বাংলাদেশ এখন উপচে পড়া ঝুড়ির দেশ : তথ্যমন্ত্রী
jugantor
বাংলাদেশ এখন উপচে পড়া ঝুড়ির দেশ : তথ্যমন্ত্রী

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৮ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বাংলাদেশকে এক সময় অনেকেই বলত তলাবিহীন ঝুড়ির দেশ। আজ সেই নাম পালটে বাংলাদেশ এখন হয়েছে উপচে পড়া ঝুড়ির দেশ। সোমবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে মতবিনিময়ে তিনি এ কথা বলেন।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ঐতিহাসিক ১৭ মে বঙ্গবন্ধুকন্যার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। ১৯৮১ সালের এই দিনে ঝড়-বৃষ্টি ছিল। আমরা সেদিন স্লোগান দিয়েছিলাম, ‘ঝড় বৃষ্টি আঁধার রাতে, শেখ হাসিনা আমরা আছি তোমার সাথে’। আমরা কতখানি তার সঙ্গে থাকতে পেরেছি জানি না। তবে তিনি বাংলাদেশের মানুষের সঙ্গে থেকেছেন সর্বক্ষণ। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা ১৯৮১ সালের এই দিনে দেশে ফেরার পর থেকে সাধারণ মানুষের কাছে ছুটে বেড়িয়েছেন। ছুটে বেড়াতে গিয়ে ষড়যন্ত্রকারীরা তাকে বহুবার বিভিন্নভাবে মেরে ফেলার চেষ্টাও করেছে। কিন্তু সাধারণ মানুষের দোয়া ও আল্লাহর রহমতে তার নেতৃত্বাধীন সরকার টানা তৃতীয়বারের মতো দায়িত্ব পালন করছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, এই শুভ দিনে আমাদের আরও দুটি সুসংবাদ দিয়েছে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো। ২০১৯-২০ অর্থবছরে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ছিল ২ হাজার ৬৪ ডলার। ২০২০-২১ অর্থবছরে সেই মাথাপিছু আয় দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ২২৭ মার্কিন ডলারে। ঐতিহাসিক দিনে এটা সুসংবাদ বটে, কেননা করোনা মহামারিতে বিশ্বের বহু দেশ যেখানে অর্থনৈতিকভাবে বিপর্যস্ত সেখানে বাংলাদেশের জন্য এটি একটি বড় অর্জন। আরেকটি সুসংবাদ হচ্ছে, ২০১৯-২০ অর্থবছরে আমাদের মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) ছিল ২৭ লাখ ৯৬ হাজার ৩২৮ কোটি টাকা; আর ২০২০-২১ অর্থবছরে জিডিপির আকার দাঁড়িয়েছে ৩০ লাখ ৮৭ হাজার ৩০০ কোটি টাকা।

দেশের বিচার বিভাগ নিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সমালোচনার পরিপ্রেক্ষিতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশের বিচার বিভাগ অত্যন্ত স্বাধীন। তা না হলে এত অপকর্মের পরও বিএনপির নেতাকর্মীরা উচ্চ আদালত থেকে জামিন পেতেন না। বাংলাদেশের বিচার বিভাগ কতটা স্বাধীন এটাতেই প্রমাণ হয়, সরকারের সাবেক এমপি-মন্ত্রীদের কোর্টে গিয়ে হাজিরা দিতে হয় এবং তাদের সাজাও হয়। স্বাধীন না হলে এটি হতো না। বিএনপি মহাসচিবের এই অভিযোগ তার ধারাবাহিক বক্তব্যের অংশ।

ফিলিস্তিনে ইসরাইলের হামলার প্রতিবাদ করছে বিশ্ব মানবাধিকার সংগঠনগুলো-এ কথা জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এটি খুবই রহস্যজনক। বাংলাদেশে কোথাও পান থেকে চুন খসলে আবার চুন থেকে পান খসলে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এ ধরনের বিবৃতি দেয়। কিন্তু ফিলিস্তিনে এমন ঘটনায় তাদের কোনো বিবৃতি আমাদের চোখে পড়েনি। আরেকটি মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ সারা পৃথিবী নাকি ওয়াচ করে বেড়ায়। কিন্তু ফিলিস্তিনে ইসরাইলের এই হামলা তাদের চোখে পড়ে না।

বাংলাদেশ এখন উপচে পড়া ঝুড়ির দেশ : তথ্যমন্ত্রী

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৮ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বাংলাদেশকে এক সময় অনেকেই বলত তলাবিহীন ঝুড়ির দেশ। আজ সেই নাম পালটে বাংলাদেশ এখন হয়েছে উপচে পড়া ঝুড়ির দেশ। সোমবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে মতবিনিময়ে তিনি এ কথা বলেন।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ঐতিহাসিক ১৭ মে বঙ্গবন্ধুকন্যার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। ১৯৮১ সালের এই দিনে ঝড়-বৃষ্টি ছিল। আমরা সেদিন স্লোগান দিয়েছিলাম, ‘ঝড় বৃষ্টি আঁধার রাতে, শেখ হাসিনা আমরা আছি তোমার সাথে’। আমরা কতখানি তার সঙ্গে থাকতে পেরেছি জানি না। তবে তিনি বাংলাদেশের মানুষের সঙ্গে থেকেছেন সর্বক্ষণ। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা ১৯৮১ সালের এই দিনে দেশে ফেরার পর থেকে সাধারণ মানুষের কাছে ছুটে বেড়িয়েছেন। ছুটে বেড়াতে গিয়ে ষড়যন্ত্রকারীরা তাকে বহুবার বিভিন্নভাবে মেরে ফেলার চেষ্টাও করেছে। কিন্তু সাধারণ মানুষের দোয়া ও আল্লাহর রহমতে তার নেতৃত্বাধীন সরকার টানা তৃতীয়বারের মতো দায়িত্ব পালন করছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, এই শুভ দিনে আমাদের আরও দুটি সুসংবাদ দিয়েছে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো। ২০১৯-২০ অর্থবছরে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ছিল ২ হাজার ৬৪ ডলার। ২০২০-২১ অর্থবছরে সেই মাথাপিছু আয় দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ২২৭ মার্কিন ডলারে। ঐতিহাসিক দিনে এটা সুসংবাদ বটে, কেননা করোনা মহামারিতে বিশ্বের বহু দেশ যেখানে অর্থনৈতিকভাবে বিপর্যস্ত সেখানে বাংলাদেশের জন্য এটি একটি বড় অর্জন। আরেকটি সুসংবাদ হচ্ছে, ২০১৯-২০ অর্থবছরে আমাদের মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) ছিল ২৭ লাখ ৯৬ হাজার ৩২৮ কোটি টাকা; আর ২০২০-২১ অর্থবছরে জিডিপির আকার দাঁড়িয়েছে ৩০ লাখ ৮৭ হাজার ৩০০ কোটি টাকা।

দেশের বিচার বিভাগ নিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সমালোচনার পরিপ্রেক্ষিতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশের বিচার বিভাগ অত্যন্ত স্বাধীন। তা না হলে এত অপকর্মের পরও বিএনপির নেতাকর্মীরা উচ্চ আদালত থেকে জামিন পেতেন না। বাংলাদেশের বিচার বিভাগ কতটা স্বাধীন এটাতেই প্রমাণ হয়, সরকারের সাবেক এমপি-মন্ত্রীদের কোর্টে গিয়ে হাজিরা দিতে হয় এবং তাদের সাজাও হয়। স্বাধীন না হলে এটি হতো না। বিএনপি মহাসচিবের এই অভিযোগ তার ধারাবাহিক বক্তব্যের অংশ।

ফিলিস্তিনে ইসরাইলের হামলার প্রতিবাদ করছে বিশ্ব মানবাধিকার সংগঠনগুলো-এ কথা জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এটি খুবই রহস্যজনক। বাংলাদেশে কোথাও পান থেকে চুন খসলে আবার চুন থেকে পান খসলে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এ ধরনের বিবৃতি দেয়। কিন্তু ফিলিস্তিনে এমন ঘটনায় তাদের কোনো বিবৃতি আমাদের চোখে পড়েনি। আরেকটি মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ সারা পৃথিবী নাকি ওয়াচ করে বেড়ায়। কিন্তু ফিলিস্তিনে ইসরাইলের এই হামলা তাদের চোখে পড়ে না।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন