টিশার্ট ছিঁড়ে প্রতিবাদ ‘ক্ষুধা লাগছে ভাত চাই’
jugantor
টিশার্ট ছিঁড়ে প্রতিবাদ ‘ক্ষুধা লাগছে ভাত চাই’

  জসিম উদ্দিন, কক্সবাজার  

০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টা। সভা মঞ্চে শুধুই ভাষণ দেওয়া শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঠিক সেই সময়ে মঞ্চের উত্তর পাশের গণমাধ্যম কর্মীদের জন্য নির্ধারিত গ্যালারির পূর্ব দিক থেকে ‘ক্ষুধা লাগছে, ভাত চাই’ স্লোগান ওঠে। হলুদ টিশার্ট ও হলুদ ক্যাপ পরিহিত একদল যুবক এই স্লোগান দিতে থাকলে জনসভা মঞ্চে উপস্থিত নেতারা হতবিহবল হয়ে পড়েন। তালির সঙ্গে তাল মিলিয়ে ৫ মিনিট চলে তাদের এই স্লোগান। এই সময় তারা পানির খালি বোতল এদিক-সেদিক ছোড়াছুড়ি করেন। একজন এমপির নাম ধরে গালাগাল করেন তারা। এদের টিশার্ট ছিঁড়ে ফেলতে দেখা যায়। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যরা এসে তাদের শান্ত করেন।

এ বিষয়ে এক যুবক যুগান্তরকে বলেন, সকাল ১০টায় আমাদের সভাস্থলে আনা হয়েছে। সেই থেকে ভাত, নাস্তা অনেক দূরের বিষয়; পানিও পাইনি। তার এই বক্তব্য সমর্থন করেন কক্সবাজার জেলা যুবলীগের এক সদস্য। তিনি বলেন, প্রশাসনের কড়াকড়ি, সভাস্থলে শামিয়ানা না থাকা, প্রবেশ করলে বের হতে না পারাসহ খাবার ও পানি সংকটের কারণে বেশিরভাগ লোকজন সভাস্থলে যাননি। তারা রাস্তাতেই অবস্থান করে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ শুনেছেন।

টিশার্ট ছিঁড়ে প্রতিবাদ ‘ক্ষুধা লাগছে ভাত চাই’

 জসিম উদ্দিন, কক্সবাজার 
০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টা। সভা মঞ্চে শুধুই ভাষণ দেওয়া শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঠিক সেই সময়ে মঞ্চের উত্তর পাশের গণমাধ্যম কর্মীদের জন্য নির্ধারিত গ্যালারির পূর্ব দিক থেকে ‘ক্ষুধা লাগছে, ভাত চাই’ স্লোগান ওঠে। হলুদ টিশার্ট ও হলুদ ক্যাপ পরিহিত একদল যুবক এই স্লোগান দিতে থাকলে জনসভা মঞ্চে উপস্থিত নেতারা হতবিহবল হয়ে পড়েন। তালির সঙ্গে তাল মিলিয়ে ৫ মিনিট চলে তাদের এই স্লোগান। এই সময় তারা পানির খালি বোতল এদিক-সেদিক ছোড়াছুড়ি করেন। একজন এমপির নাম ধরে গালাগাল করেন তারা। এদের টিশার্ট ছিঁড়ে ফেলতে দেখা যায়। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যরা এসে তাদের শান্ত করেন।

এ বিষয়ে এক যুবক যুগান্তরকে বলেন, সকাল ১০টায় আমাদের সভাস্থলে আনা হয়েছে। সেই থেকে ভাত, নাস্তা অনেক দূরের বিষয়; পানিও পাইনি। তার এই বক্তব্য সমর্থন করেন কক্সবাজার জেলা যুবলীগের এক সদস্য। তিনি বলেন, প্রশাসনের কড়াকড়ি, সভাস্থলে শামিয়ানা না থাকা, প্রবেশ করলে বের হতে না পারাসহ খাবার ও পানি সংকটের কারণে বেশিরভাগ লোকজন সভাস্থলে যাননি। তারা রাস্তাতেই অবস্থান করে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ শুনেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন