দৌলতদিয়া ঘাটে পশুবাহী ট্রাকের চাপ বেড়েছে
jugantor
দৌলতদিয়া ঘাটে পশুবাহী ট্রাকের চাপ বেড়েছে

  গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি  

২৫ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আসন্ন কোরবানির ঈদ উপলক্ষে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলা থেকে ঢাকাসহ সারা দেশে পশু পরিবহন শুরু হয়েছে। এসব পশুবাহী ট্রাক নদী পাড়ি দিতে দেশের ব্যস্ততম দৌলতদিয়া ঘাটে আসতে শুরু করেছে। শুক্রবার বিকাল নাগাদ উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কোরবানির পশুবোঝাই ট্রাক দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট দিয়ে নদী পার হয়েছে।

এদিকে তীব্র স্রোতের কারণে বেশ কয়েকদিন ধরে মারাত্মকভাবে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। শুক্রবার সকাল থেকে দক্ষিণাঞ্চল থেকে ঢাকামুখী কোরবানির পশুবাহী ট্রাকের চাপ বেড়ে যাওয়ায় অগ্রাধিকার ভিত্তিতে আলাদা একটি লেন দিয়ে ফেরি ঘাটে আসতে সহযোগিতা করছে কর্তৃপক্ষ। অপরদিকে অন্যান্য পণ্যবাহী ট্রাকগুলোকে ঘাটে আটকে থাকতে হচ্ছে দুই থেকে তিন দিন পর্যন্ত। শুক্রবার বিকাল পর্যন্ত দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় নদী পারের অপেক্ষায় আটকে ছিল অন্তত তিন শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক আবু আবদুল্লাহ রনি জানান, এই নৌরুটে বর্তমানে ১৩টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। রুটের একটি ফেরি যান্ত্রিক ত্রুটিতে বিকল হয়ে মেরামতে আছে। তবে শুক্রবার সন্ধ্যা নাগাদ রুটের ফেরি বহরে নতুন একটি ফেরি যুক্ত হবে বলে আশা করছি। তিনি আরও বলেন, পদ্মায় প্রবল স্রোতের কারণে ফেরিগুলো ঘাটে আসতে সময় লাগছে দ্বিগুণ। যে কারণে ঘাট এলাকায় যানবাহনের সারি তৈরি হচ্ছে।

দৌলতদিয়া ঘাটে পশুবাহী ট্রাকের চাপ বেড়েছে

 গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি 
২৫ জুলাই ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আসন্ন কোরবানির ঈদ উপলক্ষে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলা থেকে ঢাকাসহ সারা দেশে পশু পরিবহন শুরু হয়েছে। এসব পশুবাহী ট্রাক নদী পাড়ি দিতে দেশের ব্যস্ততম দৌলতদিয়া ঘাটে আসতে শুরু করেছে। শুক্রবার বিকাল নাগাদ উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কোরবানির পশুবোঝাই ট্রাক দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট দিয়ে নদী পার হয়েছে।

এদিকে তীব্র স্রোতের কারণে বেশ কয়েকদিন ধরে মারাত্মকভাবে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। শুক্রবার সকাল থেকে দক্ষিণাঞ্চল থেকে ঢাকামুখী কোরবানির পশুবাহী ট্রাকের চাপ বেড়ে যাওয়ায় অগ্রাধিকার ভিত্তিতে আলাদা একটি লেন দিয়ে ফেরি ঘাটে আসতে সহযোগিতা করছে কর্তৃপক্ষ। অপরদিকে অন্যান্য পণ্যবাহী ট্রাকগুলোকে ঘাটে আটকে থাকতে হচ্ছে দুই থেকে তিন দিন পর্যন্ত। শুক্রবার বিকাল পর্যন্ত দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় নদী পারের অপেক্ষায় আটকে ছিল অন্তত তিন শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক আবু আবদুল্লাহ রনি জানান, এই নৌরুটে বর্তমানে ১৩টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। রুটের একটি ফেরি যান্ত্রিক ত্রুটিতে বিকল হয়ে মেরামতে আছে। তবে শুক্রবার সন্ধ্যা নাগাদ রুটের ফেরি বহরে নতুন একটি ফেরি যুক্ত হবে বলে আশা করছি। তিনি আরও বলেন, পদ্মায় প্রবল স্রোতের কারণে ফেরিগুলো ঘাটে আসতে সময় লাগছে দ্বিগুণ। যে কারণে ঘাট এলাকায় যানবাহনের সারি তৈরি হচ্ছে।