বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে পাকুন্দিয়ায় আ.লীগের বিক্ষোভ
jugantor
সাবেক এমপিকে আহ্বায়ক করার জের
বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে পাকুন্দিয়ায় আ.লীগের বিক্ষোভ

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো ও পাকুন্দিয়া প্রতিনিধি  

২৪ জুলাই ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণার জেরে ফুঁসে উঠেছে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। কঠোর বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে শুক্রবার দুপুরে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেন শত শত নেতাকর্মী। তারা নবনির্বাচিত উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সোহরাব উদ্দিনকে রাজাকার ও মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত করে অবিলম্বে এ সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের দাবি জানান। এ সময় এলাকায় তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন নেতাকর্মীরা।

সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় কিশোরগঞ্জ আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সভা। অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট সোহরাব উদ্দিনকে পাকুন্দিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ঘোষণা করা হয়। এ ঘোষণার পরপরই ওয়াকআউট করেন পাকুন্দিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম আহ্বায়ক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রেনু।

নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণার প্রতিবাদে শুক্রবার দুপুরে লকডাউন উপেক্ষা করে নেতাকর্মীরা উপজেলা সদরে বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ করেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হুমায়ুন কবির, জেলা শ্রমিক লীগের উপদেষ্টা আতাউল্লাহ সিদ্দিক মাসুদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মোতায়েম হোসেন স্বপন, উপজেলা কৃষক লীগের সাবেক সভাপতি বাবুল আহমেদ, নারান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম হরফে ভিপি শফিক, বুরুদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমুল হুদা রুবেল, সুখিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ টিটু, উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি নাজমুল ইসলাম দেওয়ান প্রমুখ এতে নেতৃত্ব দেন। মিছিলে আওয়ামী লীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কয়েকশ নেতাকর্মী অংশ নেন।

বিক্ষোভ মিছিল শুরুর আগে আন্দোলনকারী নেতাদের সাথে পাকুন্দিয়া ডাক বাংলোয় বৈঠক করেন কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদী, পাকুন্দিয়া) আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক আইজিপি নূর মোহাম্মদ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সোহরাব উদ্দিনকে আহ্বায়ক হিসাবে পাকুন্দিয়া আওয়ামী লীগের কেউ মেনে নেবে না।

সাবেক এমপিকে আহ্বায়ক করার জের

বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে পাকুন্দিয়ায় আ.লীগের বিক্ষোভ

 কিশোরগঞ্জ ব্যুরো ও পাকুন্দিয়া প্রতিনিধি 
২৪ জুলাই ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণার জেরে ফুঁসে উঠেছে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। কঠোর বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে শুক্রবার দুপুরে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেন শত শত নেতাকর্মী। তারা নবনির্বাচিত উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সোহরাব উদ্দিনকে রাজাকার ও মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত করে অবিলম্বে এ সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের দাবি জানান। এ সময় এলাকায় তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন নেতাকর্মীরা।

সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় কিশোরগঞ্জ আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সভা। অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট সোহরাব উদ্দিনকে পাকুন্দিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ঘোষণা করা হয়। এ ঘোষণার পরপরই ওয়াকআউট করেন পাকুন্দিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম আহ্বায়ক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রেনু।

নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণার প্রতিবাদে শুক্রবার দুপুরে লকডাউন উপেক্ষা করে নেতাকর্মীরা উপজেলা সদরে বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ করেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হুমায়ুন কবির, জেলা শ্রমিক লীগের উপদেষ্টা আতাউল্লাহ সিদ্দিক মাসুদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মোতায়েম হোসেন স্বপন, উপজেলা কৃষক লীগের সাবেক সভাপতি বাবুল আহমেদ, নারান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম হরফে ভিপি শফিক, বুরুদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমুল হুদা রুবেল, সুখিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ টিটু, উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি নাজমুল ইসলাম দেওয়ান প্রমুখ এতে নেতৃত্ব দেন। মিছিলে আওয়ামী লীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কয়েকশ নেতাকর্মী অংশ নেন।

বিক্ষোভ মিছিল শুরুর আগে আন্দোলনকারী নেতাদের সাথে পাকুন্দিয়া ডাক বাংলোয় বৈঠক করেন কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদী, পাকুন্দিয়া) আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক আইজিপি নূর মোহাম্মদ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সোহরাব উদ্দিনকে আহ্বায়ক হিসাবে পাকুন্দিয়া আওয়ামী লীগের কেউ মেনে নেবে না।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন