জাতীয় পার্টির এমপি মাসুদা রশীদ আর নেই
jugantor
জাতীয় পার্টির এমপি মাসুদা রশীদ আর নেই

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

শোক, শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় চিরবিদায় জানানো হয়েছে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী এমপিকে। অশ্রুসিক্ত নয়নে দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সহকর্মীরা বিদায় জানান তাকে। দলীয় পতাকা আর ফুলে ফুলে সুশোভিত হয়ে ওঠে গণমানুষের ভালোবাসার মাসুদা এম রশীদ চৌধুরীর কফিন বহনকারী গাড়ি।

সোমবার বাদ আসর কাকরাইলে জাতীয় পার্টি কেন্দ্রীয় কার্যালয় চত্বরে তার দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। দুপুর থেকেই দলের প্রয়াত এই নেত্রীকে বিদায় জানাতে জড়ো হতে থাকেন জাতীয় পার্টির শত শত নেতা-কর্মী। পার্টির যুগ্ম ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা ইসহারুল্লাহ আসিফ জানাজা পরিচালনা করেন।

এর আগে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের এমপি বলেন, মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী তার বর্ণাঢ্য জীবনে যেভাবে সম্মান পেয়েছেন, পরকালেও যেন তিনি মহান আল্লাহর মেহমান হয়ে সম্মানিত হন। তিনি বলেন, অসাধারণ ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী আজীবন গণমানুষের সেবায় নিয়োজিত ছিলেন। একজন জ্ঞানপিপাসু হিসাবে বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়াশোনা করেছেন। জীবনের একটি বড় অংশই শিক্ষকতা পেশায় থেকে জাতি গঠনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। তিনি জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী করতে আজীবন পরিশ্রম করেছেন। তার মৃত্যুতে জাতীয় পার্টির রাজনীতিতে যে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে তা সহসাই পূরণ হওয়ার নয়। জাতীয় পার্টির রাজনীতি ও মানব সেবায় তার গুরুত্বপূর্ণ অবদান স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে।

এ সময় অধ্যাপক মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী এমপির ছেলে ব্যারিস্টার সানজিদ রশীদ চৌধুরী তার মায়ের রূহের মাগফিরাত কামনায় দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

জানাজা শেষে জিএম কাদের পার্টির পক্ষ থেকে দলীয় পতাকা দিয়ে আচ্ছাদিত করেন মাসুদা এম রশীদ চৌধুরীর কফিনবাহী গাড়ি। এরপর তিনি পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদের পক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মো. মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপি। জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে ফুল দেন পার্টির কো-চেয়ারম্যান এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, জাতীয় মহিলা পার্টির পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সাবেক প্রতিমন্ত্রী, জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও জাতীয় মহিলা পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি। পরে ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপু এমপি, মো. সাহিদুর রহমান টেপা, ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি, রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, নাজমা আকতার এমপি, মো. এমরান হোসেন মিয়া, জহিরুল ইসলাম জহির, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা জহিরুল আলম রুবেল, হেনা খান পন্নি, নাজনীন সুলতানা, হারুন অর রশিদ, লাকী বেগম, ভাইস চেয়ারম্যান মো. আরিফুর রহমান খান, আহসান আদেলুর রহমান আদেল এমপি, শেখ আলমগীর হোসেন, এইচ এম শাহরিয়া আসিফ, যুগ্ম-মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, শাহিদা রহমান রিংকু, আব্দুল হামিদ ভাষানী, ফকরুল আহসান শাহজাদা, মো. বেলাল হোসেন, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য এবিএম লিয়াকত হোসেন চাকলাদার, মো. এনাম জয়নাল আবেদীন, মো. হুমায়ুন খান, আবু জায়েদ আল মাখান সরকার, আনোয়ার হোসেন তোতা, সৈয়দ ইফতেকার আহসান হাসান, মাহমুদা রহমান মুন্নি, সুলতান মাহমুদ, এমএ রাজ্জাক খান, জহিরুল ইসলাম মিন্টু, আহাদ ইউ চৌধুরী শাহীন, মিজানুর রহমান মিরু, যুগ্ম-সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মো. হেলাল উদ্দিন, আজহারুল ইসলাম সরকার, মো. জাকির হোসেন মৃধা, শারমিন পারভীন লিজা, তিতাস মোস্তফা, নুরুল হক নুরু, মাহমুদ আলম, সমরেশ মন্ডল মানিক, মীর সামশুল আলম লিপ্টন, কেন্দ্রীয় সদস্য মুহাম্মদ মাসুদুর রহমান চৌধুরী, মোতাহের হোসেন চৌধুরী রাশেদ, মো. রেজাউর রাজী স্বপন চৌধুরী, সামছুল হুদা মিয়া, কাজী মো. জামাল হোসেন, আবুল কালাম আজাদ টুলু, জিয়াউর রহমান বিপুল, মো. সোলায়মান সামি, তাসলিমা আকবর রুনা, মিনি খান, হুমায়ুন কবির শাওন, মো. আরিফুল ইসলাম রুবেল, জাতীয় মহিলা পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য রওশন আরা, সীমানা আমীর, আসমা আক্তার, জাতীয় তরুণ পার্টির সদস্য সচিব মোড়ল জিয়াউর রহমান, জাতীয় মৎস্যজীবী পার্টি নেতা মো. শফিকুল আজম মুকুল প্রমুখ।

মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী (৭০) রোববার রাতে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তিনি এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন।

জাতীয় পার্টির এমপি মাসুদা রশীদ আর নেই

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

শোক, শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় চিরবিদায় জানানো হয়েছে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী এমপিকে। অশ্রুসিক্ত নয়নে দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সহকর্মীরা বিদায় জানান তাকে। দলীয় পতাকা আর ফুলে ফুলে সুশোভিত হয়ে ওঠে গণমানুষের ভালোবাসার মাসুদা এম রশীদ চৌধুরীর কফিন বহনকারী গাড়ি।

সোমবার বাদ আসর কাকরাইলে জাতীয় পার্টি কেন্দ্রীয় কার্যালয় চত্বরে তার দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। দুপুর থেকেই দলের প্রয়াত এই নেত্রীকে বিদায় জানাতে জড়ো হতে থাকেন জাতীয় পার্টির শত শত নেতা-কর্মী। পার্টির যুগ্ম ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা ইসহারুল্লাহ আসিফ জানাজা পরিচালনা করেন।

এর আগে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের এমপি বলেন, মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী তার বর্ণাঢ্য জীবনে যেভাবে সম্মান পেয়েছেন, পরকালেও যেন তিনি মহান আল্লাহর মেহমান হয়ে সম্মানিত হন। তিনি বলেন, অসাধারণ ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী আজীবন গণমানুষের সেবায় নিয়োজিত ছিলেন। একজন জ্ঞানপিপাসু হিসাবে বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়াশোনা করেছেন। জীবনের একটি বড় অংশই শিক্ষকতা পেশায় থেকে জাতি গঠনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। তিনি জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী করতে আজীবন পরিশ্রম করেছেন। তার মৃত্যুতে জাতীয় পার্টির রাজনীতিতে যে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে তা সহসাই পূরণ হওয়ার নয়। জাতীয় পার্টির রাজনীতি ও মানব সেবায় তার গুরুত্বপূর্ণ অবদান স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে।

এ সময় অধ্যাপক মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী এমপির ছেলে ব্যারিস্টার সানজিদ রশীদ চৌধুরী তার মায়ের রূহের মাগফিরাত কামনায় দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

জানাজা শেষে জিএম কাদের পার্টির পক্ষ থেকে দলীয় পতাকা দিয়ে আচ্ছাদিত করেন মাসুদা এম রশীদ চৌধুরীর কফিনবাহী গাড়ি। এরপর তিনি পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদের পক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মো. মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপি। জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে ফুল দেন পার্টির কো-চেয়ারম্যান এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, জাতীয় মহিলা পার্টির পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সাবেক প্রতিমন্ত্রী, জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও জাতীয় মহিলা পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি। পরে ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপু এমপি, মো. সাহিদুর রহমান টেপা, ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি, রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, নাজমা আকতার এমপি, মো. এমরান হোসেন মিয়া, জহিরুল ইসলাম জহির, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা জহিরুল আলম রুবেল, হেনা খান পন্নি, নাজনীন সুলতানা, হারুন অর রশিদ, লাকী বেগম, ভাইস চেয়ারম্যান মো. আরিফুর রহমান খান, আহসান আদেলুর রহমান আদেল এমপি, শেখ আলমগীর হোসেন, এইচ এম শাহরিয়া আসিফ, যুগ্ম-মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, শাহিদা রহমান রিংকু, আব্দুল হামিদ ভাষানী, ফকরুল আহসান শাহজাদা, মো. বেলাল হোসেন, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য এবিএম লিয়াকত হোসেন চাকলাদার, মো. এনাম জয়নাল আবেদীন, মো. হুমায়ুন খান, আবু জায়েদ আল মাখান সরকার, আনোয়ার হোসেন তোতা, সৈয়দ ইফতেকার আহসান হাসান, মাহমুদা রহমান মুন্নি, সুলতান মাহমুদ, এমএ রাজ্জাক খান, জহিরুল ইসলাম মিন্টু, আহাদ ইউ চৌধুরী শাহীন, মিজানুর রহমান মিরু, যুগ্ম-সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মো. হেলাল উদ্দিন, আজহারুল ইসলাম সরকার, মো. জাকির হোসেন মৃধা, শারমিন পারভীন লিজা, তিতাস মোস্তফা, নুরুল হক নুরু, মাহমুদ আলম, সমরেশ মন্ডল মানিক, মীর সামশুল আলম লিপ্টন, কেন্দ্রীয় সদস্য মুহাম্মদ মাসুদুর রহমান চৌধুরী, মোতাহের হোসেন চৌধুরী রাশেদ, মো. রেজাউর রাজী স্বপন চৌধুরী, সামছুল হুদা মিয়া, কাজী মো. জামাল হোসেন, আবুল কালাম আজাদ টুলু, জিয়াউর রহমান বিপুল, মো. সোলায়মান সামি, তাসলিমা আকবর রুনা, মিনি খান, হুমায়ুন কবির শাওন, মো. আরিফুল ইসলাম রুবেল, জাতীয় মহিলা পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য রওশন আরা, সীমানা আমীর, আসমা আক্তার, জাতীয় তরুণ পার্টির সদস্য সচিব মোড়ল জিয়াউর রহমান, জাতীয় মৎস্যজীবী পার্টি নেতা মো. শফিকুল আজম মুকুল প্রমুখ।

মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী (৭০) রোববার রাতে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তিনি এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন