বাংলাদেশ-ভারত আজ ১৮ দেশে মৈত্রী দিবস উদযাপন করবে
jugantor
বাংলাদেশ-ভারত আজ ১৮ দেশে মৈত্রী দিবস উদযাপন করবে

  কূটনৈতিক প্রতিবেদক  

০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশ ও ভারত আজ ৬ ডিসেম্বর সোমবার বিশ্বের ১৮ দেশে যৌথভাবে মৈত্রী দিবস উদযাপন করবে। এ লক্ষ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। রোববার ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়েছে। ১৯৭১ সালের এই দিনে দ্বিতীয় দেশ হিসাবে ভারত স্বাধীন সার্বভৌম দেশ হিসাবে বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দিয়েছিল। একই দিনে বাংলাদেশকে প্রথম স্বীকৃতি দেয় ভুটান। ২০২১ সালের মার্চে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী দিবসটিকে মৈত্রী দিবস হিসাবে ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ ও ভারতের দূতাবাস যৌথভাবে যে ১৮ দেশের রাজধানীতে মৈত্রী দিবস পালন করবে; ওই দেশগুলো হলো, অস্ট্রেলিয়া, ফ্রান্স, জাপান, মালয়েশিয়া, সৌদি আরব, দক্ষিণ আফ্রিকা, সুইজারল্যান্ড, থাইল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, বেলজিয়াম, কানাডা, মিসর, ইন্দোনেশিয়া, রাশিয়া, কাতার, সিঙ্গাপুর ও ব্রিটেন। এছাড়াও, দিল্লিতে বাংলাদেশ হাই কমিশন এবং ঢাকায় ভারতীয় হাই কমিশন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। মৈত্রী দিবসের যৌথ উদযাপনের এই সময়ে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী এবং বাংলাদেশ-ভারতের বন্ধুত্বের ৫০ বছর উদযাপিত হচ্ছে। কোনো কোনো দেশে কোভিডের নিষেধাজ্ঞার কারণে মৈত্রী দিবস পরবর্তীতে উদযাপিত হবে।

কর্মসূচির মধ্যে আছে বাংলাদেশ ও ভারতের মিশন প্রধানদের বক্তব্য, স্বাগতিক দেশের প্রধান অতিথির বক্তব্য, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বাংলাদেশ-ভারত দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের বিষয়ে প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন এবং উভয় দেশের খাদ্য দিয়ে অভ্যর্থনার আয়োজন। দুই দেশের সম্পর্কের ইতিহাস সংবলিত আলোকচিত্র প্রদর্শনী, সেমিনার কিংবা ওয়েবিনার আয়োজন।

বাংলাদেশ ও ভারত কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর উদযাপনে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। বঙ্গবন্ধু-বাপু ডিজিটাল প্রদর্শনী হয়েছে বাংলাদেশ ও ভারতের বিভিন্ন শহরে। জাপানে বাংলাদেশ দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যে, টোকিওস্থ বাংলাদেশ ও ভারতীয় দূতাবাস যৌথভাবে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের ৫০ বছর বা মৈত্রী দিবস উদযাপন করবে। ইতোমধ্যে দিবসটি সফলভাবে পালনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

বাংলাদেশ-ভারত আজ ১৮ দেশে মৈত্রী দিবস উদযাপন করবে

 কূটনৈতিক প্রতিবেদক 
০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশ ও ভারত আজ ৬ ডিসেম্বর সোমবার বিশ্বের ১৮ দেশে যৌথভাবে মৈত্রী দিবস উদযাপন করবে। এ লক্ষ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। রোববার ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়েছে। ১৯৭১ সালের এই দিনে দ্বিতীয় দেশ হিসাবে ভারত স্বাধীন সার্বভৌম দেশ হিসাবে বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দিয়েছিল। একই দিনে বাংলাদেশকে প্রথম স্বীকৃতি দেয় ভুটান। ২০২১ সালের মার্চে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী দিবসটিকে মৈত্রী দিবস হিসাবে ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ ও ভারতের দূতাবাস যৌথভাবে যে ১৮ দেশের রাজধানীতে মৈত্রী দিবস পালন করবে; ওই দেশগুলো হলো, অস্ট্রেলিয়া, ফ্রান্স, জাপান, মালয়েশিয়া, সৌদি আরব, দক্ষিণ আফ্রিকা, সুইজারল্যান্ড, থাইল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, বেলজিয়াম, কানাডা, মিসর, ইন্দোনেশিয়া, রাশিয়া, কাতার, সিঙ্গাপুর ও ব্রিটেন। এছাড়াও, দিল্লিতে বাংলাদেশ হাই কমিশন এবং ঢাকায় ভারতীয় হাই কমিশন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। মৈত্রী দিবসের যৌথ উদযাপনের এই সময়ে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী এবং বাংলাদেশ-ভারতের বন্ধুত্বের ৫০ বছর উদযাপিত হচ্ছে। কোনো কোনো দেশে কোভিডের নিষেধাজ্ঞার কারণে মৈত্রী দিবস পরবর্তীতে উদযাপিত হবে।

কর্মসূচির মধ্যে আছে বাংলাদেশ ও ভারতের মিশন প্রধানদের বক্তব্য, স্বাগতিক দেশের প্রধান অতিথির বক্তব্য, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বাংলাদেশ-ভারত দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের বিষয়ে প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন এবং উভয় দেশের খাদ্য দিয়ে অভ্যর্থনার আয়োজন। দুই দেশের সম্পর্কের ইতিহাস সংবলিত আলোকচিত্র প্রদর্শনী, সেমিনার কিংবা ওয়েবিনার আয়োজন।

বাংলাদেশ ও ভারত কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর উদযাপনে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। বঙ্গবন্ধু-বাপু ডিজিটাল প্রদর্শনী হয়েছে বাংলাদেশ ও ভারতের বিভিন্ন শহরে। জাপানে বাংলাদেশ দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যে, টোকিওস্থ বাংলাদেশ ও ভারতীয় দূতাবাস যৌথভাবে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের ৫০ বছর বা মৈত্রী দিবস উদযাপন করবে। ইতোমধ্যে দিবসটি সফলভাবে পালনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন