ঘরেবাইরের প্রাণবন্ত আড্ডা

দেশীয় পোশাক শিল্পের বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে

দৈনিক যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৬ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রতি বছরের মতো এবারও দেশের প্রখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার, রূপবিশেষজ্ঞ, ইনটেরিয়র ডিজাইনার, মডেল এবং অভিনেতাদের অংশগ্রহণে জমে উঠেছিল ঘরেবাইরে ঈদ ফ্যাশন আড্ডা। স্মৃতিচারণ, গান, কবিতা, ছড়ার অন্তরঙ্গ পরিবেশনার পাশাপাশি বিভিন্ন ফ্যাশন ডিজাইনার, রূপবিশেষজ্ঞ ও মডেলের সরস আলোচনায় আড্ডাটি প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে। দৈনিক যুগান্তরের লাইফস্টাইল ম্যাগাজিন ঘরেবাইরের আয়োজনে যুগান্তরের ফিচার সম্পাদক রফিকুল হক দাদুভাই এবং ঘরেবাইরের বিভাগীয় সম্পাদক হিমেল চৌধুরীর সঞ্চালনায় আড্ডায় অংশ নেন ফ্যাশন জগতের বড় বড় ব্যক্তিত্ব। খোলামেলা অনানুষ্ঠানিক এ আড্ডায় যোগ দেন যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলমও।

শনিবার দুপুর ১২টার দিকে যুগান্তরের কনফারেন্স রুমে আড্ডা শুরু হয়ে শেষ হয় বিকাল ৩টায়। ভিন্ন আঙ্গিকের এ আড্ডার শুরুতেই যুগান্তরের ফিচার সম্পাদক দাদুভাই আগত অতিথিদের ধন্যবাদ ও আন্তরিক অভিনন্দন জানান। দাদুভাই বলেন, ‘আপনারা আমাদের পরিবারের সদস্যের মতোই। ফ্যাশন ডিজাইনার, রূপবিশেষজ্ঞ এবং মডেলদের সবাইকে নিয়েই ঘরেবাইরে আজ পাঠকপ্রিয়তায় শীর্ষে। আড্ডার ছলে আপনারা এ ইন্ডাস্ট্রির বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করুন। আপনাদের গুরুত্বপূর্ণ কথাগুলো পত্রিকার মাধ্যমে যথাযথ কর্তৃপক্ষের সামনে তুলে ধরা হবে।’

যুগান্তর সব সময় দেশীয় পোশাক শিল্পের পাশে আছে উল্লেখ করে সমাপনী বক্তব্য দেন যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম। তিনি বলেন, ‘ফ্যাশন কখনও একটা জায়গায় থেমে থাকে না। ফ্যাশন বহমান নদীর মতো, ক্ষণে ক্ষণে রূপ পাল্টায়। বর্তমানে আমাদের দেশে মানুষের ফ্যাশন সচেতনতা বেড়েছে। পাশাপাশি বাংলাদেশের আছে ১৬ কোটি মানুষ। দেশের বাজারটাও অনেক বড়। ফলে ভালো কাজ করলে ভালো ফল করা সম্ভব। ইতিমধ্যে আমাদের গার্মেন্ট শিল্প তৈরি পোশাক রফতানিতে বিশ্বের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। কাজেই দেশীয় পোশাক শিল্পের বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে। যুগান্তর সব সময় আপনাদের সঙ্গে আছে, থাকবে।’ পরিশেষে যুগান্তর সম্পাদকও একটি কবিতা আবৃত্তি করে সবাইকে অভিভূত করেন। অতিথিদের মধ্যে ফ্যাশন হাউস সাদাকালোর কর্ণধার তাহসিনা শাহিন দুটি মনোমুগ্ধকর গান পরিবেশন করেন। ছড়া শোনান ফিচার সম্পাদক দাদুভাই, নিত্য উপহারের কর্ণধার বাহার রহমান এবং ঘরেবাইরের শিশু মডেল ছোট্ট সোনামণি জয়িতা হক।

ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির নানা প্রতিবন্ধকতা তুলে ধরেন নিপুণ ক্রাফটের স্বত্বাধিকারী আশরাফুর রহমান ফারুক। তিনি বলেন, ঈদ বা কোনো উৎসব এলেই ফ্যাশন ডিজাইনাররা নিত্যনতুন ডিজাইনের পোশাক নিয়ে হাজির হন। কিন্তু অনেক সময় সীমান্ত দিয়ে অত্যন্ত স্বল্প ভ্যাটে ও চোরাই পথে আসা পোশাকগুলো দেশের বাজার দখল করছে। ফলে এসব পোশাকের সঙ্গে পাল্লা দিতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলোকে। পাশাপাশি তিনি সুতা-রংসহ দেশীয় পোশাক শিল্পের সংশ্লিষ্ট সব পণ্যের দাম কমানোর ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। বক্তব্যের শেষে আশরাফুর রহমানও একটি গান গেয়ে শোনান।

যুগান্তর আয়োজিত ঈদ ফ্যাশন আড্ডায় উপস্থিত ছিলেন রেডিয়েন্ট ইন্সটিটিউট অব ডিজাইনের কর্ণধার গুলশান নাসরিন চৌধুরী, বিন্দিয়া এক্সক্লুসিভের কর্ণধার শারমিন কচি, স্টুডিও বর্ণিকের আলোকচিত্রী রাফি আজিম, ফ্যাশন হাউস চরকার কর্ণধার শায়লা সুলতানা, ফ্যাশন ডিজাইনার আকন্দ জাহিদ, ফ্যাশন হাউস সাদাকালোর স্বত্বাধিকারী আজহারুল হক আজাদ ও তাহসিনা শাহিন, রঙ বাংলাদেশের ডিজাইনার ও কর্ণধার সৌমিক দাস, ফ্যাশন হাউস নিত্য উপহারের কর্ণধার ও ফ্যাশন ডিজাইনার বাহার রহমান, ফ্যাশন হাউস অঞ্জন’স-এর কর্ণধার শাহিন আহমেদ, কনক দ্য জুয়েলারি প্যালেসের কর্ণধার লায়লা খায়ের কনক, ফ্যাশন হাউস আড়ংয়ের ডিজাইনার সৈয়দ মেহেদি হাসান, আকাক্সক্ষা’স গ্লামার ওয়ার্ল্ডের কর্ণধার ও বিউটি এক্সপার্ট জুলিয়া আজাদ, নিপুণ ক্রাফটের কর্ণধার ও ফ্যাশন ডিজাইনার আশরাফুর রহমান ফারুক, ভ্যালেন্টিনা বিউটি পার্লারের রূপবিশেষজ্ঞ সিনথিয়া, হার্বস-এর বিউটি এক্সপার্ট শাহিদা আফরিন মৌসুমি, এক্সট্রিম ইভেন্টের কর্ণধার এ কে রাসেল।

প্রাণবন্ত এ আড্ডায় আরও উপস্থিত ছিলেন জনপ্রিয় উপস্থাপক ও অভিনেতা ইমতু, মডেল কামরুল, তণু আনাম, দ্বিপ দেব, সাবরিনা তন্নী, ফয়সাল দ্বীপ, বারিশ হক ও জুয়েল, আলোকচিত্রী আশিক কবির ও পরিচালক আবু মতিন জামান। ঈদ ফ্যাশন আড্ডায় যুগান্তর পরিবারের সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সাব-এডিটর সেলিম কামাল, সাব-এডিটর লুবনা আহমেদ ও যাকারিয়া ইবনে ইউসুফ, আলোকচিত্রী মুনীর আহমেদ ও শরীফ মাহমুদ। সার্বিক সহযোগিতা করেছেন ঘরেবাইরের প্রদায়ক আঞ্জুমান আরা কেয়া ও ফারিন।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.