বিশ্ববরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের জন্মদিন আজ

প্রকাশ : ১০ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  নড়াইল প্রতিনিধি

চিত্রশিল্পী এসএম সুলতান

বিশ্ববরেণ্য চিত্রশিল্পী এবং অসংখ্য দুর্লভ চিত্রকর্মের অমর কারিগর এসএম সুলতানের ৯৫তম জন্মদিন আজ। মানবপ্রেমিক এ মহান শিল্পী ১৯২৩ সালের ১০ আগস্ট যশোর জেলার নড়াইল মহকুমার (বর্তমানে জেলা) মাছিমদিয়া গ্রামে এক দরিদ্র পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

তার বাবার নাম শেখ মোহাম্মদ মেছের আলী। তিনি পেশায় ছিলেন রাজমিস্ত্রি। মায়ের নাম মাজু বিবি। সুলতানকে পরিবারের সবাই লাল মিয়া বলে ডাকতেন। ছোটবেলা থেকেই বাবাকে রাজমিস্ত্রির কাজে সহযোগিতা করার পাশাপাশি ছবি আঁকার প্রতি প্রবল ঝোঁক ছিল তার।

তিনি কিংবদন্তি ও চারুকলার ইতিহাসে সত্যিই এক সুলতান। তার ছবির প্রধান বিষয় হল গ্রামবাংলার খেটে খাওয়া মানুষ, কিষান-কিষানি, জেলে, মাঠঘাট, কর্মচঞ্চল পথ-প্রান্তরসহ গ্রামীণ জনপদের অসংখ্য চিত্র শিল্পীর রংতুলিতে উঠে এসেছে সুনিপুণভাবে।

আবহমান বাংলার সেই ইতিহাস-ঐতিহ্য, বিপ্লব-সংগ্রাম এবং বিভিন্ন প্রতিকূলতার মধ্যেও টিকে থাকার ইতিহাস তার শিল্পকর্মকে সবচেয়ে বেশি প্রভাবিত করেছে। এই অর্থে তিনি প্রকৃত বাঙালি শিল্পী। ১৯৮২ সালে একুশে পদক এবং ১৯৯৩ সালে স্বাধীনতা পদক লাভ করেন এসএম সুলতান। ১৯৯৪ সালের ১০ অক্টোবর যশোর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার জন্মস্থান নড়াইলের মাছিমদিয়ায় তাকে শায়িত করা হয়।

কর্মসূচি : আজ শিল্পীর জন্মদিন পালন উপলক্ষে এসএম সুলতান ফাউন্ডেশন ও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

সুলতান সংগ্রহশালা চত্বরে সকাল ৬টায় কোরআনখানি, ৭টায় চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, ৮টায় শিল্পীর কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা, সোয়া ৮টায় শিশুস্বর্গ মিলনায়তনে আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও পুরস্কার বিতরণের আয়োজন করা হয়েছে। সুলতান ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এমদাদুল হক চৌধুরী যুগান্তরকে বলেন, শিল্পীর জন্মদিন যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের লক্ষ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।