপোর্টে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। এক মাস আগে খালেদ আখতার ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন। এরপর তার কোভিড-১৯ পজিটিভ আসে। ১৯৮৬ সালে খালেদ আখতার প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এরশাদের ব্যক্তিগত সচিব হিসেবে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। এরপর তাকে কোষাধ্যক্ষ ও প্রেসিডিয়াম সদস্য করা হয়। এরশাদের মৃত্যুর পর দলের নবম জাতীয় কাউন্সিলে তাকে প্রেসিডিয়াম সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। জীবদ্দশায় এরশাদ তার সব সম্পত্তি ট্রাস্টের অধীনে দান করেন। সেই ট্রাস্টের চেয়ারম্যান করা হয়েছিল খালেদ আখতারকে। তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের এমপি। শনিবার এক শোক বার্তায় প্রয়াত খালেদ আখতারের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করার পাশাপাশি শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান তিনি। এছাড়া মেজর (অব.) খালেদ আখতারের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি।

করোনায় জাতীয় পার্টি নেতা খালেদ আখতারের মৃত্যু

জিএম কাদেরের শোক
 যুগান্তর রিপোর্ট 
১২ জুলাই ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জাতীয় পার্টির সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ট্রাস্টের সাবেক চেয়ারম্যান মেজর (অব.) খালেদ আখতার মারা গেছেন। শনিবার দুপুরে দলের চেয়ারম্যানের ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি খন্দকার দেলোয়ার জালালী গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

খন্দকার জালালী বলেন, শনিবার সকালে ঢাকায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। গত কয়েক দিন তাকে লাইফ সাপোর্টে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। এক মাস আগে খালেদ আখতার ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন। এরপর তার কোভিড-১৯ পজিটিভ আসে। ১৯৮৬ সালে খালেদ আখতার প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এরশাদের ব্যক্তিগত সচিব হিসেবে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। এরপর তাকে কোষাধ্যক্ষ ও প্রেসিডিয়াম সদস্য করা হয়। এরশাদের মৃত্যুর পর দলের নবম জাতীয় কাউন্সিলে তাকে প্রেসিডিয়াম সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। জীবদ্দশায় এরশাদ তার সব সম্পত্তি ট্রাস্টের অধীনে দান করেন। সেই ট্রাস্টের চেয়ারম্যান করা হয়েছিল খালেদ আখতারকে। তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের এমপি। শনিবার এক শোক বার্তায় প্রয়াত খালেদ আখতারের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করার পাশাপাশি শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান তিনি। এছাড়া মেজর (অব.) খালেদ আখতারের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি।