আ.লীগ নেতাকর্মীদের চাঙা করতে যাচ্ছেন কেন্দ্রীয় নেতারা
jugantor
রংপুর সিটি নির্বাচন
আ.লীগ নেতাকর্মীদের চাঙা করতে যাচ্ছেন কেন্দ্রীয় নেতারা

  রংপুর ব্যুরো  

০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা শুরু না হলেও রংপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন জমে উঠেছে। দলীয় মেয়রপ্রার্থীর প্রচারে অংশ নিতে রংপুর আসছেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে দুই ডজনের বেশি নেতা। দলীয় নেতাকর্মীদের মনোবল চাঙা করতে এবং মাঠ পর্যায়ে কর্মীদের নামানোর অনুপ্রেরণা দিতে তারা আসছেন বলে জানা গেছে।

দলীয় সূত্র জানায়, ১০ ডিসেম্বরের পর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা, কেন্দ্রীয় যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ ও ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন পর্যায়ের অর্ধশতাধিক নেতা রংপুরে আসবেন। নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করার বিষয়ে তারা নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করবেন। জনগণের কাছে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে তারা নৌকায় ভোট চাইবেন। দলের মধ্যে যে বিভেদ অথবা মান-অভিমান রয়েছে, তারা তা দূর করবেন। আওয়ামী লীগের প্রায় অর্ধডজন নেতা মেয়র পদপ্রত্যাশী ছিলেন। বিভিন্ন সভা-সমাবেশ করে তারা জনগণের কাছে নিজেদের মেয়রপ্রার্থী হিসাবে তুলে ধরেছিলেন। কিন্তু অপ্রত্যাশিতভাবে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া নৌকার মনোনয়ন পান। এতে মনোনয়নপ্রত্যাশীসহ অনেকে অসন্তোষ প্রকাশ করেন। এ কারণে অনেকের মধ্যেই গা ছাড়াভাব দেখা যায়। কেউ কেউ নিরাপদ দূরত্ব রেখে চলছেন। এদিকে মনোনয়নবঞ্চিত মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আতাউজ্জামান বাবু স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। কোতোয়ালি থানা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি লতিফুর রহমান মিলনও স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন।

এ ব্যাপারে মনোনয়নপ্রত্যাশী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মণ্ডল জানান, দল তাকে মনোনয়ন না দেওয়ায় তিনি হতাশ নন। প্রধানমন্ত্রী যাকে ভালো মনে করেছেন, তাকে মনোনয়ন দিয়েছেন। এর বাইরে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

রংপুরে আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ। নৌকাকে বিজয়ী করতে রংপুরবাসী মুখিয়ে আছে। কারণ রংপুরবাসী উন্নয়নে বিশ্বাসী। মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিউর রহমান সফি বলেন, এখন আমাদের লক্ষ্য নৌকার প্রার্থী, শেখ হাসিনার প্রার্থীকে বিজয়ী করা।

রংপুর সিটি নির্বাচন

আ.লীগ নেতাকর্মীদের চাঙা করতে যাচ্ছেন কেন্দ্রীয় নেতারা

 রংপুর ব্যুরো 
০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা শুরু না হলেও রংপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন জমে উঠেছে। দলীয় মেয়রপ্রার্থীর প্রচারে অংশ নিতে রংপুর আসছেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে দুই ডজনের বেশি নেতা। দলীয় নেতাকর্মীদের মনোবল চাঙা করতে এবং মাঠ পর্যায়ে কর্মীদের নামানোর অনুপ্রেরণা দিতে তারা আসছেন বলে জানা গেছে।

দলীয় সূত্র জানায়, ১০ ডিসেম্বরের পর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা, কেন্দ্রীয় যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ ও ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন পর্যায়ের অর্ধশতাধিক নেতা রংপুরে আসবেন। নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করার বিষয়ে তারা নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করবেন। জনগণের কাছে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে তারা নৌকায় ভোট চাইবেন। দলের মধ্যে যে বিভেদ অথবা মান-অভিমান রয়েছে, তারা তা দূর করবেন। আওয়ামী লীগের প্রায় অর্ধডজন নেতা মেয়র পদপ্রত্যাশী ছিলেন। বিভিন্ন সভা-সমাবেশ করে তারা জনগণের কাছে নিজেদের মেয়রপ্রার্থী হিসাবে তুলে ধরেছিলেন। কিন্তু অপ্রত্যাশিতভাবে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া নৌকার মনোনয়ন পান। এতে মনোনয়নপ্রত্যাশীসহ অনেকে অসন্তোষ প্রকাশ করেন। এ কারণে অনেকের মধ্যেই গা ছাড়াভাব দেখা যায়। কেউ কেউ নিরাপদ দূরত্ব রেখে চলছেন। এদিকে মনোনয়নবঞ্চিত মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আতাউজ্জামান বাবু স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। কোতোয়ালি থানা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি লতিফুর রহমান মিলনও স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন।

এ ব্যাপারে মনোনয়নপ্রত্যাশী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মণ্ডল জানান, দল তাকে মনোনয়ন না দেওয়ায় তিনি হতাশ নন। প্রধানমন্ত্রী যাকে ভালো মনে করেছেন, তাকে মনোনয়ন দিয়েছেন। এর বাইরে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

রংপুরে আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ। নৌকাকে বিজয়ী করতে রংপুরবাসী মুখিয়ে আছে। কারণ রংপুরবাসী উন্নয়নে বিশ্বাসী। মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিউর রহমান সফি বলেন, এখন আমাদের লক্ষ্য নৌকার প্রার্থী, শেখ হাসিনার প্রার্থীকে বিজয়ী করা।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন