অনলাইনে কসাই বুকিং : দাম নিয়ে অভিযোগ

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৯ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কোরবানির পশুর মাংস কাটা নিয়ে ভাবছেন। দুশ্চিন্তার কিছু নেই। তথ্যপ্রযুক্তি আপনার জীবনকে সহজ করে দিয়েছে। কোরবানির পাশাপাশি মাংস কাটার জন্য অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে কসাই সেবা। ক্রেতারা চাইলে আগে থেকে বুকিং দিয়ে রাখলেই ঈদের দিন পৌঁছে যাবে কসাই। প্রতি হাজারে দাম নেয়া হচ্ছে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা পর্যন্ত। তবে এ নিয়ে অসুবিধার পাশাপাশি গ্রাহকের অভিযোগও কম নেই। কারণ দাম অত্যন্ত বেশি। প্রতি হাজারে ২৫০ টাকা কসাই চার্জের মানে হল ১ লাখ টাকার গরুতে কসাইকে ২৫ হাজার টাকা দিতে হবে। অন্যদিকে কোরবানির পর বর্জ্য পরিষ্কার করার জন্য অনলাইনে পরিচ্ছন্ন কর্মীও পাওয়া যাচ্ছে। এ জন্যও আগে বুকিং দিতে হবে।

জানা গেছে, অনলাইন কসাই সাপ্লাইয়ের জন্য পোর্টাল রয়েছে। ফেসবুকে বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় পেজ রয়েছে। এগুলো হল- www.facebook.com/butcher-shop, www.bengal meat.com/qurbani এবং www.sheba.xyy/kurbani উল্লেখযোগ্য। এরমধ্যে বুচার শপ ফেসবুকে ‘বুচার শপ-কসাই সাপ্লাই’ নামে একটি পেজ আছে, যারা ৩ বছর ধরে কসাই সরবরাহ করে আসছেন। পেজটির পরিচালক ও বুচার শপের উদ্যোক্তা সোলায়মান হোসেন বায়জিদ শনিবার যুগান্তরকে বলেন, কোরবানির ঈদ উপলক্ষে নানা ধরনের শ্রমিকরা কসাই হয়ে যায়। আর তাদের অভিজ্ঞতা না থাকার ফলে অনেক সময়ই কোরবানির গরুর মাংসটা ঠিকমতো পাওয়া যায় না। এতে করে গরুর ক্রেতা ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে থাকেন। একই সঙ্গে কোরবানির ঈদের পরবর্তী সময়ে ব্যবসা কম থাকায় অনেকটা বেকারভাবেই দিন কাটান কসাইরা। এতে করে তাদের আয়-রোজগারও কমে আসে। তাই উভয় পক্ষের কথা চিন্তা করেই আমাদের এ কার্যক্রমের শুরু। তিনি আরও বলেন, আমাদের এখানে বুকিং দিলে গরুর দাম অনুযায়ী হাজারে ২০০ টাকা করে চার্জ দিতে হয় কসাইদের। আর ঈদের পরের দিন গরু কাটতে প্রতি হাজারে ১৩০ টাকা করে নেয়া হয়। তিনি বলেন, এ টাকার পুরোটাই কসাইরা পায়। আমরা সেখান থেকে বা গরুর মালিকের কাছ থেকে কোনো ধরনের কোনো সার্ভিস চার্জ নিই না। এ বছরের বুকিং নিয়ে তিনি বলেন, আমাদের বুকিং শুরু হয়েছে ১০ তারিখ। এ পর্যন্ত ২৫ জন বুকিং দিয়েছেন। এদের কারও কারও ৩ থেকে ৪টি গরু রয়েছে। তিনি বলেন, গত বছর ১১৩টি গরু জবাই দিয়েছিলাম। এ বছর ১৫০টির প্রস্তুতি রয়েছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter