আজ কার্ল মার্কসের ২০০তম জন্মবার্ষিকী

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৫ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আজ কার্ল মার্কসের ২০০তম জন্মবার্ষিকী

আজ মহামতি কার্ল মার্কসের দ্বিশততম জন্মবার্ষিকী। প্রভাবশালী জার্মান সমাজ বিজ্ঞানী ও মার্কসবাদের প্রবক্তা কার্ল হাইনরিশ মার্কস ১৮১৮ সালের এই দিনে জন্মগ্রহণ করেন।

জীবিত অবস্থার চেয়ে মৃত্যুর পর সমাজতান্ত্রিক বিপ্লবীদের কাছে তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। বিংশ শতাব্দীতে সমগ্র মানবসভ্যতা মার্কসের তত্ত্ব দ্বারা প্রবলভাবে আলোড়িত হয়।

কার্ল মার্কস জার্মানির প্রুশিয়া সাম্রাজ্যের নিু রাইন প্রদেশের অন্তর্গত একটি গ্রামে এক ইহুদি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। নয় সন্তানের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয়। কার্ল মার্কস ১৩ বছর বয়স পর্যন্ত বাড়িতেই পড়াশোনা করেন। ১৭ বছর বয়সে স্নাতক পাস করেন।

এরপর ইউনিভার্সিটি অব বন-এ আইন বিষয়ে পড়াশোনা শুরু করেন। তার ইচ্ছা ছিল সাহিত্য ও দর্শন নিয়ে পড়া, কিন্তু তার বাবা মনে করতেন কার্ল স্কলার হিসেবে নিজেকে প্রস্তুত করতে পারবে না।

কিছু দিনের মধ্যেই তার বাবা তাকে বার্লিনের হুমবল্ড ইউনিভার্সিটিতে বদলি করিয়ে দেন। সে সময় মার্কস জীবন নিয়ে কবিতা ও প্রবন্ধ লিখতেন। তার লেখার ভাষা ছিল বাবার কাছ থেকে পাওয়া ধর্মতাত্ত্বিক তথা অতিবর্তী ঈশ্বরবাদের ভাষা।

১৮৪১ তিনি সালে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। লেখার কারণে জার্মানি থেকে বিতাড়িত হওয়ায় তিনি প্যারিসে যান। সেখান থেকে পুনরায় লেখার কারণে বিতাড়িত হওয়ার পর লন্ডন যান। লন্ডনে তিনি ছিলেন ৩০ বছর।

অতি দারিদ্র্য ও অপুষ্টিতে তার চার সন্তান এবং স্ত্রী মারা যান। এরপর তিনি আক্ষেপ করে বলেন, আপনারা জানেন, আমি আমার জীবন বিপ্লবী কাজে উৎসর্গ করেছি। আমাকে যদি আমার জীবনটা আবার ফিরিয়ে দেয়া হয়, তবে আমি যা করেছি তাই করতাম, তবে বিয়ে করতাম না!

১৮৮৩ সালের ১৪ মার্চ তার মৃত্যু হয়। তাকে ১৭ মার্চ লন্ডনের হাইগেট সেমেট্রিতে সমাহিত করা হয়। তার সমাধি ফলকে দুটি বাক্য লেখা আছে। প্রথমটি হল- কমিউনিস্ট মেনিফেস্টোর শেষ লাইন ‘দুনিয়ার মজদুর এক হও’, অপরটি হল- ১১তম থিসিস অন ফয়ারবাখের এঙ্গেলীয় সংস্করণের বিখ্যাত উক্তি, ‘এতদিন দার্শনিকরা কেবল বিশ্বকে বিভিন্নভাবে ব্যাখ্যাই করে গেছেন, কিন্তু আসল কাজ হল তা পরিবর্তন করা।’

কার্ল মার্কসের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আজ বিকাল ৪টায় তোপখানায় বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) ও বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) উদ্যোগে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের সভাপতিত্বে আলোচনা করবেন বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কামাল লোহানী, মনজুরুল আহসান খান, শাহ আলম, অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, সাইফুল হক, বজলুর রশীদ ফিরোজ ও রাজেকুজ্জামান রতন।

দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির উদ্যোগে বিকাল ৪টায় ‘মেহেরবা প্লাজা’র ৭ম তলায় নতুন প্রজন্মের প্রগতিশীল ছাত্রকর্মীদের চার মাসব্যাপী প্রশিক্ষণ কার্যক্রম উদ্বোধন করা হবে। উদ্বোধন করবেন পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন।

এ ছাড়া বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশনের (টাফ) উদ্যোগে সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মিছিল অনুষ্ঠিত হবে এবং বেলা ১২টায় ডা. ফয়জুল হাকিমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.