পাহাড়ে শান্তি বিনষ্টকারীদের ছাড় নয় : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্যরি বললেও ডিআইজি মিজানকে মাফ করা হবে না

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৬ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

‘পাহাড়ে শান্তি বিনষ্টকারীদের ছাড় দেয়া হবে না’ উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘যারা পাহাড়ের শান্তি বিনষ্ট করতে চায়, যারা উপজেলা চেয়ারম্যান হত্যাসহ ছয়জনকে হত্যায় জড়িত, তাদের খুঁজে বের করা হবে।’

স্বাধীনতার ৪৭ বছর পূর্তিতে ‘গৌরব ৭১’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান, গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা ও গুণীজন সম্মাননা-২০১৮ শীর্ষক অনুষ্ঠান শেষে এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। রাজধানীর বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ও বাংলা দর্পণের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। পাহাড়ের পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘পাহাড়ের শান্তির জন্য প্রধানমন্ত্রী শান্তিচুক্তি করেছিলেন। শান্তিচুক্তির বিভিন্ন দফা বাস্তবায়ন করা হয়েছে। আরও কিছু দফা পূরণে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’ ‘গত পরশু যাকে হত্যা করা হয়েছে এবং তার শেষকৃত্যানুষ্ঠানে যোগ দিতে যাওয়ার সময় শোকার্ত আরও পাঁচজনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। যারা এ দুষ্কর্মটি করেছে তাদের আমরা খুঁজে বের করবই।’

‘বাইরে থেকে এর আগেও পাহাড়ে গিয়ে অশান্তি সৃষ্টির পাঁয়তারা চলেছে, এবারও কি তাই’- এমন প্রশ্নের উত্তরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘পাহাড়কে কেন্দ্র করে বাংলাদেশবিরোধী ও শান্তি বিনষ্টকারী বেশক’টি চক্র চেষ্টা করছে, তাদের খুঁজে বের করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘জনগণ সচেতন, তারা জঙ্গি-সন্ত্রাসীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয় না। যে কোনো মূল্যে আমরা পাহাড়ের শান্তি রক্ষা করব। শান্তি বিনষ্ট হতে দেব না।’

‘আমি যে দেশে যাই সেখানেই প্রশ্ন করা হয়, তোমরা এত এগিয়ে যাচ্ছ কীভাবে? আমি উত্তরে বলি, আমার দেশের মানুষ গুণীজনদের সম্মান দিতে জানে। আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্নই ছিল অর্থনৈতিক শোষণমুক্ত বাংলাদেশ গড়া, স্বাধীন লেখনী ও মতপ্রকাশের দেশ গড়া।’

এক নারী সাংবাদিকের সঙ্গে কথোপকথনের জন্য ‘স্যরি’ বলেছেন ডিআইজি মিজান। এ বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘স্যরি’ বললেই কি পার পাওয়া যায়? ‘স্যরি’ বলে যদি মাফই পাওয়া যাবে তাহলে দেশে আইনকানুন থাকার কী দরকার! তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে। প্রমাণিত হলে ‘স্যরি’ বললেও তাকে মাফ করা হবে না, অবশ্যই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান সিনিয়র সচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, ‘বাংলাদেশকে আর আটকে রাখা সম্ভব নয়। দেশ এগিয়ে যাবেই। এবার সর্বোচ্চ বাজেট হবে। পৃথিবীর অন্যান্য দেশের জন্য বাংলাদেশ নজির স্থাপন করে চলেছে। আমাদের প্রত্যেকের জায়গায় থেকে কাজ করে যেতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘আজ যারা পুরস্কার বা সম্মাননা পেলেন, তারা সবাই নিজ নিজ জায়গায় উজ্জ্বল। তাদের লেখনী ও কর্ম আমাদের অনুপ্রাণিত করে।’ অনুষ্ঠানে ১০ ক্যাটাগরিতে ১০ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে সম্মাননা দেয়া হয়।

তনু হত্যা তদন্ত রিপোর্ট শিগগিরই : সাভার থেকে যুগান্তরের স্টাফ রিপোর্টার জানান, কুমিল্লায় কলেজছাত্রী সোহাগী জাহান তনু হত্যাকাণ্ডের উচ্চপর্যায়ে তদন্ত চলছে। শিগগিরই তদন্ত রিপোর্ট আলোর মুখ দেখবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি। তিনি বলেন, এই মামলার তদন্তে সিআইডিসহ কয়েকটি সংস্থা কাজ করছে। মন্ত্রী শনিবার আশুলিয়ার দত্তপাড়ায় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter