থানায় হাজির হয়ে নিজের বাল্যবিয়ে রুখল শিক্ষার্থী
jugantor
থানায় হাজির হয়ে নিজের বাল্যবিয়ে রুখল শিক্ষার্থী

  চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি  

২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চুয়াডাঙ্গায় নিজের বাল্যবিয়ে রুখতে অভিযোগ নিয়ে থানায় হাজির হলো এক মেধাবী শিক্ষার্থী। এই অভিশাপ থেকে মুক্তি পেতে এবং লেখাপড়া শিখে মানুষ হতে সাহায্য চাইল পুলিশের। তাৎক্ষণিক পুলিশ তার অভিভাবককে বুঝিয়ে এ থেকে রক্ষা করেছে তাকে। মঙ্গলবার সদর থানায় লিখিত অভিযোগ নিয়ে সরাসরি উপস্থিত হয় জেলা শহরের ঝিনুক মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থী।

ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান, বিজ্ঞান বিভাগের এই শিক্ষার্থী একজন চা দোকানির মেয়ে। মা একটি মুড়ির কারখানায় চাকরি করেন। সম্প্রতি তার খালা ও মা তাকে বিয়ের জন্য চাপ দেন। কিশোরী তাদের বারবার বুঝানো সত্ত্বেও তারা তাদের সিদ্ধান্তে অনড় থাকেন এবং পাত্র ঠিক করেন। উপায় না দেখে কিশোরী নিজেই থানায় এসে উপস্থিত হয়। পুলিশের একটি দল কিশোরীর বাসায় গিয়ে তার মা ও বাবাকে বুঝিয়ে বলার পর তারা তাদের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন এবং মেয়ের পড়াশোনা চালিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে সম্মত হন।

থানায় হাজির হয়ে নিজের বাল্যবিয়ে রুখল শিক্ষার্থী

 চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি 
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চুয়াডাঙ্গায় নিজের বাল্যবিয়ে রুখতে অভিযোগ নিয়ে থানায় হাজির হলো এক মেধাবী শিক্ষার্থী। এই অভিশাপ থেকে মুক্তি পেতে এবং লেখাপড়া শিখে মানুষ হতে সাহায্য চাইল পুলিশের। তাৎক্ষণিক পুলিশ তার অভিভাবককে বুঝিয়ে এ থেকে রক্ষা করেছে তাকে। মঙ্গলবার সদর থানায় লিখিত অভিযোগ নিয়ে সরাসরি উপস্থিত হয় জেলা শহরের ঝিনুক মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থী।

ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান, বিজ্ঞান বিভাগের এই শিক্ষার্থী একজন চা দোকানির মেয়ে। মা একটি মুড়ির কারখানায় চাকরি করেন। সম্প্রতি তার খালা ও মা তাকে বিয়ের জন্য চাপ দেন। কিশোরী তাদের বারবার বুঝানো সত্ত্বেও তারা তাদের সিদ্ধান্তে অনড় থাকেন এবং পাত্র ঠিক করেন। উপায় না দেখে কিশোরী নিজেই থানায় এসে উপস্থিত হয়। পুলিশের একটি দল কিশোরীর বাসায় গিয়ে তার মা ও বাবাকে বুঝিয়ে বলার পর তারা তাদের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন এবং মেয়ের পড়াশোনা চালিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে সম্মত হন।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন