অভয়নগরে শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা
jugantor
অভয়নগরে শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা
রাজশাহী ও লালপুরে ২ নারীকে ধর্ষণ

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৯ আগস্ট ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যশোরের অভয়নগরে এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া রাজশাহী ও নাটোরের লালপুরে দুই নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

অভয়নগর (যশোর) : অভয়নগর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের শফি কামালের মাছের ঘের এলাকায় রোববার রাতে ধর্ষণের পর হত্যার এ ঘটনা ঘটে। নিহত শিশুর বাবা বলেন, আমার মেয়ে রোববার বিকালে বাড়ির পাশে খেলা করতে বের হওয়ার পর সন্ধ্যায় বাড়িতে না ফিরলে তাকে খুঁজতে শুরু করি। রাত সাড়ে ১০টায় শফি কামালের মাছের ঘেরের কচুরিপানা দিয়ে ঢাকা অবস্থায় তাকে দেখতে পাই। থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ওই রাতেই মেয়েটির লাশ উদ্ধার করে। ওই শিশুর ভাই জানান, তার বোনকে ধর্ষণ করে হত্যা করে লাশ গুম করার চেষ্টা করা হয়েছে।

অভয়নগর থানা পুলিশ জানায়, লাশ উদ্ধার করে সোমবার সকালে যশোর মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে একজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাছাড়া ঘটনা তদন্তে ইতোমধ্যে যশোর পুলিশ ইনভেস্টিগেশন ব্যুরো (পিবিআই) কাজ শুরু করেছে। অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম শামীম হাসান জানান, শিশু মেয়েটির লাশের ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে বলা যাবে মৃত্যু কীভাবে হয়েছে।

রাজশাহী : রাজশাহীতে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের এক কর্মকর্তা অধীনস্থ নারী কর্মচারীদের শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করতেন। কাজের নামে কৌশলে ভাড়া বাসায় নিয়ে গিয়ে নারীদের ধর্ষণও করতেন। এমন অভিযোগে ওই কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। তার বিরুদ্ধে অন্তত দুজন নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ পেয়েছে র‌্যাব। এই কর্মকর্তার নাম আবদুল্লাহ আল কাফী। তিনি ই-কাইট ইলেকট্রনিক্স নামের একটি কোম্পানির আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক। রাজশাহীর তানোর উপজেলার গভিরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা তিনি। তবে তিনি ভাড়া থাকেন রাজশাহী মহানগরীর আলিফ লাম মীম ভাটার মোড়ের একটি ভবনের তৃতীয় তলায়। রোববার রাতে র‌্যাব-৫, রাজশাহীর মোল্লাপাড়া ক্যাম্পে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ধর্ষণের ফলে এক নারী গুরুতর অসুস্থ হয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। চিকিৎসা শেষে তিনি র‌্যাব-৫-এ অভিযোগ করেন। এরপর রোববার বিকালে অফিসের তৃতীয় তলায় কাফীর ভাড়া বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার কক্ষ তল্লাশি করে খালি বিয়ার ক্যান, যৌনবর্ধক স্প্রে, জন্ম নিয়ন্ত্রণ সামগ্রী এবং এক ভিকটিমের হাতের ব্রেসলেট জব্দ করা হয়।

লালপুর (নাটোর) : লালপুরে প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে মাজদার রহমান নামের এক ডাকঘরের নৈশ প্রহরীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় তাকে নাটোর আদালতে পাঠানো হয়েছে। রোববার বিকালে লালপুর থানা পুলিশ গোপালপুর বাজার থেকে তাকে আটক করে। রোববার ওই প্রতিবন্ধীর মা বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ করেন। এ বিষয়ে ওই নৈশ প্রহরীর ছেলে সাইফুল ইসলাম বলেন, আমার বাবার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দেওয়া হয়েছে।

অভয়নগরে শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা

রাজশাহী ও লালপুরে ২ নারীকে ধর্ষণ
 যুগান্তর ডেস্ক 
০৯ আগস্ট ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যশোরের অভয়নগরে এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া রাজশাহী ও নাটোরের লালপুরে দুই নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

অভয়নগর (যশোর) : অভয়নগর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের শফি কামালের মাছের ঘের এলাকায় রোববার রাতে ধর্ষণের পর হত্যার এ ঘটনা ঘটে। নিহত শিশুর বাবা বলেন, আমার মেয়ে রোববার বিকালে বাড়ির পাশে খেলা করতে বের হওয়ার পর সন্ধ্যায় বাড়িতে না ফিরলে তাকে খুঁজতে শুরু করি। রাত সাড়ে ১০টায় শফি কামালের মাছের ঘেরের কচুরিপানা দিয়ে ঢাকা অবস্থায় তাকে দেখতে পাই। থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ওই রাতেই মেয়েটির লাশ উদ্ধার করে। ওই শিশুর ভাই জানান, তার বোনকে ধর্ষণ করে হত্যা করে লাশ গুম করার চেষ্টা করা হয়েছে।

অভয়নগর থানা পুলিশ জানায়, লাশ উদ্ধার করে সোমবার সকালে যশোর মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে একজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাছাড়া ঘটনা তদন্তে ইতোমধ্যে যশোর পুলিশ ইনভেস্টিগেশন ব্যুরো (পিবিআই) কাজ শুরু করেছে। অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম শামীম হাসান জানান, শিশু মেয়েটির লাশের ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে বলা যাবে মৃত্যু কীভাবে হয়েছে।

রাজশাহী : রাজশাহীতে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের এক কর্মকর্তা অধীনস্থ নারী কর্মচারীদের শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করতেন। কাজের নামে কৌশলে ভাড়া বাসায় নিয়ে গিয়ে নারীদের ধর্ষণও করতেন। এমন অভিযোগে ওই কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। তার বিরুদ্ধে অন্তত দুজন নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ পেয়েছে র‌্যাব। এই কর্মকর্তার নাম আবদুল্লাহ আল কাফী। তিনি ই-কাইট ইলেকট্রনিক্স নামের একটি কোম্পানির আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক। রাজশাহীর তানোর উপজেলার গভিরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা তিনি। তবে তিনি ভাড়া থাকেন রাজশাহী মহানগরীর আলিফ লাম মীম ভাটার মোড়ের একটি ভবনের তৃতীয় তলায়। রোববার রাতে র‌্যাব-৫, রাজশাহীর মোল্লাপাড়া ক্যাম্পে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ধর্ষণের ফলে এক নারী গুরুতর অসুস্থ হয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। চিকিৎসা শেষে তিনি র‌্যাব-৫-এ অভিযোগ করেন। এরপর রোববার বিকালে অফিসের তৃতীয় তলায় কাফীর ভাড়া বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার কক্ষ তল্লাশি করে খালি বিয়ার ক্যান, যৌনবর্ধক স্প্রে, জন্ম নিয়ন্ত্রণ সামগ্রী এবং এক ভিকটিমের হাতের ব্রেসলেট জব্দ করা হয়।

লালপুর (নাটোর) : লালপুরে প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে মাজদার রহমান নামের এক ডাকঘরের নৈশ প্রহরীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় তাকে নাটোর আদালতে পাঠানো হয়েছে। রোববার বিকালে লালপুর থানা পুলিশ গোপালপুর বাজার থেকে তাকে আটক করে। রোববার ওই প্রতিবন্ধীর মা বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ করেন। এ বিষয়ে ওই নৈশ প্রহরীর ছেলে সাইফুল ইসলাম বলেন, আমার বাবার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দেওয়া হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন