যমুনা পণ্যের ফ্রি হোম ডেলিভারি সাড়া ফেলেছে
jugantor
বাণিজ্য মেলার ২৩তম দিন
যমুনা পণ্যের ফ্রি হোম ডেলিভারি সাড়া ফেলেছে
খুশি ক্রেতারা * মেলায় খেলছে শিশুরা

  রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি  

২৪ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় অন্যসব পণ্যের পাশাপাশি যমুনা ইলেকট্রনিকস পণ্যও দেদার বিক্রি হচ্ছে। মেলার শুরুতে বিশেষ ছাড় ঘোষণায় যমুনা পণ্যের প্রতি ক্রেতাদের আকর্ষণ ছিল লক্ষ্যণীয়। এছাড়া দেশের যে কোনো প্রান্তে সব ধরনের পণ্যের ফ্রি ডেলিভারি ঘোষণায় খুশি ক্রেতারা। বাণিজ্য মেলায় যমুনা পণ্যের ফ্রি হোম ডেলিভারি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের স্থায়ী প্যাভিলিয়নে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৬তম আসর চলছে। রোববার ছিল মেলার ২৩তম দিন।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সরকার নির্দেশিত বিধিনিষেধ মেলা আয়োজনেও পালন করা হচ্ছে। তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করায় অসচেতন অভিভাবকরা শিশুদের নিয়ে বাণিজ্য মেলায় ভিড় করছেন। সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, মেলার প্রবেশপথ পেরুলেই রয়েছে শিশুদের বিনোদন ও খেলাধুলা করার বিশেষ রাইড। বর্ণিল আয়োজনে মেলা প্রাঙ্গণে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত শিশুদের খেলতে দেখা যায়। এতে শিশুরা আনন্দ পাচ্ছে। কাঞ্চন পৌরসভার কেন্দুয়া মায়ার বাড়ি এলাকার শিক্ষার্থী অর্পা সিকদার জানায়, স্কুল বন্ধ হওয়ায় মায়ের সঙ্গে বাণিজ্য মেলায় ঘুরতে এসেছি। এক শিক্ষার্থী জানায়, বাণিজ্য মেলায় আমাদের জন্য এমন আয়োজনে আমার খুবই ভালো লাগছে। তবে করোনার ভয়ও হচ্ছে।

মেলায় ঘুরতে আসা অভিভাবক গোয়ালপাড়া এলাকার সবুজ মিয়া বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, তবে মেলা চলছে। দেখলাম টিকেট কেটে শিশুদের জন্য রাইডের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এতে শিশুরা আনন্দ পাচ্ছে ঠিকই। কিন্তু আমরা দুশ্চিন্তায় আছি। মেলায় শিশুদের জন্য কোনো স্বাস্থ্যবিধি মানার ব্যবস্থা রাখা হয়নি। এ সব বিষয়ে মেলার পরিচালক ও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর সচিব ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী বলেন, মেলায় স্বাস্থ্যবিধি মানাতে পর্যাপ্ত টিম কাজ করছে। মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। শিশুদের রাইড জীবাণুমুক্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে দর্শনার্থীদেরও সচেতন হতে হবে। তাদের দায়িত্বশীল হওয়া জরুরি।

এবারের বাণিজ্য মেলায় যমুনা ইলেকট্রনিক্সের পণ্য ক্রেতাদের মন কেড়েছে। দেশের যে কোনো প্রান্তে যমুনার পণ্য ফ্রি হোম ডেলিভারি দেওয়ায় বিক্রিও হচ্ছে ব্যাপক। যমুনা ইলেকট্রনিক্সের কর্মকর্তা শরীফ আবদুল্লাহ চৌধুরী বলেন, মেলায় হোম এপ্লায়েন্সের সর্বাধিক বিক্রি পণ্যের তালিকায় যমুনার পণ্য রয়েছে। তিনি জানান, শতাধিক হোম ডেলিভারির ডিও প্রস্তুত করা হয়েছে।

বাণিজ্য মেলার ২৩তম দিন

যমুনা পণ্যের ফ্রি হোম ডেলিভারি সাড়া ফেলেছে

খুশি ক্রেতারা * মেলায় খেলছে শিশুরা
 রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি 
২৪ জানুয়ারি ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় অন্যসব পণ্যের পাশাপাশি যমুনা ইলেকট্রনিকস পণ্যও দেদার বিক্রি হচ্ছে। মেলার শুরুতে বিশেষ ছাড় ঘোষণায় যমুনা পণ্যের প্রতি ক্রেতাদের আকর্ষণ ছিল লক্ষ্যণীয়। এছাড়া দেশের যে কোনো প্রান্তে সব ধরনের পণ্যের ফ্রি ডেলিভারি ঘোষণায় খুশি ক্রেতারা। বাণিজ্য মেলায় যমুনা পণ্যের ফ্রি হোম ডেলিভারি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের স্থায়ী প্যাভিলিয়নে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৬তম আসর চলছে। রোববার ছিল মেলার ২৩তম দিন।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সরকার নির্দেশিত বিধিনিষেধ মেলা আয়োজনেও পালন করা হচ্ছে। তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করায় অসচেতন অভিভাবকরা শিশুদের নিয়ে বাণিজ্য মেলায় ভিড় করছেন। সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, মেলার প্রবেশপথ পেরুলেই রয়েছে শিশুদের বিনোদন ও খেলাধুলা করার বিশেষ রাইড। বর্ণিল আয়োজনে মেলা প্রাঙ্গণে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত শিশুদের খেলতে দেখা যায়। এতে শিশুরা আনন্দ পাচ্ছে। কাঞ্চন পৌরসভার কেন্দুয়া মায়ার বাড়ি এলাকার শিক্ষার্থী অর্পা সিকদার জানায়, স্কুল বন্ধ হওয়ায় মায়ের সঙ্গে বাণিজ্য মেলায় ঘুরতে এসেছি। এক শিক্ষার্থী জানায়, বাণিজ্য মেলায় আমাদের জন্য এমন আয়োজনে আমার খুবই ভালো লাগছে। তবে করোনার ভয়ও হচ্ছে।

মেলায় ঘুরতে আসা অভিভাবক গোয়ালপাড়া এলাকার সবুজ মিয়া বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, তবে মেলা চলছে। দেখলাম টিকেট কেটে শিশুদের জন্য রাইডের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এতে শিশুরা আনন্দ পাচ্ছে ঠিকই। কিন্তু আমরা দুশ্চিন্তায় আছি। মেলায় শিশুদের জন্য কোনো স্বাস্থ্যবিধি মানার ব্যবস্থা রাখা হয়নি। এ সব বিষয়ে মেলার পরিচালক ও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর সচিব ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী বলেন, মেলায় স্বাস্থ্যবিধি মানাতে পর্যাপ্ত টিম কাজ করছে। মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। শিশুদের রাইড জীবাণুমুক্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে দর্শনার্থীদেরও সচেতন হতে হবে। তাদের দায়িত্বশীল হওয়া জরুরি।

এবারের বাণিজ্য মেলায় যমুনা ইলেকট্রনিক্সের পণ্য ক্রেতাদের মন কেড়েছে। দেশের যে কোনো প্রান্তে যমুনার পণ্য ফ্রি হোম ডেলিভারি দেওয়ায় বিক্রিও হচ্ছে ব্যাপক। যমুনা ইলেকট্রনিক্সের কর্মকর্তা শরীফ আবদুল্লাহ চৌধুরী বলেন, মেলায় হোম এপ্লায়েন্সের সর্বাধিক বিক্রি পণ্যের তালিকায় যমুনার পণ্য রয়েছে। তিনি জানান, শতাধিক হোম ডেলিভারির ডিও প্রস্তুত করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন