উন্নয়ন প্রকল্পে নজরদারি

দুর্নীতি থেকে মুক্তির উপায় খোঁজা জরুরি

  সম্পাদকীয় ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

উন্নয়ন প্রকল্পে নজরদারি

বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে বাস্তবায়িত ৯ প্রকল্পে কেনাকাটায় অনিয়ম ও নিয়মবহির্ভূত ব্যয়ের (ইনেলিজেব্ল এক্সপেনডিচার) অভিযোগ ওঠায় এসব প্রকল্পে বিশেষ নজরদারির উদ্যোগ নিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

অবশ্য অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) পক্ষ থেকে প্রকল্পগুলো সম্পর্কে উত্থাপিত অভিযোগ এরই মধ্যে নিষ্পত্তি করার কথা বলা হয়েছে। একইসঙ্গে অভিযুক্ত কোনো কোনো প্রকল্পের টাকা বিশ্বব্যাংকের কাছে ফেরত দেয়ার কথাও বলা হয়েছে।

তবে ইআরডির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দুদক চাইলে আবারও এসব প্রকল্পের অনিয়ম-দুর্নীতি বিষয়ে অনুসন্ধান করতে পারে। জাতীয়ভাবে গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনায় কোনো প্রকল্প অনুমোদনের পর বাস্তবায়ন পর্যায়ে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগে দাতা সংস্থা কর্তৃক বন্ধ ঘোষিত হওয়া বা অর্থ ফেরত নেয়ার ঘটনা যাতে আর না ঘটে, সেজন্য স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা উচিত।

অস্বীকার করার উপায় নেই, বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে দেশে আগে যেসব সমস্যা ছিল, সেগুলোর অধিকাংশ এখনও বহাল রয়েছে। এর ফলে শুধু দাতা সংস্থাগুলো হতাশা বা অসন্তোষ প্রকাশ করছে না, দেশও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

এ অবস্থা কাটিয়ে উঠতে হলে গৃহীত যে কোনো প্রকল্পের ক্ষেত্রে সরকারের নজরদারি বাড়ানো উচিত। সরকারি প্রতিষ্ঠান ও সংস্থাগুলোয় দুর্নীতি ও দুর্বৃত্তায়নের মাধ্যমে যে লুটপাটের সংস্কৃতি গড়ে উঠেছে, অবিলম্বে তা বন্ধ হওয়া প্রয়োজন। কারণ দুর্নীতি রাষ্ট্রের মূল ভিত নড়বড়ে করে দিচ্ছে।

তাই বিশেষত প্রাতিষ্ঠানিক দুর্নীতি রোধে দ্রুত কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা দরকার। বলার অপেক্ষা রাখে না, সরকারি প্রতিষ্ঠান ও সংস্থাগুলোয় বিরাজমান লাগামহীন দুর্নীতি ও অনিয়ম সাধারণ মানুষের অর্থনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অধিকার খর্ব করছে এবং এর ফলে প্রান্তিক ও পশ্চাৎপদ জনগোষ্ঠী ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

আমরা মনে করি, দুর্নীতি সামাজিক, অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে মানুষের মৌলিক অধিকার অর্জনে বড় বাধা। এসব অধিকার রক্ষায় সরকারের আন্তরিক ভূমিকা কাম্য হলেও উদ্বেগের বিষয় হল, এ ব্যাপারে সরকারের তরফ থেকে কার্যকর কোনো পদক্ষেপ লক্ষ করা যাচ্ছে না।

দারিদ্র্য বিমোচনে সাফল্য অর্জন, মাথাপিছু আয় ও গড় আয়ু বৃদ্ধি পাওয়া এবং স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় যেতে অগ্রগতিসহ বিভিন্ন সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে আমাদের অর্জন আশাপ্রদ হলেও অপ্রতিরোধ্য দুর্নীতি সবকিছু গ্রাস করতে উদ্যত হয়েছে, যা থেকে মুক্তি পাওয়া জরুরি।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×