সিলেটে মাঠে মেলার সরঞ্জাম, সরাতে হাইকোর্টের নির্দেশ
jugantor
সিলেটে মাঠে মেলার সরঞ্জাম, সরাতে হাইকোর্টের নির্দেশ

  সিলেট ব্যুরো  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সিলেটের শাহজালাল উপশহরের আই ব্লকে একাডেমি খেলার মাঠে মেলার জন্য তৈরি সব ধরনের অবকাঠামো ৩০ দিনের মধ্যে অপসারণ করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

সিলেটের জেলা প্রশাসক, সিটি করপোরেশনের মেয়র, ২২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সিলেট মহানগর পুলিশ কমিশনারের প্রতি এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সোমবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

রিটকারী আইনজীবী চঞ্চল কুমার বিশ্বাস জানান, মার্চে একাডেমি খেলার মাঠে এক মাসের জন্য ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প মেলা করার জন্য তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটি এবং বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনকে (বিসিক) অনুমতি দেয় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত বিভাগ। তবে মেলার সময় শেষ হলেও একাডেমি খেলার মাঠে এখনো রয়ে গেছে মেলার স্টলের সরঞ্জাম। এ অবস্থায় মাঠে থাকা টিনশেড, সরঞ্জামাদিসহ অন্যান্য অবকাঠামো সরাতে সিটি করপোরেশনের মেয়রের কাছে আবেদন করেন শাহজালাল উপশহর একাডেমির সভাপতি এমএ ওয়াদুদ। এতে ফল না পেয়ে ১২ সেপ্টেম্বর তিনি রিটটি করেন।

আদালতে রিটের পক্ষে তার সঙ্গে শুনানি করেন আইনজীবী সৈয়দ ফজলে এলাহী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

প্রকাশিত সংবাদের ভিন্ন মত : ১১ সেপ্টেম্বর দৈনিক যুগান্তরে ‘সিলেটে একাডেমি মাঠে মেলার সরঞ্জাম নিয়ে বিপাকে কর্তৃপক্ষ’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের সঙ্গে ভিন্ন মত পোষণ করেছেন তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটির প্রধান নির্বাহী হিমাংশু মিত্র। তিনি দাবি করেন ‘তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটি’ এর বিরুদ্ধে কোনো মামলা নেই। তবে হিমাংশু মিত্র ও তার স্ত্রী অনিতা দাসগুপ্তার বিরুদ্ধে হবিগঞ্জ আদালতে বিচারাধীন প্রতারণা মামলাটি একান্ত ব্যক্তিগত সমস্যা বলে দাবি করেন তিনি।

প্রতিবেদকের বক্তব্য : মেলার সহ-আয়োজক তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটির প্রধান নির্বাহী হিমাংশু মিত্র ও তার স্ত্রীর সমন্বয়ক অনিতা দাসগুপ্তার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক মেলায় লোক পাঠানোর নামে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে করা প্রতারণা মামলা বিচারাধীন রয়েছে হবিগঞ্জের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে। শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভার মহলুল সুনাম এলাকার বাসিন্দা খলিলুর রহমান ইকবাল মামলাটি করেন। তিনি অভিযোগ করেন, ২০১৮ সালে কানাডা বাণিজ্য মেলায় পাঠানোর কথা বলে তার কাছ থেকে অভিযুক্তরা ৪ লাখ টাকা নেন।

সিলেটে মাঠে মেলার সরঞ্জাম, সরাতে হাইকোর্টের নির্দেশ

 সিলেট ব্যুরো 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সিলেটের শাহজালাল উপশহরের আই ব্লকে একাডেমি খেলার মাঠে মেলার জন্য তৈরি সব ধরনের অবকাঠামো ৩০ দিনের মধ্যে অপসারণ করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

সিলেটের জেলা প্রশাসক, সিটি করপোরেশনের মেয়র, ২২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সিলেট মহানগর পুলিশ কমিশনারের প্রতি এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সোমবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

রিটকারী আইনজীবী চঞ্চল কুমার বিশ্বাস জানান, মার্চে একাডেমি খেলার মাঠে এক মাসের জন্য ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প মেলা করার জন্য তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটি এবং বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনকে (বিসিক) অনুমতি দেয় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত বিভাগ। তবে মেলার সময় শেষ হলেও একাডেমি খেলার মাঠে এখনো রয়ে গেছে মেলার স্টলের সরঞ্জাম। এ অবস্থায় মাঠে থাকা টিনশেড, সরঞ্জামাদিসহ অন্যান্য অবকাঠামো সরাতে সিটি করপোরেশনের মেয়রের কাছে আবেদন করেন শাহজালাল উপশহর একাডেমির সভাপতি এমএ ওয়াদুদ। এতে ফল না পেয়ে ১২ সেপ্টেম্বর তিনি রিটটি করেন।

আদালতে রিটের পক্ষে তার সঙ্গে শুনানি করেন আইনজীবী সৈয়দ ফজলে এলাহী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

প্রকাশিত সংবাদের ভিন্ন মত : ১১ সেপ্টেম্বর দৈনিক যুগান্তরে ‘সিলেটে একাডেমি মাঠে মেলার সরঞ্জাম নিয়ে বিপাকে কর্তৃপক্ষ’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের সঙ্গে ভিন্ন মত পোষণ করেছেন তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটির প্রধান নির্বাহী হিমাংশু মিত্র। তিনি দাবি করেন ‘তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটি’ এর বিরুদ্ধে কোনো মামলা নেই। তবে হিমাংশু মিত্র ও তার স্ত্রী অনিতা দাসগুপ্তার বিরুদ্ধে হবিগঞ্জ আদালতে বিচারাধীন প্রতারণা মামলাটি একান্ত ব্যক্তিগত সমস্যা বলে দাবি করেন তিনি।

প্রতিবেদকের বক্তব্য : মেলার সহ-আয়োজক তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটির প্রধান নির্বাহী হিমাংশু মিত্র ও তার স্ত্রীর সমন্বয়ক অনিতা দাসগুপ্তার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক মেলায় লোক পাঠানোর নামে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে করা প্রতারণা মামলা বিচারাধীন রয়েছে হবিগঞ্জের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে। শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভার মহলুল সুনাম এলাকার বাসিন্দা খলিলুর রহমান ইকবাল মামলাটি করেন। তিনি অভিযোগ করেন, ২০১৮ সালে কানাডা বাণিজ্য মেলায় পাঠানোর কথা বলে তার কাছ থেকে অভিযুক্তরা ৪ লাখ টাকা নেন।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন