জাহাজের ধাক্কার ভয়ে যমুনায় ৩ যুবকের ঝাঁপ, নিখোঁজ ২
jugantor
নদীতীরে আহাজারি
জাহাজের ধাক্কার ভয়ে যমুনায় ৩ যুবকের ঝাঁপ, নিখোঁজ ২

  পাবনা ও সাঁথিয়া প্রতিনিধি  

০৩ অক্টোবর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পাবনার বেড়া উপজেলার নগরবাড়ি বন্দরে যমুনা নদীতে জাহাজের ধাক্কার ভয়ে নৌকা থেকে তিন যুবক ঝাঁপ দেওয়ার পর দুজন নিখোঁজ হয়েছেন। ফায়ার সার্ভিস ও ডুবুরির দল ২৪ ঘণ্টা অভিযান চালিয়েও তাদের উদ্ধার করতে পারেনি। নগরবাড়ী ঘাটে শনিবার দুপুরে নিখোঁজ হওয়া দুই যুবক হলেন সাঁথিয়া উপজেলার ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নের ভৈরবপুর গ্রামের মৃত আক্কাছ সর্দারের ছেলে পান্না সর্দার (২৮) ও সুজানগর উপজেলার কোলচুড়ি গ্রামের আমিরুল সেখের ছেলে আশিক ওরফে পিয়াস সেখ (২০)। তারা সম্পর্কে খালাতো ভাই। এদিকে এখনো নদীতীরে নিখোঁজদের পাওয়ার আশায় স্বজনরা আহাজারি করছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নগরবাড়ী ঘাট ও বন্দরসংলগ্ন রঘুনাথপুর গ্রামে নজরুল ইসলাম সেখের বাড়িতে পান্না ও আশিক বেড়াতে যান। শনিবার ছেলেপক্ষের বাড়ির বিয়ের অনুষ্ঠানে তাদের যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এর আগে তারা একটি নৌকা নিয়ে যমুনা নদীতে ঘুরতে যান। এসময় তাদের সঙ্গে কাওছার আলী সেখ নামের এক আত্মীয়ও ছিলেন। একপর্যায়ে তারা বেড়ানো শেষ করে তীরে ফেরার পথে মালবোঝাই একটি জাহাজ নগরবাড়ী ঘাটের দিকে আসছিল। দ্রুতগামী জাহাজটি তাদের নৌকার কাছাকাছি চলে এলে তারা তিনজন ভয়ে নৌকা থেকে লাফ দেন। স্রোতে তলিয়ে যাওয়ার সময় কাওছারকে জাহাজের লোকজন উদ্ধার করেন। এদিকে সাঁতার না জানা আশিককে পান্না উদ্ধার করে আনার সময় মুহূর্তেই দুজন তলিয়ে যান। এতে জাহাজের লোকজন তাদের উদ্ধার করতে পারেননি। পরে স্থানীয় লোকজন ও স্বজনরা নৌকা নিয়ে দিনভর খোঁজাখুঁজি করেও তাদের সন্ধান পাননি।

খবর পেয়ে নগরবাড়ী নৌপুলিশ ফাঁড়ির একটি টিম ও বেড়া থেকে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছান। তারাও স্থানীয়দের সঙ্গে সন্ধান চালান। কিন্তু তাদের খোঁজ পাওয়া যায়নি। বিকালে রাজশাহী থেকে একটি ডুবুরি দল এসে তাদের উদ্ধারে চেষ্টা করে। কিন্তু রোববার সকাল পর্যন্ত তাদের সন্ধান না পেয়ে ডুবুরি দল ফিরে যায়। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন নগরবাড়ী নৌপুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম।

নদীতীরে আহাজারি

জাহাজের ধাক্কার ভয়ে যমুনায় ৩ যুবকের ঝাঁপ, নিখোঁজ ২

 পাবনা ও সাঁথিয়া প্রতিনিধি 
০৩ অক্টোবর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পাবনার বেড়া উপজেলার নগরবাড়ি বন্দরে যমুনা নদীতে জাহাজের ধাক্কার ভয়ে নৌকা থেকে তিন যুবক ঝাঁপ দেওয়ার পর দুজন নিখোঁজ হয়েছেন। ফায়ার সার্ভিস ও ডুবুরির দল ২৪ ঘণ্টা অভিযান চালিয়েও তাদের উদ্ধার করতে পারেনি। নগরবাড়ী ঘাটে শনিবার দুপুরে নিখোঁজ হওয়া দুই যুবক হলেন সাঁথিয়া উপজেলার ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নের ভৈরবপুর গ্রামের মৃত আক্কাছ সর্দারের ছেলে পান্না সর্দার (২৮) ও সুজানগর উপজেলার কোলচুড়ি গ্রামের আমিরুল সেখের ছেলে আশিক ওরফে পিয়াস সেখ (২০)। তারা সম্পর্কে খালাতো ভাই। এদিকে এখনো নদীতীরে নিখোঁজদের পাওয়ার আশায় স্বজনরা আহাজারি করছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নগরবাড়ী ঘাট ও বন্দরসংলগ্ন রঘুনাথপুর গ্রামে নজরুল ইসলাম সেখের বাড়িতে পান্না ও আশিক বেড়াতে যান। শনিবার ছেলেপক্ষের বাড়ির বিয়ের অনুষ্ঠানে তাদের যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এর আগে তারা একটি নৌকা নিয়ে যমুনা নদীতে ঘুরতে যান। এসময় তাদের সঙ্গে কাওছার আলী সেখ নামের এক আত্মীয়ও ছিলেন। একপর্যায়ে তারা বেড়ানো শেষ করে তীরে ফেরার পথে মালবোঝাই একটি জাহাজ নগরবাড়ী ঘাটের দিকে আসছিল। দ্রুতগামী জাহাজটি তাদের নৌকার কাছাকাছি চলে এলে তারা তিনজন ভয়ে নৌকা থেকে লাফ দেন। স্রোতে তলিয়ে যাওয়ার সময় কাওছারকে জাহাজের লোকজন উদ্ধার করেন। এদিকে সাঁতার না জানা আশিককে পান্না উদ্ধার করে আনার সময় মুহূর্তেই দুজন তলিয়ে যান। এতে জাহাজের লোকজন তাদের উদ্ধার করতে পারেননি। পরে স্থানীয় লোকজন ও স্বজনরা নৌকা নিয়ে দিনভর খোঁজাখুঁজি করেও তাদের সন্ধান পাননি।

খবর পেয়ে নগরবাড়ী নৌপুলিশ ফাঁড়ির একটি টিম ও বেড়া থেকে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছান। তারাও স্থানীয়দের সঙ্গে সন্ধান চালান। কিন্তু তাদের খোঁজ পাওয়া যায়নি। বিকালে রাজশাহী থেকে একটি ডুবুরি দল এসে তাদের উদ্ধারে চেষ্টা করে। কিন্তু রোববার সকাল পর্যন্ত তাদের সন্ধান না পেয়ে ডুবুরি দল ফিরে যায়। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন নগরবাড়ী নৌপুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন