অন্যায়ের কাছে মাথা নত করব না
jugantor
বসুরহাটে কাদের মির্জা
অন্যায়ের কাছে মাথা নত করব না
‘মন্ত্রীর চামচা’ নিউইয়র্কের অভিজাত এলাকায় বাড়ি করেছেন

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

১৩ এপ্রিল ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে ইঙ্গিত করে তার ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, আমি অন্যায়ের কাছে বা অপরাজনীতির কাছে, কোনো অপরাধীর কাছে মাথা নত করব না। তিনি বলেন, আমাকে হত্যা করার জন্য গুলি করেছে, মাথা নত করি নাই। আমি আমার বড় ভাইয়ের সঙ্গেও কথা বলি না। অনেক চেষ্টা করেছেন গত দুই মাসে। একদিনও কথা বলি নাই।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হলরুমে সোমবার দুপুর ১২টায় বসুরহাট পৌরসভার আয়োজনে করোনা যোদ্ধাদের সম্মাননা সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, কেউ হাজার হাজার কোটি টাকা কামাবে আর কেউ টাকার অভাবে খেতে পারবে না। এটা এ দেশে চলতে দেওয়া যায় না। সাহস করে সত্য কথা বলব। কাদের মির্জা বলেন, জেলাপর্যায়ের অফিসারগুলোকে দেখেন। সব বিদেশি কাপড়-চোপড়। এত টাকা কোথা থেকে পায়? দেশের মানুষের মাথা বিক্রি করে, লুট করে এবং এরা দেশকে লুটেপুটে খাচ্ছে।

মন্ত্রীর সহকারীর দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, এদের কোনো পদবিও নেই। এটা লাগিয়েছে, কতগুলো ভিজিটিং কার্ড নিয়ে এমপি, মন্ত্রী, সচিবসহ বিভিন্ন জায়গায় তদবির করে কোটি কোটি টাকা কামিয়েছে। নিউইয়র্কের অভিজাত এলাকা লং অ্যাইল্যান্ডে তিনি জায়গা কিনে বাড়ি করছেন। তিনি হলেন মন্ত্রী মহোদয়ের চামচা, লগে লগে ঘুরে। এসব দেখে আমার বিবেক নাড়া দিয়েছে। সত্য কথা হলো এটা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ সেলিম, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা মেডিকেল অফিসার ডা. মাকসুদা সুলতানা সুরভী, ডা. শওকত আল ইমরান ইমরোজ, ডা. সামিয়া কামাল প্রমুখ।

হামলায় কাদের মির্জার অনুসারী আহত : কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, প্রতিপক্ষের হামলায় কাদের মির্জার অনুসারী কাজী নজরুল ইসলাম (৩৬) আহত হয়েছেন। উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের চৌধুরী বাজারে সোমবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি মুছাপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মাকসুদুর রহমানের ছেলে। কাদের মির্জার অনুগত মুছাপুরের আমেরিকা প্রবাসী আইয়ুব আলী বলেন, সকালে বাজারে ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে মাস্ক বিতরণের সময় মাস্ক দেওয়া-নেওয়া নিয়ে নজরুল ইসলামের ওপর হামলা করা হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম জানান, সোমবার ২০০ মাস্ক বিতরণ করা হয়। তখন কেউ আহত হননি। পরে স্থানীয়দের সঙ্গে এক ব্যক্তির কথা কাটাকাটি হয়েছে বলে শুনেছি। কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি বলেন, মারামারির ঘটনা শুনেছি। হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বসুরহাটে কাদের মির্জা

অন্যায়ের কাছে মাথা নত করব না

‘মন্ত্রীর চামচা’ নিউইয়র্কের অভিজাত এলাকায় বাড়ি করেছেন
 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
১৩ এপ্রিল ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে ইঙ্গিত করে তার ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, আমি অন্যায়ের কাছে বা অপরাজনীতির কাছে, কোনো অপরাধীর কাছে মাথা নত করব না। তিনি বলেন, আমাকে হত্যা করার জন্য গুলি করেছে, মাথা নত করি নাই। আমি আমার বড় ভাইয়ের সঙ্গেও কথা বলি না। অনেক চেষ্টা করেছেন গত দুই মাসে। একদিনও কথা বলি নাই।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হলরুমে সোমবার দুপুর ১২টায় বসুরহাট পৌরসভার আয়োজনে করোনা যোদ্ধাদের সম্মাননা সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, কেউ হাজার হাজার কোটি টাকা কামাবে আর কেউ টাকার অভাবে খেতে পারবে না। এটা এ দেশে চলতে দেওয়া যায় না। সাহস করে সত্য কথা বলব। কাদের মির্জা বলেন, জেলাপর্যায়ের অফিসারগুলোকে দেখেন। সব বিদেশি কাপড়-চোপড়। এত টাকা কোথা থেকে পায়? দেশের মানুষের মাথা বিক্রি করে, লুট করে এবং এরা দেশকে লুটেপুটে খাচ্ছে।

মন্ত্রীর সহকারীর দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, এদের কোনো পদবিও নেই। এটা লাগিয়েছে, কতগুলো ভিজিটিং কার্ড নিয়ে এমপি, মন্ত্রী, সচিবসহ বিভিন্ন জায়গায় তদবির করে কোটি কোটি টাকা কামিয়েছে। নিউইয়র্কের অভিজাত এলাকা লং অ্যাইল্যান্ডে তিনি জায়গা কিনে বাড়ি করছেন। তিনি হলেন মন্ত্রী মহোদয়ের চামচা, লগে লগে ঘুরে। এসব দেখে আমার বিবেক নাড়া দিয়েছে। সত্য কথা হলো এটা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ সেলিম, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা মেডিকেল অফিসার ডা. মাকসুদা সুলতানা সুরভী, ডা. শওকত আল ইমরান ইমরোজ, ডা. সামিয়া কামাল প্রমুখ।

হামলায় কাদের মির্জার অনুসারী আহত : কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, প্রতিপক্ষের হামলায় কাদের মির্জার অনুসারী কাজী নজরুল ইসলাম (৩৬) আহত হয়েছেন। উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের চৌধুরী বাজারে সোমবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি মুছাপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মাকসুদুর রহমানের ছেলে। কাদের মির্জার অনুগত মুছাপুরের আমেরিকা প্রবাসী আইয়ুব আলী বলেন, সকালে বাজারে ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে মাস্ক বিতরণের সময় মাস্ক দেওয়া-নেওয়া নিয়ে নজরুল ইসলামের ওপর হামলা করা হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম জানান, সোমবার ২০০ মাস্ক বিতরণ করা হয়। তখন কেউ আহত হননি। পরে স্থানীয়দের সঙ্গে এক ব্যক্তির কথা কাটাকাটি হয়েছে বলে শুনেছি। কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি বলেন, মারামারির ঘটনা শুনেছি। হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন