রাষ্ট্রায়ত্ত চার ব্যাংকে মুক্তিযোদ্ধা ঋণ

তিন ব্যাংক থেকে ১ লাখ ৩ হাজার মুক্তিযোদ্ধা ঋণ পেয়েছেন ৩ হাজার ২০৯ কোটি টাকা

  হামিদ বিশ্বাস ২৪ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মুক্তিযোদ্ধা ঋণ

রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলো মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে স্বল্প সুদে ও সহজ শর্তে ঋণ বিতরণ করছে। মুক্তিযোদ্ধা ঋণ প্রকল্পের আওতায় এসব ঋণের কোনো জামানত লাগে না। সুদ নেয়া হয় সরল সুদে। যে কোনো মুক্তিযোদ্ধা এ ঋণ নিতে পারেন।

মুক্তিযোদ্ধাদের সহায়তায় সরকার এ প্রকল্প নিয়েছে। এখন পর্যন্ত সরকারি খাতের সোনালী, জনতা, অগ্রণী ব্যাংক মুক্তিযোদ্ধা প্রকল্পের আওতায় ঋণ দিয়েছে। রূপালী ব্যাংক মুক্তিযোদ্ধা ঋণ প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এখনও ঋণ বিতরণ করেনি। দ্রুতই শুরু করবে।

সূত্র জানায়, এখন পর্যন্ত সোনালী, জনতা ও অগ্রণী ব্যাংক থেকে ১ লাখ ২ হাজার ৯৪৩ জন মুক্তিযোদ্ধা ঋণ পেয়েছেন। ঋণের অঙ্ক ৩ হাজার ২০৯ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে শুধু সোনালী ব্যাংকই ১ লাখ মুক্তিযোদ্ধাকে ৩ হাজার ১১৯ কোটি টাকা ঋণ দিয়েছে। বাকি ঋণ দিয়েছে জনতা ও অগ্রণী ব্যাংক। বিভিন্ন ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, মুক্তিযোদ্ধা ঋণ সবচেয়ে বেশি বিতরণ করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী ব্যাংক। ব্যাংকটি ২০১৬-২০১৯ সাল পর্যন্ত ঋণের জন্য বরাদ্দ রেখেছে ৩ হাজার ৯৩২ কোটি টাকা। এর মধ্য থেকে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ঋণ বিতরণ করে ৩ হাজার ১১৯ কোটি টাকা। মুক্তিযোদ্ধা ঋণ গ্রহীতার সংখ্যা বর্তমানে প্রায় ১ লাখ। ৭ শতাংশের সরল সুদে ঋণ দিয়েছে ব্যাংকটি। ঋণের মেয়াদ সর্বোচ্চ ৮ বছর। তিন মাসের গ্রেস পিরিয়ড। প্রত্যেক মুক্তিযোদ্ধা পেয়েছেন ৩ লাখ টাকার ঋণ।

ব্যাংকের প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ২০১৬ সালে ৯৪৩ কোটি, ২০১৭ সালে ৪১২ কোটি, ২০১৮ সালে ১ হাজার ৪৭৭ কোটি এবং ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ২৮৭ কোটি টাকার ঋণ দেয়া হয়েছে। ব্যাংকটিতে বর্তমানে মুক্তিযোদ্ধা ঋণ স্থিতি ১ হাজার ৯২৫ কোটি টাকা।

জানতে চাইলে সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ যুগান্তরকে বলেন, ‘সরকারি ভাতাপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের মেয়াদি ঋণ’ নামের এ প্রকল্প শুরু করা হয় ২০১৫ সালের ১৫ অক্টোবর। চাহিদা অনুযায়ী ধীরে ধীরে ঋণের অঙ্ক বাড়ানো হয়েছে। ভবিষ্যতেও এ প্রকল্প অব্যাহত থাকবে।

২০১৮ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত ২ হাজার ৮৬৮ জন মুক্তিযোদ্ধাকে ঋণ দিয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত অগ্রণী ব্যাংক। বর্তমানে ঋণের অঙ্ক ৮৯ কোটি ২৫ লাখ টাকায় দাঁড়িয়েছে। এসব ঋণে সুদের হার ৮ শতাংশ। জানতে চাইলে অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোহাম্মদ শামস উল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, ২০১৬ সালে মুক্তিযোদ্ধা ঋণ প্রকল্পটি চালু করা হয়েছে। এর মাধ্যমে স্বল্প সুদে মুক্তিযোদ্ধাদের ঋণ দেয়া হচ্ছে।

রাষ্ট্রায়ত্ত জনতা ব্যাংক ৭৫ জন মুক্তিযোদ্ধাকে ১ কোটি ২৬ লাখ টাকার ঋণ দিয়েছে। জনতা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. আবদুছ ছালাম আজাদ যুগান্তরকে বলেন, ধীরে ধীরে মুক্তিযোদ্ধা ঋণ আরও বাড়ানো হবে।

জানতে চাইলে রূপালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. আতাউর রহমান প্রধান যুগান্তরকে বলেন, রূপালী ব্যাংক মুক্তিযোদ্ধা ঋণ প্রকল্প শুরু করেছে। তবে এখনও ঋণ বিতরণ করা হয়নি। দ্রুতই মুক্তিযোদ্ধা ঋণ প্রকল্পের আওতায় ঋণ বিতরণ করা হবে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×