রাশেদ খান মেননের ৭৮তম জন্মদিন আজ
jugantor
রাশেদ খান মেননের ৭৮তম জন্মদিন আজ

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৮ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেননের ৭৮তম জন্মদিন আজ। ১৯৪৩ সালের ১৮ মে ফরিদপুরে তার জন্ম। রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান মেননের গ্রামের বাড়ি বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার বাহেরচরের ক্ষুদ্রকাঠি গ্রামে। তার বাবা মরহুম বিচারপতি আবদুল জব্বার খান ও মা সালেহা খাতুন। তার স্ত্রী লুৎফুন্নেসা খান, মেয়ে ড. সুবর্ণা খান ও ছেলে আইনের ছাত্র আনিক রাশেদ খান।

ষাটের দশকের তুখোড় ছাত্রনেতা রাশেদ খান মেনন ১৯৬৩-৬৪ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি ও ১৯৬৪-৬৭ সালে পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি ছিলেন। ১৯৭৯ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ-সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৯১-এর পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাশেদ খান মেনন পুনরায় সংসদ-সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালের ডিসেম্বর নির্বাচনে তিনি ১৪ দলের প্রার্থী হিসাবে ঢাকা-৮ নির্বাচনী এলাকা থেকে সংসদ-সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৩ সালে তাকে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-৮ আসন থেকে পুনরায় সংসদ-সদস্য নির্বাচিত হন এবং মহাজোট সরকারের বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। বর্তমানে তিনি সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি।

রাশেদ খান মেননের ৭৮তম জন্মদিন আজ

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৮ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেননের ৭৮তম জন্মদিন আজ। ১৯৪৩ সালের ১৮ মে ফরিদপুরে তার জন্ম। রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান মেননের গ্রামের বাড়ি বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার বাহেরচরের ক্ষুদ্রকাঠি গ্রামে। তার বাবা মরহুম বিচারপতি আবদুল জব্বার খান ও মা সালেহা খাতুন। তার স্ত্রী লুৎফুন্নেসা খান, মেয়ে ড. সুবর্ণা খান ও ছেলে আইনের ছাত্র আনিক রাশেদ খান।

ষাটের দশকের তুখোড় ছাত্রনেতা রাশেদ খান মেনন ১৯৬৩-৬৪ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি ও ১৯৬৪-৬৭ সালে পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি ছিলেন। ১৯৭৯ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ-সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৯১-এর পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাশেদ খান মেনন পুনরায় সংসদ-সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালের ডিসেম্বর নির্বাচনে তিনি ১৪ দলের প্রার্থী হিসাবে ঢাকা-৮ নির্বাচনী এলাকা থেকে সংসদ-সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৩ সালে তাকে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-৮ আসন থেকে পুনরায় সংসদ-সদস্য নির্বাচিত হন এবং মহাজোট সরকারের বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। বর্তমানে তিনি সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন