আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস আজ
jugantor
আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস আজ

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০১ অক্টোবর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘বৈশ্বিক মহামারীর বার্তা, প্রবীণদের সেবায় নতুন মাত্রা’ স্লোগান নিয়ে বিশ্বের সব দেশের মতো বাংলাদেশেও আজ বৃহস্পতিবার উদ্যাপিত হবে আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস। বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৮ শতাংশ ষাটোর্ধ্ব বয়সী। সামাজিক ‘নিরাপত্তা বেষ্টনী কার্যক্রম’-এ প্রবীণদের অন্তর্ভুক্তির সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাণী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বলেছেন, ‘সারাবিশ্বের মতো বাংলাদেশেও ১ অক্টোবর আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস-২০২০ পালিত হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। প্রবীণ ব্যক্তিরা সমাজের শ্রদ্ধেয় ও সম্মানিত ব্যক্তি। তাদের শ্রম ও মেধায় এ সভ্যতা এগিয়ে যাচ্ছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রবীণ নাগরিকদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চয়তার লক্ষ্যে সংবিধানে সামাজিক নিরাপত্তা সংক্রান্ত ১৫(ঘ) অনুচ্ছেদ সংযুক্ত করেন। এ ধারাবাহিকতায় ১৯৯৬ সালে তৎকালীন সরকার বয়স্ক ভাতা কর্মসূচি প্রবর্তন করে, যার আওতায় বর্তমানে মাসিক ৫০০ টাকা হারে প্রান্তিক পর্যায়ে ৪৪ লাখেরও অধিক প্রবীণ নাগরিক ভাতা পাচ্ছেন।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেন, ‘দিবসটি উপলক্ষে আমি দেশের সব প্রবীণ নাগরিককে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। আওয়ামী লীগ সরকার প্রবীণদের কল্যাণে বিভিন্ন যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। ২০২০-২১ অর্থবছরে ১০০টি উপজেলাকে শতভাগ বয়স্ক ভাতা কর্মসূচির আওতায় আনা হয়েছে। প্রবীণদের সুরক্ষায় ‘পিতা-মাতার ভরণপোষণ আইন ২০১৩’ ও জাতীয় প্রবীণ নীতিমালা-২০১৩’ প্রণয়ন করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে প্রবীণদের জন্য আয় সৃষ্টিকারী কার্যক্রম গ্রহণ, তৃণমূল পর্যায়ে তাদের স্বাস্থ্যসেবা সম্প্রসারণ এবং হাসপাতাল, বিমানবন্দরসহ বিভিন্ন স্থাপনা ও যানবাহনকে প্রবীণবান্ধব করে গড়ে তোলা হচ্ছে।

আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস আজ

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০১ অক্টোবর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘বৈশ্বিক মহামারীর বার্তা, প্রবীণদের সেবায় নতুন মাত্রা’ স্লোগান নিয়ে বিশ্বের সব দেশের মতো বাংলাদেশেও আজ বৃহস্পতিবার উদ্যাপিত হবে আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস। বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৮ শতাংশ ষাটোর্ধ্ব বয়সী। সামাজিক ‘নিরাপত্তা বেষ্টনী কার্যক্রম’-এ প্রবীণদের অন্তর্ভুক্তির সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাণী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বলেছেন, ‘সারাবিশ্বের মতো বাংলাদেশেও ১ অক্টোবর আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস-২০২০ পালিত হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। প্রবীণ ব্যক্তিরা সমাজের শ্রদ্ধেয় ও সম্মানিত ব্যক্তি। তাদের শ্রম ও মেধায় এ সভ্যতা এগিয়ে যাচ্ছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রবীণ নাগরিকদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চয়তার লক্ষ্যে সংবিধানে সামাজিক নিরাপত্তা সংক্রান্ত ১৫(ঘ) অনুচ্ছেদ সংযুক্ত করেন। এ ধারাবাহিকতায় ১৯৯৬ সালে তৎকালীন সরকার বয়স্ক ভাতা কর্মসূচি প্রবর্তন করে, যার আওতায় বর্তমানে মাসিক ৫০০ টাকা হারে প্রান্তিক পর্যায়ে ৪৪ লাখেরও অধিক প্রবীণ নাগরিক ভাতা পাচ্ছেন।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেন, ‘দিবসটি উপলক্ষে আমি দেশের সব প্রবীণ নাগরিককে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। আওয়ামী লীগ সরকার প্রবীণদের কল্যাণে বিভিন্ন যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। ২০২০-২১ অর্থবছরে ১০০টি উপজেলাকে শতভাগ বয়স্ক ভাতা কর্মসূচির আওতায় আনা হয়েছে। প্রবীণদের সুরক্ষায় ‘পিতা-মাতার ভরণপোষণ আইন ২০১৩’ ও জাতীয় প্রবীণ নীতিমালা-২০১৩’ প্রণয়ন করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে প্রবীণদের জন্য আয় সৃষ্টিকারী কার্যক্রম গ্রহণ, তৃণমূল পর্যায়ে তাদের স্বাস্থ্যসেবা সম্প্রসারণ এবং হাসপাতাল, বিমানবন্দরসহ বিভিন্ন স্থাপনা ও যানবাহনকে প্রবীণবান্ধব করে গড়ে তোলা হচ্ছে।