খুলনাসহ বিভিন্ন স্থানে বিশ্ব বাঘ দিবস পালিত

সুন্দরবনে ৩ মাস নিষিদ্ধ হচ্ছে পর্যটন

  যুগান্তর ডেস্ক ৩০ জুলাই ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

খুলনাসহ বিভিন্ন স্থানে বিশ্ব বাঘ দিবস পালিত
সুন্দরবন

খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পালিত হয়েছে বিশ্ব বাঘ দিবস। খুলনায় বন অধিদফতরের আয়োজনে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া বাগেরহাটের মোংলায় মানববন্ধন, শরণখোলায় র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সাতক্ষীরা ও বগুড়ায় পালিত হয়েছে বাঘ দিবস। অপরদিকে সুন্দরবনে বন্যপ্রাণীর প্রজনন মৌসুম জুন-আগস্ট এই ৩ মাস সব ধরনের পর্যটন নিষিদ্ধ হচ্ছে। বন অধিদফতর এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

খুলনা : ‘বাঘ বাঁচাই, বাঁচাই বন, রক্ষা করি সুন্দরবন’-এ প্রতিপাদ্য বিষয় সামনে রেখে বন অধিদফতরের আয়োজনে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া ‘বাংলাদেশ টাইগার অ্যাকশন প্ল্যান ২০১৮-২০২৭’-এর মোড়ক উন্মোচন করা হয়। র‌্যালি ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি। তিনি বলেন, সুন্দরবনকে রক্ষা করতে হলে অবশ্যই বাঘকে রক্ষা করতে হবে।

সরকার বাঘ রক্ষায় বিশেষ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ আগ্রহে ঢাকায় ২০১৪ সালে বাঘসমৃদ্ধ দেশগুলোর নেতাদের অংশগ্রহণে আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সুন্দরবন ও বাঘ রক্ষায় ভিটিআরটি বা ভিলেজ টাইগার রেসপন্স টিম পদ্ধতির মাধ্যমে সমন্বিত প্রকল্প চলমান আছে। দেশ আন্তর্জাতিক অঙ্গনের বিভিন্ন সূচকে উন্নতি লাভ করেছে। এর সঙ্গে আমরা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য সবুজ শ্যামল বাংলা চাই। চলমান উন্নয়ন কার্যক্রম ও মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন যেন পরিবেশের ওপর বিরূপ প্রভাব না ফেলে সেদিকে নজর দিতে হবে। অনুষ্ঠানে ‘বাংলাদেশ টাইগার অ্যাকশন প্ল্যান ২০১৮-২০২৭’-এর মোড়ক উন্মোচন করা হয়। এর আগে সকালে শহীদ হাদিস পার্ক হতে র‌্যালি বের হয়।

বাগেরহাট : বিশ্বখ্যাত রয়েল বেঙ্গল টাইগার, চিত্রল ও মায়া হরিণসহ সুন্দরবনে ৩৭৫ প্রজাতির বন্যপ্রাণী রয়েছে। এসব প্রাণীর প্রজনন বাধাহীন করতে প্রজনন মৌসুম জুন থেকে আগস্ট সব ধরনের পর্যটন নিষিদ্ধ করতে খুলনা অঞ্চলের বন সংরক্ষক (সিএফ) মো. আমির হোসাইন চৌধুরীর কাছে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।

বাগেরহাট পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. মাহমুদুল হাসান জানান, সুন্দরবন হচ্ছে দেশের বন্যপ্রাণীর বৃহত্তম ভাণ্ডার। বিশ্ব ঐতিহ্য এলাকা (ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ সাইড) হিসেবে স্বীকৃত এই বনের ৬ হাজার ১৭ বর্গকিলোমিটার আয়তনের বাংলাদেশ অংশে রয়েছে রয়েল বেঙ্গল টাইগার, চিত্রল ও মায়া হরিণ, বিলুপ্তপ্রায় ইরাবতী, বিভিন্ন প্রজাতির ডলফিন, লোনা পানির কুমির, বন্য শূকর ও উদবিড়ালসহ ৩৭৫ প্রজাতির বন্যপ্রাণী।

তিনি জানান, সুন্দরবনে ২০০৪, ২০০৭, ২০১১ ও ২০১৫ সালের জরিপে দেখা গেছে- রয়েল বেঙ্গল টাইগার ও হরিণসহ বন্যপ্রাণীর আধিক্য এলাকাগুলোই পর্যটকরা অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে। জুন থেকে আগস্ট এই ৩ মাস সুন্দরবনের টাইগার ও হরিণসহ বন্যপ্রাণীর প্রজনন মৌসুম। পর্যটকদের কারণে বন্যপ্রাণীর অবাধ বিচরণ ও প্রজননে বাধার সৃষ্টি ফলে বংশবিস্তারেও নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। এদিকে জলবায়ু পরিবর্তনসহ মনুষ্যসৃষ্ট কারণে সুন্দরবনের বন্যপ্রাণিকুল সংকটের মধ্যে রয়েছে। ইতিধ্যেই সুন্দরবন থেকে বিলুপ্ত হয়েছে দুই প্রজাতির হরিণ, দুই প্রজাতির গণ্ডার, এক প্রজাতির মিঠা পানির কুমির ও এক প্রজাতির বন্য মহিষ।

মোংলা : বাঘের আবাসস্থল সুন্দরবন ও পশুর নদী রক্ষার দাবিতে বাগেরহাটের মোংলায় মানববন্ধন পালিত হয়েছে। রোববার সকালে মোংলা সরকারি কলেজের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। পশুর রিভার ওয়াটারকিপার এবং ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশের যৌথ আয়োজনে কর্মসূচির মধ্যে ছিল র‌্যালি ও আলোচনা সভা। পরে মোংলা সরকারি কলেজে শিশু চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

শরণখোলা : রোববার দুপুরে বনবিভাগ ও ওয়াইল্ড টিমের যৌথ আয়োজনে সাউথখালী ইউনিয়নের সুন্দরবন সংলগ্ন খুড়িয়াখালী বাজারে র‌্যালি শেষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সাতক্ষীরা : সুন্দরবন মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে রোববার একটি র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিতে নেতৃত্ব দেন সহকারী বন সংরক্ষক রফিক আহমেদ। পরে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা, কুইজ প্রতিযোগিতা ও ডকুমেন্টারি প্রদর্শন।

বগুড়া : বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজের শিক্ষার্থীদের পরিবেশবাদী সংগঠন ‘টিম ফর এনার্জি অ্যান্ড ইনভায়রনমেন্টাল রিসার্চ’ (তীর) রোববার বিশ্ব বাঘ দিবসে আলোচনা সভার আয়োজন করে।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter