যশোরে বিএনপিপন্থীদের ভরাডুবি
jugantor
আইনজীবী সমিতি নির্বাচন
যশোরে বিএনপিপন্থীদের ভরাডুবি
সভাপতি ফরিদ সা. সম্পাদক শাহীন

  যশোর বুরো  

৩০ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিএনপিপন্থীদের ভরাডুবি হয়েছে। ১৩টি পদের মধ্যে মাত্র দুটিতে তারা জয়ী হয়েছেন। অবশিষ্ট ১১টি পদের মধ্যে মহাজোট ১০টি এবং বাম দল একটি পদে নির্বাচিত হয়েছেন। সভাপতি পদে গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতি মনোনীত প্রার্থী কাজী ফরিদুল ইসলাম এবং সাধারণ সম্পাদক পদে মহাজোট সমর্থিত প্রার্থী শাহানুর আলম শাহীন নির্বাচিত হয়েছেন। শনিবার রাতে ফলাফল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনার অ্যাডভোকেট ইসমত হাসান।

সভাপতি পদে কাজী ফরিদুল ইসলাম ১৮৬ ভোট এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের প্রার্থী গাজি আবদুল কাদির ১৫৪ ভোট পেয়েছেন। একই পদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের আরএম মঈনুল হক খান ময়না ১১৬ ভোট পেয়েছেন।

সাধারণ সম্পাদক পদে শাহীন ২৩৪টি এবং তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী এমএ গফুর ১৭০টি ভোট পেয়েছেন। এছাড়া সহ-সভাপতি পদে খোন্দকার মোয়াজ্জেম হোসেন মুকুল ২০৪টি এবং জিএম আবু মুছা ১৯২টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের আবদুল লতিফ ১৫৭টি ও মঞ্জুর কাদের আশিক ১৬৬টি ভোট পেয়েছেন।

যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে আবুল কায়েস ২৩৮টি, সহকারী সম্পাদক পদে জাহিদুল ইসলাম সুইট ২৭২টি ও নাসির উদ্দিন ২১২টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের আশেক মাসুক সুমন ১৮৮টি, সহকারী সম্পাদক পদে কাজী সেলিম রেজা ময়না ১৯২টি ও মাধবেন্দ্র অধিকারী ১৩৩টি ভোট পেয়েছেন। গ্রন্থাগার সম্পাদক পদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের নুরুজ্জামান খান ২৩৪টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী মহাজোটের প্রার্থী শহিদুল ইসলাম ১৭৮টি ভোট পেয়েছেন। এছাড়া কার্যকরী সদস্য পদে মহাজোটের প্রার্থী রেজাউর রহমান (২৫৯), আবদুল্লাহ আল মাসুদ (২৪৮), নব কুমার কুণ্ডু (২১০), আরিফ শাহরিয়ার (২৪৩) ও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের সেলিম রেজা (২৪৭) ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। সমিতির এক নম্বর ভবন মিলনায়তনে শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হয়। সমিতির ৪৭৪ জন ভোটারের মধ্যে ৪৬৩ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

আইনজীবী সমিতি নির্বাচন

যশোরে বিএনপিপন্থীদের ভরাডুবি

সভাপতি ফরিদ সা. সম্পাদক শাহীন
 যশোর বুরো 
৩০ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিএনপিপন্থীদের ভরাডুবি হয়েছে। ১৩টি পদের মধ্যে মাত্র দুটিতে তারা জয়ী হয়েছেন। অবশিষ্ট ১১টি পদের মধ্যে মহাজোট ১০টি এবং বাম দল একটি পদে নির্বাচিত হয়েছেন। সভাপতি পদে গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতি মনোনীত প্রার্থী কাজী ফরিদুল ইসলাম এবং সাধারণ সম্পাদক পদে মহাজোট সমর্থিত প্রার্থী শাহানুর আলম শাহীন নির্বাচিত হয়েছেন। শনিবার রাতে ফলাফল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনার অ্যাডভোকেট ইসমত হাসান।

সভাপতি পদে কাজী ফরিদুল ইসলাম ১৮৬ ভোট এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের প্রার্থী গাজি আবদুল কাদির ১৫৪ ভোট পেয়েছেন। একই পদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের আরএম মঈনুল হক খান ময়না ১১৬ ভোট পেয়েছেন।

সাধারণ সম্পাদক পদে শাহীন ২৩৪টি এবং তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী এমএ গফুর ১৭০টি ভোট পেয়েছেন। এছাড়া সহ-সভাপতি পদে খোন্দকার মোয়াজ্জেম হোসেন মুকুল ২০৪টি এবং জিএম আবু মুছা ১৯২টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের আবদুল লতিফ ১৫৭টি ও মঞ্জুর কাদের আশিক ১৬৬টি ভোট পেয়েছেন।

যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে আবুল কায়েস ২৩৮টি, সহকারী সম্পাদক পদে জাহিদুল ইসলাম সুইট ২৭২টি ও নাসির উদ্দিন ২১২টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের আশেক মাসুক সুমন ১৮৮টি, সহকারী সম্পাদক পদে কাজী সেলিম রেজা ময়না ১৯২টি ও মাধবেন্দ্র অধিকারী ১৩৩টি ভোট পেয়েছেন। গ্রন্থাগার সম্পাদক পদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের নুরুজ্জামান খান ২৩৪টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী মহাজোটের প্রার্থী শহিদুল ইসলাম ১৭৮টি ভোট পেয়েছেন। এছাড়া কার্যকরী সদস্য পদে মহাজোটের প্রার্থী রেজাউর রহমান (২৫৯), আবদুল্লাহ আল মাসুদ (২৪৮), নব কুমার কুণ্ডু (২১০), আরিফ শাহরিয়ার (২৪৩) ও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের সেলিম রেজা (২৪৭) ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। সমিতির এক নম্বর ভবন মিলনায়তনে শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হয়। সমিতির ৪৭৪ জন ভোটারের মধ্যে ৪৬৩ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।