জামায়াতকে নিয়ে বেকায়দায় বিএনপি

  রাজশাহী ব্যুরো ২৪ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জামায়াতকে নিয়ে বেকায়দায় বিএনপি

আসন্ন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন (রাসিক) নির্বাচনে জামায়াতকে নিয়ে বেকায়দায় রয়েছে বিএনপি। রাজশাহীতে অতীতের নির্বাচনগুলোতে বিএনপিকে ছাড় না দিয়ে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ভোট পেয়েছে জামায়াত।

অতীতের এ সাফল্যে কিছুটা হলেও জামায়াত নেতাকর্মীরা উজ্জীবিত। এ কারণে রাজশাহী সিটিতে মেয়র পদে নিজেদের প্রার্থী দিতে চাইছেন সংগঠনটির নেতাকর্মীরা।

কিন্তু জামায়াতের প্রধান রাজনৈতিক মিত্র বিএনপি এ ব্যাপারে ছাড় দিতে নারাজ। বিএনপি নেতাকর্মীদের বক্তব্য, রাজশাহীতে বিএনপির জনসমর্থন অত্যন্ত শক্তিশালী।

নির্বাচনে জেতার জন্য জামায়াতকে ছাড় দেয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। ফলে রাজশাহীতে স্থানীয় বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের মধ্যে মনোনয়ন নিয়ে দ্বন্দ্ব দেখা দিয়েছে। এ কারণে নির্বাচন নিয়ে স্থানীয়ভাবে জটিলতার মধ্যে পড়েছে বিএনপি।

ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয়ভাবে তিনটি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২০ দলীয় জোট মেয়র পদে একক প্রার্থী দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে। কিন্তু রাজশাহীর স্থানীয় জামায়াত নেতাকর্মীরা এ ঐক্য মানতে চাইছেন না।

এ ব্যাপারে তারা দ্বিমত পোষণ করছেন। তাদের বক্তব্য, দীর্ঘদিন থেকেই রাজশাহীতে জামায়াত সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী। জিয়াউর রহমানের সময় থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত সংসদ এবং স্থানীয় সরকার নির্বাচনে জামায়াত সাফল্যের প্রমাণ দিয়েছে।

বর্তমান পরিবর্তিত রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে জামায়াতের মাঠে কর্মসূচি না থাকলেও গোপনে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী। তাই ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে সিলেট এবং বরিশালে ছাড় দিলেও রাজশাহীতে মেয়র পদে বিএনপির জামায়াতকে ছাড় দেয়া উচিত।

রাজশাহী মহানগর জামায়াতের নায়েবে আমীর আবু মোহাম্মদ সেলিম বলেন, রাজশাহীতে জামায়াত শক্তিশালী এটা প্রমাণিত। আমরা আওয়ামী লীগ সরকারের প্রতিহিংসার রাজনীতির শিকার।

এ কারণে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড থেকে বিরত রয়েছি। কিন্তু আমাদের দলের প্রতি জনসমর্থন আছে। শুরু থেকেই আমরা একটিমাত্র সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে মেয়র পদ চেয়ে আসছি। এর মধ্যে আমাদের পছন্দ রাজশাহী। সে অনুযায়ী, রাজশাহীতে আমরা একজন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছি। নির্বাচনের প্রস্তুতিও নিয়েছি।

জামায়াত রাজশাহীতে তাদের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে চলতি বছরের শুরুতেই। মহানগর জামায়াতের সেক্রেটারি সিদ্দিক হোসেন লড়বেন সিদ্ধান্ত হওয়ার পর থেকেই চলতে থাকে প্রস্তুতি। রাজশাহী নাগরিক পরিষদের ব্যানারে সিদ্দিককে পরিচয় করিয়ে দিয়ে তার পক্ষে নগরজুড়ে ব্যানার-ফেস্টুনও সাঁটানো হয়।

অতীতের নির্বাচনে রাজশাহীতে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক ভোট পাওয়ার দাবিতে নগরে মেয়র পদে বিএনপির কাছে ছাড় প্রত্যাশা করেছিল জামায়াত। তবে নিবন্ধন হারানোয় দলীয় ভোটের সুযোগ নেই দলটির।

যে কারণে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়াইয়ের বিষয়টি ভাবনায় ছিল নেতাদের। কিন্তু বিএনপি তাদের জোটসঙ্গীর এ আবদারকে বরাবরের মতোই পাত্তা দেয়নি। বর্তমান মেয়র ও মহানগর বিএনপির সভাপতি মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকেই প্রার্থী ধরে কাজ করছে দলটি। এমনকি এখন পর্যন্ত জামায়াতের নেতাদের সঙ্গে কোনো কথাও বলেনি রাজশাহী বিএনপি।

জামায়াত নেতারা বলছেন, রাজশাহী জামায়াতের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা এবার বিএনপিকে ছাড় দিতে চাইছেন না। এছাড়াও বিএনপির স্থানীয় নেতারা জামায়াতের সঙ্গে এ ইস্যুতে কোনো আলোচনাও করছেন না।

মহানগর জামায়াতের নায়েবে আমীর আবু সেলিমের কথাতেই তা স্পষ্ট। তিনি বলেন, ঢাকায় ২০ দলীয় জোটের সভা হয়েছে বলে শুনেছি। কিন্তু আমাদের কাছে কোনো নির্দেশনা আসেনি। আর বিএনপির স্থানীয় নেতারা আমাদের সঙ্গে কোনো আলোচনা করেননি। ফলে আমরা জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে বলব রাজশাহীতে মেয়র পদে আমাদের প্রার্থী দেয়ার জন্য।

তিনি বলেন, আমাদের প্রার্থী সিদ্দিক হোসেন বর্তমানে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন। তার সঙ্গে আলোচনা করে দ্রুত মেয়র পদে লড়াইয়ের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

মহানগর বিএনপির সভাপতি ও বর্তমান মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল অবশ্য জামায়াতকে ছাড় দেয়ার পক্ষে নন। তার মতে, জামায়াতের এমন অবস্থা নেই যে তারা বিএনপিকে চাপ দিতে পারে।

শুধু জামায়াত কেন, ২০ দলীয় জোটের কোনো শরিক দলের কারও তিন সিটিতে নির্বাচন করার কথা নয়। আর রাজশাহীতে বিএনপির এমন অবস্থান হয়নি যে, অন্য কোনো দলের জন্য মেয়র পদ ছেড়ে দিতে হবে।

ঘটনাপ্রবাহ : রাজশাহী-বরিশাল-সিলেট সিটি নির্বাচন ২০১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×