রাজশাহীতে বিলে অবমুক্ত করা হলো বালিহাঁস
jugantor
রাজশাহীতে বিলে অবমুক্ত করা হলো বালিহাঁস

  রাজশাহী ব্যুরো  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাজশাহীতে সাতটি বালিহাঁসের বাচ্চা উদ্ধার করে বিলে নিয়ে গিয়ে অবমুক্ত করা হয়েছে। বুধবার সকালে পবা উপজেলার গহমাবোনা এলাকার বিল ভেলায় বাচ্চাগুলোকে অবমুক্ত করা হয়। ওয়াইল্ড লাইফ রেঞ্জার হেলিন রায়হান, জুনিয়র ওয়াইল্ড লাইফ স্কাউট সোহেল রানা এবং বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের স্বেচ্ছাসেবকরা বাচ্চাগুলোকে পদ্ম-শাপলার পাতায় পাতায় রেখে আসেন।

বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের রাজশাহী বিভাগীয় বন কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান জানান, সোমবার রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার ব্রমপুর গ্রামে বাসা থেকে পড়ে গিয়েছিল কিছু বালিহাঁসের বাচ্চা। গ্রামের কয়েকজন ব্যক্তি তা দেখতে পেয়ে একটি-দুটি করে নিয়ে গিয়েছিলেন নিজ নিজ বাড়ি। খবর পেয়ে বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ বালিহাঁসের সাতটি বাচ্চা উদ্ধার করে। পরে বন্যপ্রাণী উদ্ধার ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে বাচ্চাগুলোকে পরিচর্যা করা হয়। বাচ্চাগুলো সুস্থ ও স্বাভাবিক প্রতিয়মান হওয়ায় বিলের উপযুক্ত প্রাকৃতিক পরিবেশে অবমুক্ত করা হলো।

তিনি আরও জানান, বালিহাঁসের বাচ্চাগুলোর বয়স ৮ থেকে ১০ দিন। সেগুলো এখন বিলের প্রাকৃতিক পরিবেশে টিকে থাকতে পারবে। এরা যাতে নিরাপদে থাকতে পারে, তা সার্বক্ষণিক তদারকি ও নজরদারি করবেন স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবকরা।

রাজশাহীতে বিলে অবমুক্ত করা হলো বালিহাঁস

 রাজশাহী ব্যুরো 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাজশাহীতে সাতটি বালিহাঁসের বাচ্চা উদ্ধার করে বিলে নিয়ে গিয়ে অবমুক্ত করা হয়েছে। বুধবার সকালে পবা উপজেলার গহমাবোনা এলাকার বিল ভেলায় বাচ্চাগুলোকে অবমুক্ত করা হয়। ওয়াইল্ড লাইফ রেঞ্জার হেলিন রায়হান, জুনিয়র ওয়াইল্ড লাইফ স্কাউট সোহেল রানা এবং বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের স্বেচ্ছাসেবকরা বাচ্চাগুলোকে পদ্ম-শাপলার পাতায় পাতায় রেখে আসেন।

বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের রাজশাহী বিভাগীয় বন কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান জানান, সোমবার রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার ব্রমপুর গ্রামে বাসা থেকে পড়ে গিয়েছিল কিছু বালিহাঁসের বাচ্চা। গ্রামের কয়েকজন ব্যক্তি তা দেখতে পেয়ে একটি-দুটি করে নিয়ে গিয়েছিলেন নিজ নিজ বাড়ি। খবর পেয়ে বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ বালিহাঁসের সাতটি বাচ্চা উদ্ধার করে। পরে বন্যপ্রাণী উদ্ধার ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে বাচ্চাগুলোকে পরিচর্যা করা হয়। বাচ্চাগুলো সুস্থ ও স্বাভাবিক প্রতিয়মান হওয়ায় বিলের উপযুক্ত প্রাকৃতিক পরিবেশে অবমুক্ত করা হলো।

তিনি আরও জানান, বালিহাঁসের বাচ্চাগুলোর বয়স ৮ থেকে ১০ দিন। সেগুলো এখন বিলের প্রাকৃতিক পরিবেশে টিকে থাকতে পারবে। এরা যাতে নিরাপদে থাকতে পারে, তা সার্বক্ষণিক তদারকি ও নজরদারি করবেন স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবকরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন