দুর্গাপুরে যুবলীগ নেতার বাড়িতে ভাঙচুর ও লুটের অভিযোগ
jugantor
দুর্গাপুরে যুবলীগ নেতার বাড়িতে ভাঙচুর ও লুটের অভিযোগ

  রাজশাহী ব্যুরো  

২০ এপ্রিল ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাজশাহীর দুর্গাপুরে উপজেলা যুবলীগের সহসভাপতি আজমত আলী ও তার ভাইয়ের বাড়িতে সন্ত্রাসীরা হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ঝালুকা ইউনিয়নের ঝালুকা মাঝারপাড়া গ্রামে। সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। হামলায় আহত রাজু আহমেদ, মুকুল হোসেন ও মিঠুন আলীকে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা যুবলীগ নেতার আত্মীয়স্বজন।

দুর্গাপুর থানায় করা এজাহারে বলা হয়েছে, সোমবার সকাল সাড়ে ৬টায় ঝালুকা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি ফয়জুল ইসলাম ও ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মোজাম্মেল হকের নেতৃত্বে মাসুদ, সুকতানি, বাবুল হোসেন, আবুল হোসেনসহ ২০-২৫ ব্যক্তি হাঁসুয়া ও লাঠি নিয়ে যুবলীগ নেতা আজমত আলীর বাড়িতে হামলা চালায়। হামলাকারীরা বাড়ির ভেতরে ঢুকে বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এ সময় আজমতের ভাই মোস্তফা ও তার ছেলেরা বাধা দিতে এলে তাদের বাড়িতেও চড়াও হয়ে হামলাকারীরা ভাঙচুর ও লুটপাট করে। হামলাকারীরা দুই বাড়ি থেকে কয়েক বস্তা চাল, জিনিসপত্র, আলমারি ভেঙে মূল্যবান জিনিস ও কয়েক লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। হামলার কারণ রাজনৈতিক ও পূর্বশত্রুতা বলে যুবলীগ নেতা আজমত এজাহারে উল্লেখ করেছেন।

এদিকে থানায় জানানোর পর একদল পুলিশ দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এ ব্যাপারে যুবদল নেতা ফয়জুল ও বিএনপি নেতা মোজাম্মেলকে প্রধান আসামি ও ২৫ জনের নাম উল্লেখ করে দুর্গাপুর থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে থানার ওসি হাসমত আলী জানিয়েছেন।

দুর্গাপুরে যুবলীগ নেতার বাড়িতে ভাঙচুর ও লুটের অভিযোগ

 রাজশাহী ব্যুরো 
২০ এপ্রিল ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাজশাহীর দুর্গাপুরে উপজেলা যুবলীগের সহসভাপতি আজমত আলী ও তার ভাইয়ের বাড়িতে সন্ত্রাসীরা হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ঝালুকা ইউনিয়নের ঝালুকা মাঝারপাড়া গ্রামে। সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। হামলায় আহত রাজু আহমেদ, মুকুল হোসেন ও মিঠুন আলীকে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা যুবলীগ নেতার আত্মীয়স্বজন।

দুর্গাপুর থানায় করা এজাহারে বলা হয়েছে, সোমবার সকাল সাড়ে ৬টায় ঝালুকা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি ফয়জুল ইসলাম ও ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মোজাম্মেল হকের নেতৃত্বে মাসুদ, সুকতানি, বাবুল হোসেন, আবুল হোসেনসহ ২০-২৫ ব্যক্তি হাঁসুয়া ও লাঠি নিয়ে যুবলীগ নেতা আজমত আলীর বাড়িতে হামলা চালায়। হামলাকারীরা বাড়ির ভেতরে ঢুকে বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এ সময় আজমতের ভাই মোস্তফা ও তার ছেলেরা বাধা দিতে এলে তাদের বাড়িতেও চড়াও হয়ে হামলাকারীরা ভাঙচুর ও লুটপাট করে। হামলাকারীরা দুই বাড়ি থেকে কয়েক বস্তা চাল, জিনিসপত্র, আলমারি ভেঙে মূল্যবান জিনিস ও কয়েক লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। হামলার কারণ রাজনৈতিক ও পূর্বশত্রুতা বলে যুবলীগ নেতা আজমত এজাহারে উল্লেখ করেছেন।

এদিকে থানায় জানানোর পর একদল পুলিশ দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এ ব্যাপারে যুবদল নেতা ফয়জুল ও বিএনপি নেতা মোজাম্মেলকে প্রধান আসামি ও ২৫ জনের নাম উল্লেখ করে দুর্গাপুর থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে থানার ওসি হাসমত আলী জানিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন