স্বাধীনতা আন্দোলনের সূত্রপাত ঘটিয়েছে সংস্কৃতি কর্মীরাই: সেলিনা হোসেন
jugantor
স্বাধীনতা আন্দোলনের সূত্রপাত ঘটিয়েছে সংস্কৃতি কর্মীরাই: সেলিনা হোসেন

  মীরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  

২৮ নভেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

স্বাধীনতা আন্দোলনের সূত্রপাত ঘটিয়েছে সংস্কৃতি কর্মীরাই সেলিনা হোসেন

দৈনিক যুগান্তর স্বজন সমাবেশ ও স্থানীয় পাক্ষিক খবরিকার উদ্যোগে মীরসরাই উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে তৃতীয় আন্তর্জাতিক কবি সমাবেশ শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ‘কবিতায় বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক এবারের কবি সমাবেশের দ্বিতীয় অধিবেশনের উদ্বোধন করেন আন্তর্জাতিক লেখিকা কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। কথাসাহিত্যিক কাইয়ুম নিজামীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন কবি ও সাংবাদিক মাহবুব পলাশ এবং পুশকিন চৌধুরী। প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন।

সেলিনা হোসেন বলেন, বাংলা একাডেমি থেকে শুরু করে সর্বত্র সাহিত্য সংস্কৃতি কর্মীরাই শুরুতে সংগঠিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে ঐকমত্যে স্বাধীনতা আন্দোলনের সূত্রপাত ঘটিয়েছে। যার ফলে আজকের এই মহান স্বাধীন দেশ পেয়েছি। তিনি উপজেলা পর্যায়ে বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করে এমন একটি আয়োজনকে সাধুবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে সাদা মনের মানুষ হিসাবে সেলিনা হোসেন ও প্রফেসর ডা. জামশেদ আলমকে সম্মাননা দেওয়া হয়। স্মারক প্রকাশনা ‘এপার ওপার’ এবং ‘গানে গানে মাটির টানে’ কবিতা ও গীতিকাব্য গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন শেষে অতিথিদের মাঝে সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। সকালের অধিবেশনে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও শেষে পায়রা অবমুক্ত করে উদ্বোধন ঘোষণা করেছেন মীর সরাইয়ের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিনহাজুর রহমান। গীতিকবি ও প্রাবন্ধিক শাখাওয়াত উল্লাহর সভাপতিত্বে এবং রিপন গোপ পিন্টু ও নাজমুন ফারহার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কাজী মোস্তফা আলম এফসিএ। এতে বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন দৈনিক আজাদীর ফিচার এডিটর প্রদীপ দেওয়ানজী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক কবি হোসাইন কবির, কবি ও সাংবাদিক নেতা নাজিমুদ্দিন শ্যামল, ভারত থেকে আগত কবি ও সাংবাদিক দেবজ্যোতি কর্মকার, কলকাতার কবি সুব্রত পাল, নেপাল থেকে আগত কবি সুদীপ কুমার শাহ ও আক্তার হোসাইন, দৈনিক যুগান্তরের সহ-সম্পাদক রীতা ভৌমিক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর ভূঞা, মীরসরাই পৌরসভার মেয়র গিয়াস উদ্দিন, জোরারগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান মাস্টার রেজাউল করিম, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাফর ইকবাল, আবুল হোসেন প্রমুখ।

দ্বিতীয় পর্বে শুরুতে বাংলাদেশি, নেপালি ও ভারতীয় জাতীয় সংগীত পরিবেশনের পর বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয় জারি গান দিয়ে। তাছলিমা চৌধুরী সুরভীর রচনায় রণজিত ধরের সুরে দলীয় গান ও জারি পরিবেশন করেন মীরসরাই শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীরা। মারমা ভাষায় কবিতা আবৃত্তি করেন বান্দরবানের কবি উইন মং জলি ও আমিনুর রহমান প্রামাণিক, ইংরেজি ভাষায় প্রফেসর শিমুল ভৌমিক, ফারসি ভাষায় ফারহা, নেপালি ভাষায় সুদীপ শাহ ও হিন্দি ভাষায় দেবজ্যোতি। বাংলা ভাষায় আবৃত্তি করেন দেবাশিষ ভট্টাচার্য্য, বনশ্রী বড়ুয়া রুমী, শুক্কুর চৌধুরী, কেয়া চক্রবর্তী, মাহমুদ নজরুল, শাহাদাত হোসেন লিটন, মিনু মিত্র, মিলন সরকার, ফিরোজ উদ্দিন বাদল প্রমুখ। গীতিকবি শাখাওয়াত উল্লাহ রিপনের রচনায় শিল্পী আলাউদ্দিন তাহেরের সুরে গীতা আচার্য্য এবং বিপাশা ধর বীনার পরিবেশনায় বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

স্বাধীনতা আন্দোলনের সূত্রপাত ঘটিয়েছে সংস্কৃতি কর্মীরাই: সেলিনা হোসেন

 মীরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 
২৮ নভেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
স্বাধীনতা আন্দোলনের সূত্রপাত ঘটিয়েছে সংস্কৃতি কর্মীরাই সেলিনা হোসেন
ছবি: যুগান্তর

দৈনিক যুগান্তর স্বজন সমাবেশ ও স্থানীয় পাক্ষিক খবরিকার উদ্যোগে মীরসরাই উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে তৃতীয় আন্তর্জাতিক কবি সমাবেশ শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ‘কবিতায় বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক এবারের কবি সমাবেশের দ্বিতীয় অধিবেশনের উদ্বোধন করেন আন্তর্জাতিক লেখিকা কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। কথাসাহিত্যিক কাইয়ুম নিজামীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন কবি ও সাংবাদিক মাহবুব পলাশ এবং পুশকিন চৌধুরী। প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন।

সেলিনা হোসেন বলেন, বাংলা একাডেমি থেকে শুরু করে সর্বত্র সাহিত্য সংস্কৃতি কর্মীরাই শুরুতে সংগঠিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে ঐকমত্যে স্বাধীনতা আন্দোলনের সূত্রপাত ঘটিয়েছে। যার ফলে আজকের এই মহান স্বাধীন দেশ পেয়েছি। তিনি উপজেলা পর্যায়ে বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করে এমন একটি আয়োজনকে সাধুবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে সাদা মনের মানুষ হিসাবে সেলিনা হোসেন ও প্রফেসর ডা. জামশেদ আলমকে সম্মাননা দেওয়া হয়। স্মারক প্রকাশনা ‘এপার ওপার’ এবং ‘গানে গানে মাটির টানে’ কবিতা ও গীতিকাব্য গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন শেষে অতিথিদের মাঝে সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। সকালের অধিবেশনে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও শেষে পায়রা অবমুক্ত করে উদ্বোধন ঘোষণা করেছেন মীর সরাইয়ের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিনহাজুর রহমান। গীতিকবি ও প্রাবন্ধিক শাখাওয়াত উল্লাহর সভাপতিত্বে এবং রিপন গোপ পিন্টু ও নাজমুন ফারহার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কাজী মোস্তফা আলম এফসিএ। এতে বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন দৈনিক আজাদীর ফিচার এডিটর প্রদীপ দেওয়ানজী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক কবি হোসাইন কবির, কবি ও সাংবাদিক নেতা নাজিমুদ্দিন শ্যামল, ভারত থেকে আগত কবি ও সাংবাদিক দেবজ্যোতি কর্মকার, কলকাতার কবি সুব্রত পাল, নেপাল থেকে আগত কবি সুদীপ কুমার শাহ ও আক্তার হোসাইন, দৈনিক যুগান্তরের সহ-সম্পাদক রীতা ভৌমিক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর ভূঞা, মীরসরাই পৌরসভার মেয়র গিয়াস উদ্দিন, জোরারগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান মাস্টার রেজাউল করিম, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাফর ইকবাল, আবুল হোসেন প্রমুখ।

দ্বিতীয় পর্বে শুরুতে বাংলাদেশি, নেপালি ও ভারতীয় জাতীয় সংগীত পরিবেশনের পর বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয় জারি গান দিয়ে। তাছলিমা চৌধুরী সুরভীর রচনায় রণজিত ধরের সুরে দলীয় গান ও জারি পরিবেশন করেন মীরসরাই শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীরা। মারমা ভাষায় কবিতা আবৃত্তি করেন বান্দরবানের কবি উইন মং জলি ও আমিনুর রহমান প্রামাণিক, ইংরেজি ভাষায় প্রফেসর শিমুল ভৌমিক, ফারসি ভাষায় ফারহা, নেপালি ভাষায় সুদীপ শাহ ও হিন্দি ভাষায় দেবজ্যোতি। বাংলা ভাষায় আবৃত্তি করেন দেবাশিষ ভট্টাচার্য্য, বনশ্রী বড়ুয়া রুমী, শুক্কুর চৌধুরী, কেয়া চক্রবর্তী, মাহমুদ নজরুল, শাহাদাত হোসেন লিটন, মিনু মিত্র, মিলন সরকার, ফিরোজ উদ্দিন বাদল প্রমুখ। গীতিকবি শাখাওয়াত উল্লাহ রিপনের রচনায় শিল্পী আলাউদ্দিন তাহেরের সুরে গীতা আচার্য্য এবং বিপাশা ধর বীনার পরিবেশনায় বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন