ঢাকায় ফিরছে মানুষ

দৌলতদিয়া ঘাটে যাত্রী চাপ সড়কেও দীর্ঘ যানজট

  গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি ০৬ আগস্ট ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি শেষে কর্মস্থলে ফিরতে শুরু করেছে মানুষ। গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ফেরিঘাট ও লঞ্চঘাট দিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছে। এতে ঘাট এলাকার মহাসড়কে সৃষ্টি হয়েছে যানবাহনের দীর্ঘ সারি। করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি থাকলেও ফেরি ও লঞ্চে পারাপার হওয়া যাত্রীদের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মানতে দেখা যায়নি।

ঈদের আগে-পরে ৭ দিন পণ্য বোঝাই যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। পুনরায় যান চলালল শুরু হলে অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই যানবাহন আসতে শুরু করে। এতে ঘাট এলাকায় যানবাহনের চাপ সৃষ্টি হয়েছে। বুধবার বিকালে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত যানবাহনের সারি দেখা যায় দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে ক্যানেল ঘাট পর্যন্ত অন্তত আড়াই কিলোমিটার পর্যন্ত। এছাড়া ঘাটের ওপর চাপ কমাতে গোয়ালন্দ মোড় ট্রাফিক পুলিশ বক্স থেকে রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের প্রায় ৪ কিমি এলাকাজুড়ে অপচনশীল পণ্যবাহী ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান নদী পারের অপেক্ষায় রয়েছে। তবে এগুলোর পাশাপাশি রয়েছে শতশত ব্যক্তিগত গাড়ি। ব্যক্তিগত গাড়ি, যাত্রীবাহী বাস ও অন্যান্য জরুরি যানবাহনগুলোকে অগ্রাধিকার দিয়ে নদী পার করা হচ্ছে।

সরেজমিন দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় দেখা যায়, বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘাটে কর্মমুখী মানুষের ভিড় ক্রমেই বাড়ছে। জীবন ও জীবিকার তাগিদে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের হাজার হাজার শ্রমজীবী মানুষ গণপরিবহনের পাশাপাশি মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার, ব্যাটারি চালিত অটোবাইক, মোটরসাইকেল ও মাহেন্দ্রযোগে দৌলতদিয়া ঘাটে জমা হচ্ছে। পরে তারা নদী পার হয়ে ঢাকাসহ আশপাশের বিভিন্ন জেলায় কর্মস্থলে যাচ্ছে। গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, আমরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে কাজ করে যাচ্ছি। মঙ্গলবার বাসে অতিরিক্ত যাত্রী বহনের দায়ে দুটি বাসের চালককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। তবে ফেরি উঠে যাওয়ার পর আর কেউ নিয়মের তোয়াক্কা করছেন না। বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক আবু আবদুুল্লাহ রনি জানান, যাত্রী ও যানবাহন পারাপারের জন্য এ রুটে ছোট-বড় ১৬টি ফেরি চলাচল করছে। তীব্র স্রোতের ফেরি চলাচল চরমভাবে ব্যাহত হওয়ায় সড়কে যানবাহন আটকা পড়ছে।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত